নিজেকে নিয়ে কিভাবে গর্ববোধ করবেন?

0
25
নিজেকে নিয়ে কিভাবে গর্ববোধ করবেন? ছবিঃ ইন্টারনেট
শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

প্রতিটি মানুষেরই নিজেকে গুরুত্ব দেওয়া এবং নিজেকে নিয়ে গর্ববোধ করা উচিৎ। কিন্তু অনেকেই কিভাবে সেটি করবে সে সম্পর্কে সন্দিহান থাকে।

অনেকেই নিজের বিষয়ে গর্ববোধ করতে বা নিজেকে নিয়ে আলাদা করে ভাবতে কিছুটা সংকোচ বোধ করে। এর মানে এটি নয় যে তাদের আত্মবিশ্বাস কম বা তাদের মধ্যে এমন কোন গুণাবলী নেই যেটি নিয়ে তারা গর্ববোধ করতে পারে। মনস্তত্ত্ববিদগণ বলেন, এর কারণ মূলত হয় তার সংকোচ এবং সচেতনতার অভাব। আর নিজেকে নিয়ে গর্ববোধ করা প্রত্যেকটি মানুষের জন্য সমান গুরুত্বপূর্ণ। কারণ প্রতিটি মানুষই তার নিজ নিজ জায়গা থেকে বিশেষ অধিকারী।

সচেতনতা বৃদ্ধি করতে কিংবা নিজের মধ্যে থাকা দ্বিধা দ্বন্দ্ব দূর করতে, যেটিই হোক, প্রথমে আমাদের  এই বিষয়ে পরিষ্কার ধারণা থাকা উচিৎ যে নিজেকে নিয়ে গর্ববোধ করার অর্থ কি। নিজেকে নিয়ে গর্ব করা অর্থ হল নিজেকে সেই যোগ্য আসনে বসানো যেটি বিভিন্ন অর্জনের জন্য আপনার প্রাপ্য। আপনি যেমন অন্যদের বিভিন্ন কাজের জন্য তাদেরকে নিয়ে গর্ববোধ করেন, একইভাবে নিজেকেও ততোটাই গুরুত্ব দেওয়া হল নিজেকে নিয়ে গর্ববোধ। এর মানে এটি নয় যে আপনি অন্যদের অপমান করবেন বা তাদেরকে গুরুত্ব দেবেন না। নিজেকে নিয়ে গর্ববোধ করার মানে হল অন্যদের সাথে সাথে নিজেকেও যোগ্য হওয়ার যথাযথ সম্মানটুকু দেওয়া। তবে নিজেকে নিয়ে গর্ববোধ করা এবং অহংকার করা দুটি সম্পূর্ণ ভিন্ন বিষয়। একটি নিজের মানসিক অবস্থার উপর ইতিবাচক প্রভাব আর অন্যটি নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। একটি আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়ায় আর অন্যটি বাড়ায় মানসিক সংকীর্ণতা। তাই নিজের মধ্যে ইতিবাচক গুণাবলির বিকাশ ঘটাতে নিজেকে নিয়ে গর্ববোধ করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয় এবং সহায়ক একটি কাজ। নিচে কিছু কৌশল তুলে ধরা হল যার মাধ্যমে একজন ব্যক্তি তার মধ্যে এই গুণের বিকাশ ঘটাতে পারে।

জীবনের সার্থকতা গুলি চিহ্নিত করুন

আপনার জীবনের সার্থকতা গুলিকে চিহ্নিত করুন এবং সব সময় স্মরণে রাখুন। এই সার্থকতা গুলিই আপনার মাঝে নিজেকে গুরুত্ব দেবার মনোভাব বাড়িয়ে তুলবে।

মানসিক সন্তুষ্টি প্রদান করে এমন কী কী কাজ আপনি করেছেন সেগুলি স্বীকার করুন

নিজের করা ভালো কাজ যেগুলির উপর আপনার আস্থা আছে যে এই কাজগুলি আপনি সঠিক করেছেন সেগুলিকে গুরুত্ব দিন এবং আপনি যে কাজগুলি করেছেন সেই কৃতিত্বটি নিজেকে দিন। তাহলেই নিজের প্রতি আত্মতৃপ্তি আসবে।

নিজের যোগ্যতা ও সামর্থ্যের মূল্য দিন

আপনার মাঝে যেসব যোগ্যতা রয়েছে এবং আপনি যেসব কাজের সামর্থ্য রাখেন সেগুলির জন্য নিজের প্রশংসা করতে শিখুন। এই অভ্যাস আপনাকে অন্যান্যদের মধ্যে এবং অন্যান্যদের সাথে সম্মানের আসনে আরোহণ করতে সহায়তা করবে।

নিজের উপর আস্থা ও বিশ্বাস রাখুন

সব সময়, সব পরিস্থিতিতে নিজের উপর বিশ্বাস এবং আস্থা রাখলে সেটি আপনাকে নিজের কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে সহায়তা করবে।

নিজের সব থেকে ভালোটুকু নিয়ে বাঁচুন

সফল বা বিফল যা ই হন না কেন, আপনার প্রয়াস এবং আপনার স্বদিচ্ছাকেই সব সময় গুরুত্ব দিন। আর নিজের সব থেকে ভালো টুকু নিয়েই মানসিক সন্তুষ্টিতে থাকুন। তাহলে নিজের মধ্যে সব সময় নিজেকে নিয়ে ইতিবাচক একটি মানসিকতা কাজ করবে।

সব সংকোচ দূরে ঠেলে দিয়ে নিজেকে বিশেষ কোন অবস্থায় কিংবা শুধু সফলতায় নয়, বরং জীবনের প্রতি মুহূর্তে গুরুত্ব দিন। আপনিও গুরুত্বপূর্ণ এবং আপনি এই গুরুত্বের যোগ্য সেটি মন থেকে বিশ্বাস করুন।

হ্যাপিয়ার হিউম্যান থেকে অনুবাদ করেছেনঃ প্রত্যাশা বিশ্বাস প্রজ্ঞা

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে   

“মনের খবর” ম্যাগাজিন পেতে কল করুন ০১৮ ৬৫ ৪৬ ৬৫ ৯৪
more

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here