খেলোয়াড় তৈরিতে পরিবারের করনীয় যা

খেলোয়াড় তৈরিতে পরিবারের করনীয় যা

খেলাধুলা শরীরের অবসাদ দূর করে, মন থাকে ফুরফুরে। সুস্থ দেহ ও সতেজ মন ধরে রাখতে খেলাধুলার কোনো বিকল্প নেই। একটা সময় ছিল যখন পরিবার থেকে সন্তানকে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার দিকেই জোর দেয়া হতো কিন্তু খেলোয়াড় হওয়ার প্রতি পরিবারের তেমন কোন আগ্রহ ছিল না বললেই চলে। তবে বর্তমানে অভিভাবকদের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন হয়েছে।

কেউ মনের আনন্দে নিয়মিত খেলতে থাকলে পরবর্তী ধাপ নিয়ে ভাবার দরকার; এক্ষেত্রে পরিবারেরও কিছু করণীয় রয়েছে যাতে সে একজন খেলোয়ার হওয়ার সুযোগ পায়।

যদি দেখা যায় সন্তানের খেলার দিকে আগ্রহ বেশি, তবে অভিভাবকদের প্রথম পদক্ষেপ হবে তার জন্য উপযুক্ত খেলার পরিবেশ তৈরি করে দেয়া যেন সে আনন্দ নিয়ে খেলতে পারে।

পরিবারের সক্রিয় সমর্থন ছাড়া যেকোন কাজ করতে গেলে যথেষ্ট সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। তাই পরিবার থেকে তাকে সবরকমভাবে (আর্থিক, যৌক্তিক এবং মানসিক) সমর্থন দেয়া।

বেশিরভাগ বাচ্চারা অল্প বয়সেই খেলাধুলার প্রতি তাদের ব্যক্তিগত আগ্রহ প্রকাশ করে। এক্ষেত্রে পরিবারের উচিত সে নির্দিষ্ট কোন খেলার প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছে সেদিকে খেয়াল করে তার পছন্দকে অগ্রাধিকার দেয়া।

সন্তানের ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখা স্বাভাবিক, কিন্তু কখনও কখনও বাবা-মা নিজেদের স্বপ্ন পূরণের জন্য সন্তানের উপর জোর চাপিয়ে দেন; এতে হিতের বিপরীত হতে পারে। তাই তার পছন্দতে হস্তক্ষেপ না করে তাকে আশ্বস্ত করা গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি তার ইচ্ছাকে সমর্থন করেন এবং তার জন্য গর্বিত।

সবসময় তাকে পড়াশুনার জন্য চাপ না দিয়ে নিশ্চিত করুন সে খেলার পাশাপাশি পড়াশোনাসহ অন্যান্য কার্যকলাপ এবং পরিবারের সাথে সুস্থ সম্পর্ক বজায় রেখে চলতে পারছে কিনা?

খেলার জন্য শরীর ফিট আছে কিনা সেজন্য শারীরিক স্বাস্থ্যের দিকে নজর দেয়া এবং প্রয়োজনীয় পুষ্টিকর খাবারের যোগান দেয়া।

প্রতিটি খেলাতেই ইনজুরির সম্ভাবনা থাকে। তাই তার নিরাপত্তার বিষয়ে নজর দিয়ে খেলাধুলার কৌশল শিখে, উপযুক্ত নিরাপত্তা সরঞ্জাম পরিধান করে খেলতে উৎসাহিত করা।

জীবনে সবকিছু শিখতে সময় লাগে। খেলার দক্ষতাগুলো পুরোপুরিভাবে শিখতেও সময় লাগতে পারে; তাই শেষ পর্যন্ত সে যেনো প্রতিকূলতার মুখেও ধৈর্য রাখতে শিখে সেজন্য তাকে উৎসাহ দেয়া।

খেলাধুলাতে দক্ষতা সঠিকভাবে সম্পাদন করলে অর্থাৎ ভালো খেললে তার খেলার প্রশংসা করুন তাতে তার খেলার প্রতি উৎসাহ আরো বৃদ্ধি পাবে।

অনুশীলনের মাধ্যমে খেলাতে দক্ষতা বাড়ে; তাই অবশ্যই অনুশীলনের সুযোগ করে দিতে হবে। শুরুতে মৌলিক বিষয়গুলো শেখার জন্য অবশ্যই ভালো কোচ নির্বাচন করতে হবে। মনে রাখা দরকার, একজন ভালো খেলোয়াড় তৈরি করার জন্য অবশ্যই একজন ভালো কোচের প্রয়োজন।

করোনায় স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে

“মনের খবর” ম্যাগাজিন পেতে কল করুন ০১৮ ৬৫ ৪৬ ৬৫ ৯৪

 

No posts to display

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here