পক্ষাঘাতগ্রস্তদের স্বাভাবিক জীবনের পথে পুনর্বাসনে সিআরপি

0
18
‘Mental Health Day Centre in Bangladesh: Multidisciplinary Team Approch’
শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

সিআরপি (সেন্টার ফর দ্যা রিহ্যাবিলিটেশন অব দ্যা প্যারালাইজড) মূলত পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্র। মানবসেবার মহান ব্রত নিয়ে মিস ভ্যালরি টেইলরের নিরলস পরিশ্রমে ১৯৭৯ সালে যাত্রা শুরু করে সিআরপি। সোহরাওয়ারদী হাসপাতালের গুদাম ঘরে প্রতিষ্ঠিত হওয়া সিআরপি ধীরে ধীরে হয়ে উঠে প্রতিবন্ধীদত্বের শিকার লোকজনের আশার কেন্দ্র। বর্তমানে ঢাকার অদূরে সাভারে ১৪ একর জমির গড়ে উঠে সিআরপির প্রধান কার্যালয়। ঢাকা, চট্রগ্রামসহ সারাদেশে মোট ১৩ টি সেবা কেন্দ্র রয়েছে এর।

মিস ভ্যালরি টেইলর

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক জরিপে দেখা যায়, আমাদের দেশে শতকরা দশ ভাগ লোক কোনো না কোনো প্রতিবন্ধীতার শিকার। সড়ক দুর্ঘটনা, গাছ থেকে পড়ে যাওয়া, বিদ্যুৎপৃষ্ট হওয়া, জন্মগত ত্রুটি, শিল্প কারখানায় দুর্ঘটনা, স্পাইনাল কর্ডের আঘাতের কারণে প্রতিদিনই পক্ষাঘাতগ্রস্ত হচ্ছে অনেক মানুষ। প্রয়োজনীয় চিকিৎসার অভাবে এই পঙ্গুত্বের অভিশাপ নিয়ে বাঁচতে হয় তাদের। কিন্তু রিহ্যাবিলিটেশনের মাধ্যমে এদের পুনর্বাসন করা সম্ভব। আর এ কাজটিই করে থাকে সিআরপি।

প্রতিবন্ধীত্বের শিকার ব্যক্তিদের চিকিৎসা ও পুনর্বাসন করাই সিআরপি’র মূল লক্ষ্য। পুনর্বাসনের অংশ হিসেবে পক্ষাঘাতগ্রস্ত ব্যক্তিদের স্বাভলম্বী করতে সাভার ও গণকবাড়িতে রয়েছে সিআরপির কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। যেখানে বিনামূল্যে পঙ্গুত্বের শিকার ব্যক্তিদের নিজ নিজ শিক্ষা, দক্ষতা ও আগ্রহ অনুযায়ী সেলাই, ইলেক্ট্রনিক মেরামত, কম্পিউটার এপ্লিকেশন, দোকান ব্যবস্থাপনাসহ বিভিন্ন বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। প্রশিক্ষণ প্রদান শেষে তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থাও করে সিআরপি। তাছাড়াও বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুদের জন্য রয়েছে উইলিয়াম এন্ড ম্যারি টেলর স্কুলে। ২০০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত এই স্কুলে, সমাজ থেকে ছিটকে পড়া শিশুদের শিক্ষার মাধ্যমে সমাজের মূল ধারায় ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তারা।

 

সিআরপি নিজেদের কার্যক্রম ও জনগনকে সচেতন করতে এওয়ারনেস প্রোগ্রাম আয়োজন করতে যাচ্ছে। ‘Mental Health Day Centre in Bangladesh: Multidisciplinary Team Approch’ বিষয়ক এই এওয়ারনেস প্রোগ্রামে উপস্থিত থাকবেন শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজের মনোরোগবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. জুবায়ের মিয়া, ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট চয়ন কুমার দাস, অকুপেশনাল থেরাপিষ্ট রাজিয়া সুলতানা। মডারেটর হিসেবে থাকবেন অকুপেশনাল থেরাপিষ্ট আফসানা আরেফিন। ২৪ নভেম্বর, বুধবার রাত ৯ টায় প্রোগ্রামটি আয়োজন করবে সিআরপি। এই ব্যাপারে কথা হয় সিআরপি’র অকুপেশপনাল থেরাপিষ্ট রাজিয়া সুলতানার সাথে। তিনি মনের খবর টিভিকে জানান— এই এওয়ারনেস প্রোগ্রামের মাধ্যমে সিআরপি’র কার্যক্রমসমূহ এবং কিভাবে দেয়, কি কি করে এ বিষয়ে জানাতে চাইছেন তারা। তারা মনে করেন- আমরা মাল্টি ডিসিপ্লিনারী টিম যারা প্রত্যেকেই তাদের স্ব স্ব কাজে অভিজ্ঞ; আমরা যদি একসাথে কাজ করতে পারি। তাহলে রিহ্যাবিলিটেশন ফোকাস বেইসড ট্রিটমেন্ট দেওয়া সহজতর হবে। আর এই পুরো আয়োজনে মিডিয়া পার্টনার থাকছেন মনের খবর পোর্টাল এবং টিভি। মনের খবর টিভির ফেসবুক https://www.facebook.com/monerkhabortv/live/ ও ইউটিউবের https://www.youtube.com/channel/UCXd-n7yDt4q_DB6YzLQZF7A মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে অনুষ্ঠানটি।

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে

“মনের খবর” ম্যাগাজিন পেতে কল করুন ০১৮ ৬৫ ৪৬ ৬৫ ৯৪

 

more

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here