আমার সমস্যা হচ্ছে আমি খুব স্বপ্নবিলাসী

0
44
শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

সমস্যা:
আমি রিংকু, এই বাব় এইসএসসি পরীক্ষা দিয়েছি। উচ্চতর শিক্ষার জন্য কোচিং করছি। আমি ভাল একটা ভার্সিটিতে পড়তে চাই। কিন্তু আমার সমস্যা হচ্ছে আমি খুব স্বপ্নবিলাসী, কোনো একটা বিষয় নিয়ে অনেক চিন্তায় পড়ে যাই। দিবাস্বপ্ন বলতে পারেন। কলেজে পড়ার সময় একটা মেয়েকে খুব ভালো লাগতো, কোনোদিন বলা হয় নাই তাকে। কিন্তু ওকে নিয়ে মাঝে মাঝে অনেক গভীর চিন্তায় মগ্ন হয়ে যাই। খেয়ালগুলো এমন আসে যে আমি ওকে নিয়ে কোথাও ঘুরতে গিয়েছি বা আমরা গল্প করছি কিংবা কিছু একটা নিয়ে কথা বলছি এই সব আমি এই সব থেকে মুক্তি পেতে চাই। বাবা মাব়কমাত্র সন্তান হিসেবে আমাকে নিয়ে তাদের অনেক আশা কিন্তু আমি তার সামান্যই পূরণ করতে পারছি। এই অবস্থা থেকে আমি কীভাবে মুক্তি পেতে পারি?
 
পরামর্শ:
তুমি যে সমস্যা কথা বলেছ এই বয়সের এই সমস্যাকে আমরা সমস্যা না বলে স্বাভাবিক বিষয় বলতে পারি। কারণ এই বয়সে সবকিছুতে কল্পনা প্রবনতাকৌতুহল এই বিষয়গুলো বেশি দেখা যায়। যেহেতু তুমি যাকে পছন্দ করেছিলে তখন তাকে কিছু বলোনি এবং সেই বিষয়ের সমাধান হয়নি যার জন্য বিষয়ের আবেগগুলো তোমার ওভাবেই রয়ে গেছে, সেজন্য তোমার বারবার মনে পড়ছে এবং তুমি এটা নিয়ে কল্পনা করছো। এই বিষয়টি যেহেতু তোমার পড়াশোনায় সমস্যা করছে তাই কল্পনাটি অমূলক ভেবে বাদ না দিয়ে এভাবে কল্পনাটি করতে পার যে আমি পড়াটা আগে শেষ করি তারপর কল্পনাটি করব। আমরা যেটা দেখি যে, যেই বিষয়ে আমরা খুব বেশি বাঁধা দেই সেই বিষয়ের প্রতি আমাদের আকর্ষণ আরো বেড়ে যায় এবং সেটিই আমরা বারবার করতে থাকি। সেজন‌্য কল্পনাটি বাঁধা না দিয়ে তুমি প্রতিদিন একটা টার্গেট রাখতে পার, আজকে আমি এতটুকু পড়ব, এই এই জিনিষগুলো শেষ করব তারপর কল্পনাটি করব। কল্পনাটি করব এই আশাটা থাকলে তোমার মনোযোগটা এসে যাবে।
আর একটা বিষয় হলো- মেয়েটির সাথে যদি তোমার পরিচয় থাকে তবে এই মুহুর্তে সিদ্ধান্ত না নিয়ে এভাবে চিন্তা করতে পার সামনে আমার পরীক্ষা আমি admission test এর জন্য কোচিং করছি এটা আমার জীবনের বড় একটা লক্ষ্য আর admission test এ যদি টিকে যাই ভাল করে পড়ে তাহলে মেয়েটির সাথে আমি যোগাযোগ করব এবং এই বিষয়ে তার সাথে কথা বলবো। যদি তার সম্মতি থাকে এবং তোমার নিজেরও যদি খুব পছন্দ থাকে তাহলে নিজে নিজে কল্পনার চেয়ে action এর দিকে যেতে পার যে এই বিষয়ে আমি যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নিব। আর তুমি যদি লেখাপড়া করে যোগ্যতাসম্পন্ন হও এবং একটা ভাল জায়গায় টিকো তবে তোমার ইচ্ছার মূল্যায়নও অন্যরা করবে বলে আমার বিশ্বাস। এই আশা নিয়ে এবং এটা তুমি কার্যকরী করবে এই চিন্তা করে এটাকে আপাতত সরিয়ে রাখ যে, আমি অমুক সময়ে এটা নিয়ে ভাবব এখন আমি পড়াশোনায় মনোযোগ দিব। এভাবে চেষ্টা করে দেখ আশা করি তোমার সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।
পরামর্শ দিচ্ছেন,
সেলিনা ফাতেমা বিনতে শহিদ


দৃষ্টি আকর্ষণ- মনেরখবর.কম এর প্রশ্ন-উত্তর বিভাগে, মানসিক স্বাস্থ্য, যৌন স্বাস্থ্য, মাদকাসক্তি সহ মন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আপনার কোনো জানার থাকলে বা প্রশ্ন থাকলে বা বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দরকার হলে question@www.monerkhabor.com এই ইমেলের মাধ্যমে প্রশ্ন পাঠাতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here