মাদকাসক্ত চিনবেন যেভাবে

0
48
মাদকমুক্ত সমাজ গড়তে চাই সচেতনতা
শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

বিশ্বের প্রতিটি দেশেই কমবেশি মাদক সমস্যা বিদ্যমান। সম্প্রতি বাংলাদেশেও মাদক ও মাদকাসক্তি এক ভয়াবহ জাতীয় সমস্যায় পরিণত হয়েছে। আরো দুশ্চিন্তার বিষয় দেশে যারা মাদকসেবী রয়েছেন তাদের সিংহভাগই কিশোর-কিশোরী ও যুবক-যুবতী। যে যুব সমাজের ওপর দেশের শিক্ষা, উৎকর্ষ, সাফল্য ও ভবিষ্যৎ নির্ভরশীল। তাদের উল্লেখযোগ্য একটি অংশ যদি মাদকাসক্তিতে পথভ্রষ্ট হয় তবে সে দেশের ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তিত হওয়ার যথেষ্ট কারণ রয়েছে। তাই এখনই এ ভয়ংকর অভিশাপ থেকে আমাদের যুবকসমাজকে রক্ষা করা অত্যাবশ্যকীয় হয়ে পড়েছে। এখন প্রশ্ন হলো পরিবারের কোন সদস্য মাদকাসক্ত হলে অন্যরা সেটি কীভাবে বুঝবেন? দেশে এ ধরনের সমস্যার চিকিৎসাই বা কী? তাহলে জেনে নেওয়া যাক কী কী লক্ষণ দেখলে সতর্ক হওয়া উচিৎ।

শারীরিক লক্ষণ
খাওয়ার প্রবণতা এবং ঘুমের সময়সীমার পরিবর্তন চলে আসলে।
বেশীরভাগ সময় চোখ লাল হয়ে থাকলে।
শরীরে এমন কোন ক্ষত বা কাটা ছেড়া দেখা গেলে কীভাবে আঘাত পেলো তা আপনাকে বলতে না চাইলে।চেহারায় কালো ছোপ ছোপ দাগ তৈরী হলে।

নাক দিয়ে প্রায়ই রক্ত পড়লে। সাধারণত কোকেইন বা নিঃশ্বাসের সাথে গ্রহণ করতে হয় এমন মাদকের বেলায় এই লক্ষণ দেখা যায় ।

আচরণগত পরিবর্তন

যৌনক্রিয়ায় অনীহা বা ক্ষমতা হ্রাস পেলে।

ক্লাসে বা অফিসে ঘনঘন যেতে না চাওয়া।

কাজে অমনোযোগী হলে, ব্যক্তিগত শখ বা খেলাধুলায় আগ্রহ হারিয়ে ফেললে।

বাসার রাখা টাকার হিসাব না মিললে।

পড়াশোনার নাম করে ঘনঘন টাকা চাওয়ার প্রবণতা বেড়ে গেলে।

একা থাকলে বা প্রাইভেসি সচেতন হয়ে পড়লে।

অকারণে বিরিক্তিবোধ বা অকারণে রেগে গেলে।

অতিরিক্ত মিষ্টি খেতে আরম্ভ করলে।

প্রায়ই কারো না কারো সাথে মারামারি বা ঝগড়া ইত্যাদিতে জড়িয়ে পড়লে।

আপনার পরিবারের কারো মাঝে এ ধরণের শারীরিক ও আচরণগত পরিবর্তনের কয়েকটি লক্ষণ একসাথে থাকলে বুঝে নিবেন সে সম্ভবত একজন মাদকাসক্ত। যেকোনো নেশা থেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা বেশ কষ্টসাধ্য। তবে নেশা থেকে যে মুক্তি পাওয়া যায় না, তা নয়। নেশা থেকে মুক্তির উপায় হচ্ছে- আপনার কঠোর মনোবল ও সিদ্ধান্ত। এছাড়া অবশ্যই নেশাজাতীয় যে কোনো দ্রব্য খাওয়া ত্যাগ করতে হবে। পাশাপাশী প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ও নিয়মতান্ত্রিক জীবনব্যবস্থা কিছু সময়ের ভেতর একজন মাদকাসক্তকে সুস্থ জীবনে ফিরিয়ে আনতে পারে। মাদকাসক্তদের সঠিক চিকিৎসায় আপনি ২৪ঘন্টা বীকন পয়েন্ট লিমিটেড-এর সহায়তা নিতে পারেন। প্রতিষ্ঠানটি দেশের প্রথম আন্তর্জাতিক মানের মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কেন্দ্র। সর্বনাশা নেশার চোরাস্রোতে তলিয়ে যেতে বসা তরুণদের সুস্থ করে আবার প্রাণশক্তি ফিরিয়ে দিতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।
ঠিকানাঃ বাড়ি-০৪, রোড-২৩/এ, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২। মুঠোফোন- ০১৯৮৫৫৫০০৬৮, ০১৯৮৫৫৫০৬৭৮।

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে 

“মনের খবর” ম্যাগাজিন পেতে কল করুন ০১৮ ৬৫ ৪৬ ৬৫ ৯৪
more

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here