আমার সমস্যা মাথা ব্যথা কিন্তু সবাই আমাকে মানসিক ডাক্তার দেখাতে বলছে

আমার সমস্যা মাথা ব্যথা কিন্তু সবাই আমাকে মানসিক ডাক্তার দেখাতে বলছে

সমস্যা:
আমার নাম তাবাসসুম ফেরদৌস৷ বয়স২২,স্টুডেন্ট৷ ৮ মাস ধরে আমার প্রচন্ড মাথা ব্যথা হচ্ছে। খাওয়া দাওয়ার প্রতি কোন রুচি নেই৷ আমি মেডিসিনের ডাক্তার দেখিয়েছিলাম তিনি আমাকে কিছু ঔষধ দেন কিন্তু সেগুলোতে কোন কাজ হয় না৷ এরপর তিনি আমাকে এক্সরেসহ কিছু টেস্ট করতে দেন কিন্তু সেগুলো সব নরমাল আসে এবং আমাকে একজন মানসিক রোগের ডাক্তার দেখানোর কথা বলেন। এতে আমার প্রচন্ড রাগ হয় আর আমি একজন নিওরোলজিস্টকে দেখাই তিনিও আমাকে পরীক্ষা নীরিক্ষা করে বলেন আমার কোন শারীরিক সমস্যা নেই৷ তিনিও আমাকে মানসিক রোগবিশেষজ্ঞ দেখানোর পরামর্শ দেন৷ আমার সমস্যা মাথা ব্যথা কিন্তু সবাই আমাকে মানসিক ডাক্তার দেখাতে কেন বলছে৷ মাানসিক রোগবিশেষজ্ঞ দেখালে কি আমার মাথা ব্যথা ভাল হতে পারে?
 
পরামর্শ:
আমি বুঝতে পারছি তোমার সমস্যাটা। তোমার শরীরে ব্যথা বেদনা কষ্টগুলো কিভাবে মানসিক হবে সেটা তুমি বুঝে উঠতে পারছ না। আসলে শারীরিক রোগের যেমন বিভিন্ন ধরণ আছে, বিভিন্ন নাম আছে Severity অনুযায়ী কম এবং বেশী মাত্রার রোগ আছে মানসিক রোগেরও তেমন নাম আছে। যেমন-সর্দি, কাশি, জ্বর এগুলোকে আমরা রোগ বলি না কিন্তু অসুস্থতা বলি এবং অল্প কিছু সময়ে ঔষধ খেলে ঠিক হয়ে যায় আবার ক্যান্সার খুবই Severe ধরণের রোগ, যাকে আমরা বলি মরণব্যাধি। মানসিক রোগেরও তেমনি বিভিন্ন ধরণ আছে। হতাশা, কোন কিছু নিয়ে দুশ্চিন্তা হতে পারে সেটা পড়াশুনা বা রিলেশন অথবা পারিবারিক পরিস্থিতি যেটা নিয়ে আমরা দুশ্চিন্তাগ্রস্থ হই। সেটা আমাদের মধ্যে এক ধরণের চাপ তৈরী করে এবং সেটা আমাদের শরীরেও প্রভাব ফেলে।
যার ফলে অনেক সময় দেখা যায় টেস্ট করলেও কোন কিছু ধরা পড়ে না কিন্তু সত্যি সত্যি কোন ব্যথা বা কষ্ট নিয়ে দিন যাপন করতে হয়। আবার স্কিজোফ্রেনিয়া বা বাইপোলার মুভ ডিজওর্ডার হল গুরুতর মানসিক রোগ যেখানে হ্যালোসিনেশন হয় ব্যক্তি অনেক সময় এমন আবোল তাবোল আচরণ করে, যেটা যে কেউ দেখেই বুঝতে পারে যে, তার মানসিক সমস্যা আছে। ক্যান্সার বা হার্ট এ্যাটাক যেমন ঝবাবৎব টাইপের শারীরিক সমস্যা ঠিক তেমনি স্কিজোফ্রেনিয়া বা বাইপোলার মুভ ডিজওর্ডার হল গুরুতর মানসিক রোগ। জ্বর কিংবা ম্যালেরিয়া কিংবা টাইফয়েড এগুলো যেমন Severity‘র দিক থেকে মৃদু রোগ ঠিক তেমনি মানসিক রোগেরও এমন আছে। যেমন ডিপ্রেশন বা এই যে তুমি বলছ Headache এটাকে আমরা বলি Tension headache কোন কারণে তুমি যদি কোন কিছু নিয়ে দুশ্চিন্তাগ্রস্ত থাকো তাহলে অনেক সময় Bodily একটা Symptom দেখা দিতে পারে, মানে ব্যথা হতে পারে। মানসিক কারণে প্যারালাইসিস পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে, এমনকি মানসিক কারণে চোখে দেখতে পায় না, কথা বন্ধ হয়ে যায় এরকমও হয়, কিন্তু এগুলোর কোন অর্গানিক কারণ নেই টেস্ট করে কোন কিছুই পাওয়া যায় না। টেস্ট করে কোন কিছু পাওয়া না গেলে আমরা মনে করি হয়ত রোগটা কেউ ধরতে পারছে না, কিন্তু ধরা না পরার আরো একটা কারণ থাকতে পারে যে ঐ রোগটার কারণ হল শারীরিক না মানসিক দুশ্চিন্তা বা চাপজনিত। কিন্তু সেটা গুরুতর নাও হতে পারে। আমাদের[ মানসিক রোগের সাথে একটা Stigma আছে। মানসিক রোগ বলতে আমরা বুঝি যে সে হয়ত অনেক কিছুই বুঝবে না, তার মধ্যে আবোল তাবোল আচরণ দেখা যাবে। তাকে দেখেই বোঝা যাবে, সে কাজকর্ম করতে পারবে না। অন্যের সাথে ঝামেলা করবে। সবক্ষেত্রে এমনটা নাও হতে পার। মানসিক চাপে শারীরিক Symptom গুলো নিয়েও মানসিক রোগ হতে পারে।
আমার মনে হয় তুমি বুঝতে পেরেছো। তোমার যে Headache টা হচ্ছে তার জন্য অন্য ঔষুধ খেয়েও তেমন কোন লাভ হচ্ছে না। নিউরোলজিস্টও একই কথা বলেছেন। তিনি নিউরোলজিক্যাল কোন সমস্যা তোমার মধ্যে দেখছেন না কিন্তু তুমিতো কষ্ট পাচ্ছ। এ কষ্টের উৎপত্তি হতে পারে Tension বা দুশ্চিন্তা এবং সেটি ছোট খাট কোন বিষয়েও হতে পারে। সুতরাং তুমি এটা মেনে নাও এবং মানসিক সমস্যা মানেই অনেক বড় রোগ এভাবে না ভেবে দ্রুত কোন মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের সাহায্য নাও, পাশাপাশি কোন সাইকোথেরাপিস্টের পরামর্শ নিতে পার। এভাবে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠ এটাই আমি কামনা করছি। সাহায্য নিতে চাওয়ার জন্য তোমাকে অনেক ধন্যবাদ।
পরামর্শ দিচ্ছেন,
সেলিনা ফাতেমা বিনতে শহিদ


দৃষ্টি আকর্ষণ- মনেরখবর.কম এর প্রশ্ন-উত্তর বিভাগে, মানসিক স্বাস্থ্য, যৌন স্বাস্থ্য, মাদকাসক্তি সহ মন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আপনার কোনো জানার থাকলে বা প্রশ্ন থাকলে বা বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দরকার হলে question@www.monerkhabor.com এই ইমেলের মাধ্যমে প্রশ্ন পাঠাতে পারেন।

No posts to display

1 COMMENT

  1. আমার এক পরিচিত ভাই আত্মিয় বাসায় আসা দেখতে পারে না।কেউ আসার কথা শুনলেই টেনশন,চিত্ককার করে।সবসময় ঘর পরিষ্কার করতে ব্যস্থ থাকে।এটা যে বাড়াবাড়ি যেকেউ দেখলেই বুঝতে পারবে।ও সোফা,বিছানায় কেউ বসা পছন্দ করে না সোফা কুচকে যাবে বলে।কোন সামাজিক অনুষ্টানে যাওয়া পছন্দ করে না।বউয়ের সাথে মাঝেমাঝে খিটখিট করে কিন্তু বউকে খুব ভালবাসে।ইদানিং নাকি ওদের দাম্পত্য জীবনেও সমস্যা দেখা দিয়েছে। এ সমস্যার সমাধান কি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here