কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি দিয়ে মনোচিকিৎসা

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি দিয়ে মনোচিকিৎসা
কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি দিয়ে মনোচিকিৎসা

‘আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স’ বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দিয়ে মানসিক রোগীদের চিকিৎসা ব্যবস্থা আরও উন্নত করার স্বপ্ন দেখাচ্ছেন কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা। পপুলার সায়েন্স ওয়েবসাইটের একটি প্রতিবেদনে তাদের উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে, রোগীদের ‘অল্প কথা’ থেকে ‘বেশি তথ্য’ পাওয়া যাবে এই প্রযুক্তিতে।
গবেষক পিটার ফোল্টজ বলছেন, ‘মানসিক রোগীদের সঙ্গে কথা বলে বিস্তারিত জানা প্রায়ই সম্ভব হয় না। অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তারা এড়িয়ে যান। চিকিৎসার জন্য এটি অন্তরায়। এমন সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে আমরা নতুন একটি অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করছি।’
ওই অ্যাপ্লিকেশন দিয়ে মূলত রোগীদের কথোপকথন রেকর্ড করা হবে। তার কথা বলার ধরন এবং কী বলছেন সেটি মেশিন নিজেই বিশ্লেষণ করবে।
কোনো যন্ত্রকে যখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে কাজ করার জন্য বানানো হয়, তখন সেখানে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহার করা হয়। অর্থাৎ মানুষের মতো কাজ পেতে যে যন্ত্র তৈরি করা হয় তাকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার যন্ত্র বলে।
পিটার ফোল্টজ এবং তার সহকর্মীরা যে যন্ত্রটি তৈরি করছেন, সেটি একটি ব্ল্যাক-বক্স হতে পারে। আগে থেকে বিভিন্ন রোগ সম্পর্কিত সব তথ্য এখানে লোড করা থাকবে। যন্ত্রটি কাছে রেখে রাগীকে বিভিন্ন ‘ওপেন-এন্ডেড’ প্রশ্ন করা হবে। যন্ত্র সেগুলো বিশ্লেষণ করে বিস্তারিত জানাবে। চিকিৎসক আবার সেটি বিশ্লেষণ করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

No posts to display

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here