আমার হস্তমৈথুনের অভ্যাস ছিল, এখন অস্বস্তিতে ভুগছি : কী করবো?

আমার হস্তমৈথুনের অভ্যাস ছিল, এখন অস্বস্তিতে ভুগছি : কী করবো?

প্রশ্ন : আমার বয়স ২০। আমি অনার্স ২য় বর্ষের ছাত্র। আমি পারিবারিক কারণে খুবই বিপর্যস্ত। আমার হস্তমৈথুন করার অভ্যাস ছিল। এটি একসময় ভয়ংকর রূপ নেয়। তাই আমি একজন মেডিক্যাল বিশেষজ্ঞের শরণাপন্ন হই।

তিনি আমাকে tab.Xetril 0.5; tab.Efynal 200 mg.; tab.Anafranil 25 mg. ঔষুধগুলো দেন। আমি এই ঔষুধগুলো খাওয়া অবস্থায় মোটামুটি ভালো থাকি এবং ঔষধ ছেড়ে দিলে আবার আমার চিন্তাধারাসহ মানসিক অবস্থা আগের মতো হয়ে যায়। এ সময় হস্তমৈথুনও করা হয়।

আমি এখন ম্যাচে থাকি এবং কখনো বাড়িতে গেলে খুবই অস্বস্তি বোধ করি। আমার আরেকটি সমস্যা হলো কৃমি সমস্যা। এর জন্য প্রচুর Almex 500 mg tab. খেয়েছি। তবুও আমার থুতু ও নাক দিয়ে কৃমির লার্ভা বেরোয়।

এছাড়া পায়ুপথ ও অণ্ডকোষের আশেপাশেও প্রদাহ ও চুলকানি দেখা দিয়েছে যা গরমের সময় আরও বৃদ্ধি পায়। এখন আমার কী করা উচিত জানালে উপকৃত হব। আমার অর্থনৈতিক সমস্যাও অনেক বেশি প্রকট।

-নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

পরামর্শ: প্রশ্ন করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আপনার লেখা পড়ে বুঝতে পারলাম আপনি তিন ধরণের সমস্যায় ভুগছেন। সমস্যাগুলো হলো যৌন সমস্যা, কৃমির সমস্যা এবং চর্ম সমস্যা। যদিও চর্মের সমস্যাটাকে আপনি কৃমির সমস্যা মনে করছেন। কিন্তু আপনার বিবরণ শুনে মনে হলো ফাঙ্গাল ইনফেকশন।

এক্ষেত্রে চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ আপনাকে সঠিক চিকিৎসা দিতে পারবেন। আর্থিক সমস্যা থাকলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চর্ম বহির্বিভাগে দেখাতে পারেন। কৃমির সমস্যা কৃমির ঔষুধ বা এন্টিহেলমেন্থিক খেলে ঠিক হয়ে যাবে।

এবার আসি আপনার যৌন সমস্যায়। আপনি বলেছেন আপনার হস্তমৈথুনের অভ্যাস আছে। মাঝে মাঝে হস্তমৈথুনের মাত্রা বেড়ে যায়। সেরকমই একটা সময়ে আপনি চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়েছিলেন।

আপনার বর্ণনায় যেটুকু বোঝা গেল তিনি মনোরোগ বিশেষজ্ঞ নন। অবসেসিভ কম্পালসিভ ডিজঅর্ডার নামে একটি মানসিক রোগ আছে যেখানে যৌন চিন্তা বা কল্পনা বেড়ে যায় এবং রোগী ঘন ঘন হস্তমৈথুন করতে বাধ্য হয়। আপনার তেমন কিছু হয়েছিল কিনা তা বোঝা যাচ্ছে না।

তবে ঐধরনের রোগের ঔষুধ আপনাকে প্রেসক্রাইব করা হয়েছিল। আবার হস্তমৈথুন একটি স্বাভাবিক যৌন আচরণও। কোনো কারণে মানসিক চাপে থাকলে এই আচরণটা বেড়ে যায়। কাজেই আমি বলব আপনি একজন মানসিক বিশেষজ্ঞ দেখিয়ে আগে আপনার রোগের ব্যাপারে নিশ্চিত হন।

তাহলে আপনার চিকিৎসা সঠিক হবে। মনে রাখবেন শুধু ঔষধের ওপর এ ধরনের রোগের চিকিৎসা নির্ভর করে না। সঠিক রোগ নির্ণয় এবং পরবর্তী ব্যবস্থার ওপর আরোগ্য নির্ভর করে। আপনি বিএসএমএমইউ’র মনোরোগবিদ্যা বহির্বিভাগে যোগাযোগ করুন। ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন ।

পরামর্শ দিচ্ছেন,
ডা. এস এম আতিকুর রহমান
সহকারী অধ্যাপক
মনোরোগবিদ্যা বিভাগ
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়।

সূত্র : ‘মাসিক মনের খবর’ মার্চ ২০২২ সংখ্যা

  • মনেরখবর.কম এর প্রশ্ন-উত্তর বিভাগে, মানসিক স্বাস্থ্য, যৌন স্বাস্থ্য, মাদকাসক্তি সহ মন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আপনার কোনো জানার থাকলে বা প্রশ্ন থাকলে বা বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দরকার হলে monerkhaboronline@gmail.com এ মেইল করতে পারেন অথবা মেসেজ করতে পারেন মনের খবর ফেসবুক পেজের ইনবক্সে এবং 01844618497 হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বারে।

এছাড়া মনের খবর মাসিক ম্যাগাজিন সংগ্রহ করতে কল করুন : 01797296216 এই নাম্বারে।

/এসএস/মনেরখবর

No posts to display

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here