ব্যক্তিগত জীবনে উন্নতির কয়েকটি দিক

0
50

লেখাটি মানসিক স্বাস্থ্য এর সাথে সরাসরি যুক্ত না হলেও আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ধীরে ধীরে উন্নতি করার ক্ষেত্রে একটা বড় ভূমিকা রাখতে পারে।

এখানে একটা স্বীকৃত মডেল নিয়ে ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করব। এই মডেলটি ব্যবসা বাণিজ্যে ব্যবহার করা হয়, প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ বাজারে টিকে থাকার জন্য। আমরা ব্যবসার জায়গায় নিজেদের বসালে উপকার পাওয়া যাবে বলে প্রমানিত।

১) Strength বা শক্তি
আমাদের মধ্যে এক এক জন এক একটি কাজ ভালো করতে পারেন বা ভালো দক্ষতা থাকে। আমাদের পারিপার্শ্বিকতার সাপেক্ষে আমাদের সকলেই যদি আমাদের নিজস্ব শক্তি খুজে বের করতে পারি এবং সেটা পরিবেশের সাথে মিলিয়ে সব সময় চর্চা করে উন্নতির চেষ্টা করি এবং করতে পারি তাহলে ব্যক্তি জীবনসহ সামগ্রিক ভাবে জীবনের উন্নয়ন সম্ভব। নিজের ভেতরের শক্তিটাকে চেনা এবং সেটা বুদ্ধিমত্তার সাথে ব্যবহার করা নিশ্চিত করতে পারাই সফলতার একটা ধাপ হিসাবে ধরা হয়। নিজের নিজস্বতার সর্বোত্তম চর্চা ও ব্যবহার নিশ্চিত করতে পারাই আমাদের সবার প্রথম লক্ষ্য হিসাবে ধার্য করা দরকার।

২) Weakness বা দূর্বলতা
আমরা আমাদের শক্তি গুলোকে জানার সাথে সাথে আমাদের দুর্বলতা গুলোকেও জানতে হবে। শক্তিকে যেমন সঠিকভাবে ব্যবহার করা নিশ্চিত করতে হবে, তেমনি প্রতিদিন একটু একটু করে হলেও দুর্বলতা কমানোর চেষ্টা করতে হবে। প্রতিদিনের আমাদের প্রত্যেক কাজে আমাদের শক্তি এবং দুর্বলতা চিন্তা করলে সমাধানের বিকল্প ব্যবস্থা খুঁজে পেতে সহজ হবে।

৩) Opportunity বা সুযোগ
আমাদের যে যেই পরিবেশে থেকে কাজ করি সে পরিবেশেই অনেক সুযোগ থাকে, আসে বা তৈরি হয়। জীবনে সফল হওয়ার জন্য সুযোগের সন্ধান এবং এর সৎব্যবহার নিশ্চিত করা খুবই জরুরি।

৪) Threat বা বাঁধা
আমাদের পরিবেশে কাজ করার জন্য যেমন সুযোগ থাকে তেমনি প্রতি পদে পদে বাঁধা আসে বা আসবে। সফল ভাবে কাজ করার জন্য কি কি বাঁধা আসতে পারে এবং সেটা কিভাবে সমাধান করা যায় তা আগে থেকে অনুমান করা এবং সেটা সমাধানের উপায় সাজিয়ে রাখা জরুরি।

সুতরাং SWOT পর্যালোচনার মাধ্যমে আমরা আমাদের নিজের বিশেষ শক্তিটাকে চিনে সেটা বাড়িয়ে নেওয়া, নিজের দুর্বলতাটাকে আস্তে আস্তে কমিয়ে এনে, উপযুক্ত সুযোগ এর ব্যবহার ও প্রত্যাশিত অপ্রত্যাশিত সব বাঁধার অনুমান ও সেটা সফল ভাবে সমাধান করতে পারলে নিজের ব্যক্তিগত উন্নতি করা সম্ভব বলে লেখক মনে করেন।


প্রকাশিত মতামত লেখকের একান্তই নিজস্ব। মনের খবরের সম্পাদকীয় নীতি বা মতের সঙ্গে লেখকের মতামতের অমিল থাকতেই পারে। তাই মনের খবরে প্রকাশিত কলামের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না কর্তৃপক্ষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here