মানসিক সুখ ও স্বাস্থ্যের জন্য নির্ধারণ করতে হবে জীবনের লক্ষ্য

0
46
মানসিক সুখ ও স্বাস্থ্যের জন্য নির্ধারণ করতে হবে জীবনের লক্ষ্য
শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

বয়স বাড়ার সাথে সাথে জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণ এবং সেই লক্ষ্য অনুসারে জীবন পরিচালনা করলে শারীরিক ও মানসিক সুস্বাস্থ্য যেমন বজায় থাকে, তেমনি জীবন সাফল্যমণ্ডিত ও সুখের হয়।

সাধারণভাবে বলতে গেলে, লক্ষ্য বা উদ্দেশ্য হল আপনার মধ্যাকার সন্তুষ্টির অনুভূতি যে, আপনার করা কাজগুলো মূল্যবান বা সন্তুষ্টিজনক। অর্থাৎ, যখন আপনার জীবনে লক্ষ্য নির্ধারণ করার মানসিকতা থাকবে, আপনার মনে হবে যে আপনি মানসিক সন্তুষ্টি নিয়ে আপনার নির্ধারিত পথেই এগিয়ে চলেছেন। তাছাড়া, জীবনের লক্ষ্য আপনাকে আপনার জীবনের সমস্ত নিয়ন্ত্রণের অধিকারী করে তুলবে।

জীবনের লক্ষ্য মানে এমন কিছু নয় যা অন্য কারও অনুকরণ করে বা লাভ ক্ষতির হিসাব করে নির্ধারণ করা হয়। এটি নির্ধারণে শধুমাত্র আপনার মানসিক সন্তুষ্টিকেই প্রাধান্য প্রদান করা উচিৎ, যা আপনার সাথে সাথে অন্যান্যদের জন্য হিতকর হবে। গবেষণায় জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণের বহু সংখ্যক শারীরিক ও মানসিক সুবিধার তথ্য উঠে এসেছে। নিচে এ ধরণের কিছু বিষয় উল্লেখ করা হল।

সুখ এবং সন্তুষ্টি

গবেষণায় দেখা গেছে, জীবনের লক্ষ্য অধিকাংশ মানুষের মাঝে মানসিক সন্তুষ্টি তথা ভালো থাকা নিশ্চিত করে। এছাড়াও এই অনুভূতি মানুষের মাঝে অন্যান্য ইতিবাচক মানসিক গুণের বিকাশ ঘটায় যা ব্যক্তিকে বিভিন্ন প্রতিকূল অবস্থায়ও মনোবল অটুট রাখতে সহায়তা করে।

স্বাস্থ্যকর অভ্যাস

যাদের মাঝে জীবনের লক্ষ্য পূরণের মানসিকতা থাকে তারা সাধারণভাবে স্বাস্থ্যকর অভ্যাস গড়ে তুলতে সক্ষম হয়। সম্প্রতি কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, যারা কোভিড-১৯ মোকাবেলায় বদ্ধ পরিকর, তাদের মাঝে প্রতিরক্ষামূলক স্বাস্থ্য সচেতনতা এবং সেই লক্ষ্যে স্বাস্থ্যকর জীবন যাপনে উৎসাহ বেড়েছে।

দৃঢ় ব্যক্তিগত সম্পর্ক

যাদের মাঝে জীবনের লক্ষ্য পূরণে সচেষ্ট থাকার দায়বদ্ধতা থাকে তাদের ব্যক্তিগত সম্পর্ক যেমন জীবন সঙ্গী, বন্ধু বান্ধব, পরিবারে অন্যান্য সদস্য তথা কর্মক্ষেত্র ও সামাজিক জীবনের সাথে যারা জড়িত তাদের সম্পর্ক অনেক মধুর এবং দৃঢ় হয়। গবেষণায় দেখা গেছে, জীবনের লক্ষ্য সম্পন্ন একজন মানুষ অপেক্ষাকৃত কম একাকীত্বে ভোগেন।

সম্পদ

তাছাড়া, জীবনের লক্ষ্য পূরণে সফল একজন ব্যক্তি সম্পদ নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে পারে। আর এটি তাকে ব্যক্তিগত ও সামাজিকভাবে মর্যাদার অধিকারী করে।

সুস্বাস্থ্য

লক্ষ্য পূরণের নিমিত্তে পরিচালিত জীবন ব্যবস্থা শারীরিক ও মানসিকভাবে স্বাস্থ্যকর হয় তথা এসব ব্যক্তি অপেক্ষাকৃত সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হয়।

মানসিক সমস্যা হ্রাস

যারা তাদের জীবনে লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে এবং পূরণের লক্ষ্যে নির্ধারিত পথে অগ্রসর হয়েছেন একাগ্রিত চিত্তে, তাদের মাঝে মানসিক চাপ, বিষণ্ণতা, একাকীত্ব, নিদ্রাহীনতা, হতাশা, মানসিক দুর্বলতাসহ অন্যান্য মানসিক সমস্যা কম হয়।

আপনার জীবনের লক্ষ্যই আপনার মানসিক ও আত্মিক শক্তি। এটি আপনাকে আপনার অস্তিত্ব প্রকাশে সহায়তা করে এবং মানসিক সুখ ও সুস্বাস্থ্যের অধিকারী করে আপনাকে আপনার পরিপূর্ণ রূপ প্রদান করে।

লিংক: https://www.psychologytoday.com/intl/blog/changepower/202108/10-amazing-results-life-purpose

অনুবাদ করেছেন: প্রত্যাশা বিশ্বাস প্রজ্ঞা

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here