দুজনকে এক মত হতেই হবে এমন কোন কথা নেই

0
147
দুজনকে এক মত হতেই হবে এমন কোন কথা নেই

সুসম্পর্ক বজায় রাখতে মতের মিল নয় বরং মনের মিল থাকা প্রয়োজন।

দুজন সঙ্গীর মধ্যে সুসম্পর্ক বজায় রাখার জন্য উভয়কে সর্বদা একমত হতেই হবে এটা জরুরী নয়। জন্মের পর থেকে প্রতিটি মানুষ তার নিজস্ব চিন্তা ভাবনা, বিচার বিবেচনা এবং বিশ্বাস নিয়ে বেড়ে ওঠে। আর সেটিই হয় তার পরিচয়।

যখন কোন কারণে দুজন সঙ্গীর মধ্যে মতভেদ সৃষ্টি হয়, তারা ভাবতে পারে যে তাদের সেই পরিচয় ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে বা সেই যে প্রকৃতপক্ষে সঠিক এই বিশ্বাস থেকে সে তার সঙ্গীকেও সেটি বিশ্বাস করানোর প্রয়াস করে।

অপর দিকে তার সঙ্গীর ক্ষেত্রেও এই এক ঘটনাই ঘটতে পারে। ফলে সমস্যার সমাধান কখনোই আসে না। এতে দুজনের মধ্যে ধীরে ধীরে বৈরিতা বাড়ে এবং সম্পর্কে দূরত্ব তৈরি হয়।

সম্পর্ক দৃঢ় এবং দীর্ঘস্থায়ী করতে হলে দুজনার মধ্যে সৌহার্দ্য, ভালোবাসা এবং সব থেকে জরুরী যে বিষয়টি থাকতে হয় সেটি হল মনস্তাত্ত্বিক বোঝাপড়া। অনেকেই ভাবে যে, দুজনার মধ্যে মতের মিল থাকলেই অর্থাৎ সব সময় একটি বিষয় নিয়ে একই ভাবে ভাবলেই হয়তো সম্পর্ক সুন্দর ও ভালোবাসাপূর্ণ হয়। এই ধারণাটি একেবারেই ভুল।

পৃথিবীর প্রতিটি মানুষ ভিন্ন ভিন্ন বিচার ধারা এবং ব্যক্তিত্বের অধিকারী হয়। তাই সঙ্গীর সাথে শতভাগ বিষয়ে এক মত হবার আশা করা কখনোই উচিৎ নয় এবং এর উপর ভিত্তি করে সম্পর্কের মান যাচাই করা হয় আরও বড় ভুল।

মনস্তত্ত্ববিদগণ বলেন, এক্ষেত্রে আমরা যে বিষয়টির উপর জোর দিতে পারি সেটি হল, মনের মিল বা পারস্পরিক মনস্তাত্ত্বিক বোঝাপড়া। মনস্তাত্ত্বিক বোঝাপড়া হল একে অপরের মানসিক অবস্থা, বিচার বিবেচনা এবং বিশ্বাসকে বোঝা এবং সম্মান করা।

এক্ষেত্রে একে অপরের উপর নিজস্ব ভাব ধারা বা বিশ্বাস চাপিয়ে দেবার কোন সুযোগ নেই। বরং একে অপরের মতকে সম্মান করে এবং মেনে নেওয়ার মধ্য দিয়ে একে অপরের পরিপূরক করে তোলার প্রয়াস করা।

গবেষণায় দেখা গেছে, মতের মিল হচ্ছেনা- এটি প্রায় সব সম্পর্কের বিভিন্ন সমস্যার মূল কারণ। এক জনের সিদ্ধান্ত অপর জনের উপর চাপিয়ে দেওয়া নিয়ে আমরা ঝগড়া করছি, অশান্তি করছি এবং এটিই সম্পর্ককে সুন্দর করে তোলার সাধন মনে করছি। কিন্তু আমরা আবেগকে গুরুত্ব দিচ্ছিনা। মানসিক ও আধ্যাত্মিক সঙ্গতিকে গুরুত্ব দিচ্ছিনা।

আমরা ভুলে জাচ্ছি যে, সঙ্গতি বা মিল আমাদের সিদ্ধান্ত নেবার ক্ষেত্রে নয় বরং একে অপরকে বোঝার ক্ষেত্রে প্রয়োজন। দুজনকে একই মত প্রকাশ করার থেকে একে অপরের বিশ্বাসকে বুঝে চলা বেশী প্রয়োজন। মত বা বিশ্বাসকে চাপিয়ে না দিয়ে বরং একে অপরের সত্যিকে বোঝা ও মেনে নেওয়া বেশী প্রয়োজন।

সম্পর্ক সুন্দর করতে অবশ্যই দুজনার মধ্যে মিল থাকতে হবে। তবে এই মিল সিদ্ধান্ত গ্রহণ নিয়ে নয়, এই মিল তৈরি হয় একে অপরের প্রতি নিবেদিত থাকার মাধ্যমে।

দুজনার মধ্যে এই মিল তৈরি হয় যখন একজন সঙ্গী অপর জনের বিশ্বাসকে তার মতো করে মেনে নেওয়ার মানসিকতা রাখে। এই মিল তৈরি হয় যখন মতের মিল-অমিল কিংবা এর মধ্যে যে কোন ক্ষেত্রে একে অপরের মনকে বোঝার প্রয়াস করে চলা হয়।

তাই মতের মিলকে গুরুত্ব দিয়ে একটি সুন্দর সম্পর্ককে জটিল করার কোন অর্থ নেই। একটি সম্পর্ককে প্রকৃতপক্ষে সুখী ও সুন্দর করতে হলে মনের মিল প্রয়োজন। একে অপরের সিদ্ধান্ত ও বিশ্বাসকে সম্মান এবং বোঝার প্রয়াস করা প্রয়োজন।

লিংক: https://www.psychologytoday.com/intl/blog/inviting-monkey-tea/202109/harmony-in-relationship-does-not-require-agreement

অনুবাদ করেছেন: প্রত্যাশা বিশ্বাস প্রজ্ঞা

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে

শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।
       
 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here