পরিবারকে অসুখী করে নিজে সুখী থাকতে পারবেন কিনা এটা নিজেকে প্রশ্ন করুন

0
137

সমস্যা:
আমার বয়স ২২ বছর। ছয় মাস পূর্বে আমার বিয়ে হয়। বিয়ের পূর্বে আট বছর আমার একজনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সে আমাকে প্রচন্ড ভালোবাসতো এবং আমিও তাকে ভালোবাসতাম। কিন্তু সমস্যা ছিল আমি মুসলিম আর ছেলেটি হিন্দু। পরিবারের সুখের কথা চিন্তা করে আমি বিয়ের সিদ্ধান্ত নেই। বিয়ের পর আমি আমার স্বামীর সাথে মানিয়ে নিতে চেয়েছিলাম, কিন্তু আমার স্বামী আমাকে সময় দেয় না, সে আমার কোনো অনুভূতি বুঝতে চায় না। সে একজন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার। সে বলে টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারের তোমাকে দেয়ার মতো সময় নেই।
যার কারণে আমি আবার আমার আগের বয়ফ্রেন্ডের সাথে পুনরায় সম্পর্ক গড়ে তুলি এবং তাকে সবকিছু খুলে বলি। সে আমাকে গ্রহণ করে এবং আমাদের আবারো সম্পর্ক গড়ে উঠে। বর্তমানে আমি আমার বয়ফ্রেন্ডের সাথে ভালো আছি, আমার স্বামীর প্রতি আমার কোনো অনুভূতি নেই। এই পরিস্থিতিকে সাধারণত পরকীয়া বলে থাকে, কিন্তু আমার এটা পরকীয়া নয়, আমি মনে করি এটা সত্যিকারের ভালোবাসা। কিভাবে আমি আমার ভালোবাসাকে রক্ষা করতে পারি? অনুগ্রহ করে আমাকে জানান।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক
পরামর্শ:
আপনার অনুভূতিটা বুঝতে পারছি। পরিবারের সুখের কথা চিন্তা করে আপনারা দুজনেই আপনাদের ভালোবাসা বিসর্জন দিয়েছিলেন। এবং আপনি পরিবারের পছন্দমতো অন্য একজনকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। আপনারা দুজন দুজনকে অনেকদিন ধরে ভালোবাসতেন আর আপনার বিয়েটি হয়েছিল আয়োজিত বিয়ে, তাই ভালোবাসা এবং আয়োজিত বিয়ের মধ্যে তুলনা করলে স্বাভাবিকভাবেই সেটি আপনাকে অসন্তুষ্ট করবে। সুতরাং বিয়ের সম্পর্কের সাথে আপনার আগের ভালোবাসার সম্পর্কের তুলনা না করাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। আপনার স্বামী আপনাকে শুধু সময় দিচ্ছে না এই ব্যাপারটি ছাড়া আপনি লক্ষ্য করুন আপনার স্বামী আপনাকে অন্যদিক থেকে খেয়াল রাখছে কিনা, সে আপনার প্রতি দায়িত্বশীল কিনা, আপনাকে সম্মান করে কিনা। যদি এগুলো থেকে থাকে তাহলে আপনি বিষয়টি নিয়ে আবার চিন্তা করুন। এছাড়া আপনার স্বামী যদি আপনাকে সময় নাও দিতে পারে তাহলে নিজে কিভাবে ভালো উপায়ে সময় ব্যয় করা যায় সেই পথটি বেছে নেয়ার চেষ্টা করুন।
আমি বুঝতে পেরেছি আপনি পরিবারকে অনেক গুরুত্ব দেন, তাই আপনি এখন যে কাজটি করছেন সেটি আপনার পরিবার কিভাবে দেখবে, পরিবার অসুখী হবে কিনা, পরবর্তীতে অনেকদিন পর পরিবারকে অসুখী করে নিজে সুখী থাকতে পারবেন কিনা এটা নিজেকে প্রশ্ন করুন এবং আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে সেটি জিজ্ঞাসা করুন তারপর সিদ্ধান্ত নিন।
পরামর্শ দিচ্ছেন,
সেলিনা ফাতেমা বিনতে শহিদ


দৃষ্টি আকর্ষণ- মনেরখবর.কম এর প্রশ্ন-উত্তর বিভাগে, মানসিক স্বাস্থ্য, যৌন স্বাস্থ্য, মাদকাসক্তি সহ মন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আপনার কোনো জানার থাকলে বা প্রশ্ন থাকলে বা বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দরকার হলে question@www.monerkhabor.com এই ইমেলের মাধ্যমে প্রশ্ন পাঠাতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here