মানসিক স্বাস্থ্য কী?

মানসিক স্বাস্থ্য কী?

মনের খবর : মানসিক স্বাস্থ্য বলতে সুস্থজ্ঞান সম্পন্ন আচরণগত এবং মানসিক সুস্থতা বোঝায়। লোকেরা কীভাবে চিন্তা করে, অনুভব করে এবং আচরণ করে তা সবই এর অন্তর্ভুক্ত। মানুষ কখনো কখনো ‘মানসিক স্বাস্থ্য’ শব্দটি মানসিক ব্যাধির অনুপস্থিতি বোঝাতে ব্যবহার করে।

মানসিক স্বাস্থ্য হলো সুস্থতার এমন একটি অবস্থা যেখানে একজন ব্যক্তি তার নিজের সক্ষমতা উপলব্ধি করতে পারে, জীবনের স্বাভাবিক চাপ মোকাবিলা করতে পারে, সৃজনশীলভাবে কাজ করতে পারে এবং তার নিজের, পরিবার ও সমাজের জন্য অবদান রাখতে সক্ষম হয়।

দৈনন্দিন জীবনযাপন, সম্পর্ক এবং শারীরিক স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করতে পারে মানসিক স্বাস্থ্য। মানুষের জীবনে বেঁচে থাকার কারণ, আন্তঃব্যক্তিক সংযোগ এবং শারীরিক কারণ সবই মানসিক স্বাস্থ্যের ব্যাঘাত ঘটাতে অবদান রাখতে পারে।

এটাও পড়ুন…
পরিবারে কম সন্তান শিশুর মানসিক সমস্যা তৈরী করে : গবেষণা

মানসিক স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়া একজন ব্যক্তি তার জীবনে উপভোগ করার জন্য অধিক ক্ষমতা সংরক্ষণ করতে পারে। এটি করার সাথে জীবনের ক্রিয়াকলাপ, দায়িত্ব এবং মানসিক স্থিতিস্থাপকতা অর্জনের প্রচেষ্টার মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখা জড়িত।

স্ট্রেস, বিষণ্নতা এবং উদ্বেগের মতো অবস্থা সবই মানসিক স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করতে পারে এবং একজন ব্যক্তির স্বাভাবিক জীবন যাপনকে ব্যাহত করতে পারে।

যদিও মানসিক স্বাস্থ্য শব্দটি সাধারণভাবে ব্যবহার করা হয়, তবে অনেক শর্ত রয়েছে যাকে ডাক্তাররা মনস্তাত্ত্বিক ব্যাধি হিসাবে স্বীকৃতি দেয় এবং যার অনেকগুলোর আবার শারীরিক সংযুক্তি রয়েছে।

এই নিবন্ধে, আমরা ধারাবাহিকভাবে ব্যাখ্যা করবো যে মানসিক স্বাস্থ্য এবং মানসিক অসুস্থতা বলতে কী বোঝায়। আমরা সবচেয়ে কমন ধরণের মানসিক ব্যাধিগুলো নিয়ে আলোচনা করবো। প্রাথমিক লক্ষণগুলি এবং কীভাবে তাদের চিকিত্সা করা যায় সে বিষয়ে জানার চেষ্টা করবো।

আরো পড়ুন…
ওসিডি হলে করণীয় কী? : (চতুর্থ ও শেষ পর্ব)
মানসিক স্বাস্থ্য স্বীকৃতি ও সেবা প্রসারে ডব্লিউএইচও’র ভূমিকা

WHO জোর দেয় যে মানসিক স্বাস্থ্য ‘মানসিক ব্যাধি বা অক্ষমতার অনুপস্থিতির চেয়ে বেশি’। মানসিকভাবে অপ্রকৃতিস্থ বা মানসিক ভারসাম্যহীন তা নয়। স্বাভাবিকভাবে সুস্থ মনে হলেও সত্যিকারার্থে মানসিক স্বাস্থ্য কতটুকু তা নির্ণয় করাই মানসিক সুস্থতা।

মানসিক স্বাস্থ্য শুধুমাত্র মানসিক ভারসাম্যহীনতার সক্রিয় অবস্থা এড়ানো নয় বরং চলমান সুস্থতা এবং স্বাভাবিক জীবন যাপনের দেখাশোনা করা।

মানসিক স্বাস্থ্য সংরক্ষণ এবং পুনরুদ্ধার করা ব্যক্তিগত ভিত্তিতে, সেইসাথে বিশ্বের বিভিন্ন সম্প্রদায় এবং সমাজ জুড়ে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স অন মেন্টাল ইলনেস এর ধারণামতে প্রতি বছর ৫ জনের মধ্য ১ জন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যার সম্মুখীন হয়।

মার্কিন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ মেন্টাল হেলথ (NIMH) এর তথ্য অনুসারে ২০১৭ সালে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আনুমানিক ১১.২ মিলিয়ন প্রাপ্তবয়স্ক, বা প্রায় ৪.৫ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক লোক একটি গুরুতর মানসিক সমস্যায় পড়েছিলো।

পরবর্তী পর্বে জানবো : মানসিক স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারণগুলো কী কী?

সূত্র : medicalnewstoday (US) থেকে অনুবাদ

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে 

“মনের খবর” ম্যাগাজিন পেতে কল করুন ০১৮ ৬৫ ৪৬ ৬৫ ৯৪

/এসএস

শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

No posts to display

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here