মানসিক স্বাস্থ্যের চিকিৎসা নিয়ে সমাজে যত ভুল ভ্রান্তি

0
57
মানসিক স্বাস্থ্যের চিকিৎসা নিয়ে সমাজে যত ভুল ভ্রান্তি
শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যাগুলো চিহ্নিত করা এবং যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা করা অত্যন্ত প্রয়োজন। কিন্তু এখনো এই সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি রয়ে গেছে অসম্পূর্ণ, অসচেতনতায় পরিপূর্ণ এবং ভুল ধারণায় ভরপুর।

মানসিক স্বাস্থ্যের গুরুত্ব বা মানসিক সমস্যা দূর করতে যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা করা এই সব কিছুই এখনো আমাদের সমাজে অবহেলিত ও উপেক্ষিত বিষয়। শারীরিক যে কোন সমস্যায় চিকিৎসা হল পরিচর্যা ও সুস্থ হবার মূল উপায়। কিন্তু অনেকেই আছেন এখনো মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যাকে কোন সমস্যা মনে করা বা সেটি দূর করতে চিকিৎসার প্রয়োজন সেটি স্বীকার করতে নারাজ।

আমাদের সমাজের অনেকের মতে এটি কোন সমস্যা নয় বরং সাময়িক অসুবিধা, যা সময়ের সাথে সাথে ঠিক হয়ে যাবে। ব্যক্তি পর্যায়ে মানসিক সমস্যা এবং এর চিকিৎসা নিয়ে প্রচলিত এসব ভুল ধারণা মানুষের সুস্থতাকে সংকীর্ণ এবং সামগ্রিক চিকিৎসা ব্যবস্থাকে কার্যত অকার্যকরী করে তুলছে।

শারীরিক বিভিন্ন সমস্যার ক্ষেত্রে আমরা উপসর্গকে যতটা গুরুত্ব প্রদান করি, মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যার উপসর্গ গুলোকে আমরা ততোটা গুরুত্ব প্রদান করি না। যেমন- কোন কারণে পেটে ব্যাথা হলে আমরা পেটে ব্যাথার কারণ খুঁজে বের করা এবং সেটি নিরাময়ের দ্রুত প্রচেষ্টা করি। কিন্তু যদি কেউ বিষণ্ণতায় ভোগে, মানসিক চাপের ফলে স্বাভাবিক জীবন যাপনে অসমর্থ হয়ে পড়ে, আমরা এসব উপসর্গকে সমস্যা হিসেবে মনেই করি না, যে সমস্যা গুলোর প্রকৃত পক্ষে আশু সমাধান প্রয়োজন।

অনেকে মানসিক সমস্যা নিয়ে কোন প্রকার আলোচনা করতেই রাজি হন না। কারণ তাদের মতে এটি জানাজানি হলে সম্মান হানীর ভয় রয়েছে। তারা ভাবেন, মানসিক সমস্যা আছে এটি স্বীকার করা মানেই তাকে মানসিক রোগী বা পাগল হিসেবে চিহ্নিত করা। এ ধরণের ভুল ধারণা দীর্ঘদিন ধরে মানুষকে বিভিন্ন মানসিক সমস্যায় ভোগায় এবং ধীরে ধীরে অনেক জটিল সমস্যা সৃষ্টি করে।

আবার অনেকে চিকিৎসা বলতে শুধু ওষুধ খাওয়াকেই বোঝেন। যেহেতু মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই প্রাথমিক পর্যায়ে কাউনসেলিং করে দূর করা হয় এবং এই চিকিৎসা পদ্ধতিটি বেশ সময় সাপেক্ষ। তাই অনেকেই একে চিকিৎসা হিসেবে গণ্য করতে নারাজ থাকেন।

একজন ব্যক্তির সুস্থ থাকার পেছনে শারীরিক ও মানসিক উভয়ভাবে সুস্থ থাকার গুরুত্বই সমান। এই সহজ বিষয়টি নিয়ে অনেকেই এখনো অসচেতন। সমাজে মানসিক স্বাস্থ্যের গুরুত্ব এবং মানসিক সমস্যায় ও চিকিৎসা গ্রহণের প্রয়োজন এগুলো নিয়ে ব্যক্তি ও সমাজ পর্যায়ে সচেতনতা সৃষ্টির প্রয়োজন রয়েছে।

মানুষ যতদিন শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যকে সমান গুরুত্ব না দেবে, সুস্থ মানসিকতা সম্পন্ন মানব সমাজ গড়ে ওঠা ততো দিন অধরাই রয়ে যাবে। আমাদের সবার স্বার্থে তাই মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও মানসিক সমস্যায় চিকিৎসার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে সমাজে প্রচলিত ভুল ভ্রান্তি গুলো দূর করতে এগিয়ে আসতে হবে।

লিংক: https://www.psychologytoday.com/intl/blog/vitalogy/202107/the-paradox-mental-health-diagnosis

অনুবাদ করেছেন: প্রত্যাশা বিশ্বাস প্রজ্ঞা

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে

more

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here