আমি লজ্জায় মানুষের সাথে মিশতে পারি না

0
14
শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

সমস্যা : আমি ইশরাত জাহান, বয়স ৩২ বছর। আমাদের বিবাহিত জীবন ১১ বছরের এবং ৫ বছরের একটি ছেলে রয়েছে। বিগত সাত বছর যাবৎ আমি বিদেশে আছি। বিদেশে আসার পর থেকে নানা সমস্যার সম্মুখীন হয়েছি। প্রেগনেন্সির পর থেকে থাইরয়েড সমস্যায় ভুগছি। গত জুলাইয়ে পাশের বাসার এক মহিলার সাথে কথা বলার সময় হঠাৎ করে খেয়াল করলাম যে আমার দৃষ্টি তার শরীরের গোপন অঙ্গগুলোর দিকে চলে যাচ্ছে। এরপর থেকে কোনো মহিলার দিকে তাকালেই আমার এখন এমন হয়। বিব্রত বোধ করি এবং লজ্জায় মানুষের সাথে একদম মেশা বন্ধ করে দিয়েছি। আমি মানসিকভাবে খুব শক্ত মহিলা ছিলাম কিন্তু এখন ভেঙে পড়েছি। এই সমস্যা শুরুর মাসখানেক আগে ছেলেকে গোসল করাতে গিয়ে পিঠে টান লেগেছিল। এক্স-রে রিপোর্ট দেখে ডাক্তার দেখে বলেছিল সার্ভিকাল নার্ভে সমস্যা। এরপর আর ডাক্তার দেখাইনি। খুব অস্বস্তিতে আছি। আমাকে একটু পরামর্শ দিন প্লিজ।

অধ্যাপক ডা. ঝুনু শামসুন্নাহার : আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। যেহেতু আপনার সার্ভিকাল নার্ভে সমস্যা আছে তাই যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা নিতে হবে। আপনার যে সমস্যা হচ্ছে, সেই বিষয়ে পুরোপুরি হিস্ট্রি জানতে হবে। আপনার কেন এ ধরনের সমস্যা হচ্ছে, আপনার কোনো স্ট্রেস আছে কিনা, আপনার স্বামীর অন্য মহিলার শারীরিক সৌন্দর্যের প্রতি আকর্ষণ আছে কিনা, আপনার স্বামী আপনাকে এই বিষয়ে কোনো কথা শুনিয়েছে বা হেয় করেছে কিনা, আপনার পরিবারের অন্য কোনো সদস্য আপনাকে এই বিষয়ে কথা শুনিয়েছে বা হেয় করেছে কিনা, এই বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হবে। যেহেতু আপনি অস্বস্তি বোধ করেন এবং মানুষের সাথে মিশতে পারছেন না, তাই আপনার পুরো হিস্ট্রি জানার পর আপনাকে সাইকোথেরাপির মাধ্যমে এবং প্রয়োজনে ঔষধের মাধ্যমে এই অবস্থা থেকে বের করে আনা সম্ভব।

পরামর্শ দিয়েছেন

অধ্যাপক ডা. ঝুনু শামসুন্নাহার

সাবেক বিভাগীয় প্রধান, মনোরোগবিদ্যা বিভাগ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা।

সূত্রঃ মনের খবর মাসিক ম্যাগাজিন, ৪র্থ বর্ষ, ৯ম সংখ্যায় প্রকাশিত।

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে

“মনের খবর” ম্যাগাজিন পেতে কল করুন ০১৮ ৬৫ ৪৬ ৬৫ ৯৪

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here