আদর্শ সম্পর্কের কিছু বৈশিষ্ট্য

0
82
আদর্শ সম্পর্কের কিছু বৈশিষ্ট্য
শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

যে সম্পর্কে সঙ্গীদের মাঝে স্বাস্থ্যকর সম্পর্ক বজায় থাকে, অর্থাৎ দুজনার মাঝে উত্তম মানসিক বোঝাপড়া এবং একে অপরের প্রতি আস্থা ও বিশ্বাস বজায় থাকে সে সম্পর্ককেই আদর্শ সম্পর্ক বলা যায়।

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে যে, সুস্থ ও সুন্দর সম্পর্কের কেন্দ্রে কিছু সাধারণ বৈশিষ্ট্য রয়েছে যেগুলো দেখে সহজেই এটি অনুমান করা যায় যে এই সম্পর্কটি একটি আদর্শ সম্পর্ক। নিচে এরকমই কিছু বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করা হল-

একে অপরের সাথে স্পষ্ট কথা বলার অভ্যাস

সে সব সম্পর্ক দৃঢ় ও অধিক মজবুত হয় যারা নিজেদের সাথে অধিক সময় সামনা সামনি কথা বলে এবং একে অপরের কাছে কোন বিষয় লুকিয়ে রাখে না। সাধারণত দেখা যায়, কর্মব্যস্ত জীবনে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দম্পতীরা একে অপরের সাথে সরাসরি সান্নিধ্যে থাকে না। এসব সম্পর্কে অনেক বেশী ভুল বোঝাবুঝি এবং মানসিক দূরত্ব সৃষ্টি হয়। ফলে সম্পর্ক সুন্দর এবং আদর্শ হয় না।

মতবিরোধ সত্ত্বেও সম্মিলিত প্রয়াসে সমস্যা সমাধান করা

আপনারা কি একমত না হওয়া স্বত্বেও একে অপরের মনোভাব এবং সিদ্ধান্তকে সম্মান করতে পারেন? আর একে অপরের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে এমন অবস্থাতেও সিদ্ধান্তে পৌঁছতে পারেন? যদি এমন হয়, তাহলে বলা যেতে পারে আপনাদের সম্পর্কে উৎকৃষ্ট মনস্তাত্ত্বিক বোঝাপড়া রয়েছে এবং এই সম্পর্কটি একটি আদর্শ সম্পর্ক।

আর যদি এমনটা না হয় তাহলে আপনাদের সম্পর্কে আরও বেশি মানসিক বোঝাপড়ার এবং সম্মান জনক দৃষ্টিভঙ্গি ধারণের প্রয়োজন রয়েছে।

একে অপরের দোষের থেকে গুণকে বেশী গুরুত্ব প্রদান করা

দুজন পৃথক অস্তিত্ব সম্পন্ন মানুষের বিচার ধারা, মনোভাব এবং গুণাবলী পৃথক পৃথক হওয়াই স্বাভাবিক। সব সময় এটা জরুরী নয় যে দুজন দুজনের সব কিছু পছন্দ করবে। কিন্তু এই ভিন্নতা যদি সম্পর্কে প্রভাব বিস্তার করে অর্থাৎ ভালোলাগাকে গুরুত্ব না দিয়ে খারাপ লাগা গুলোকে বেশী গুরুত্ব প্রদান করা হয় তাহলে সম্পর্ক কখনোই সুখের এবং দীর্ঘস্থায়ী হয় না। এমন সম্পর্ক কখনোই আদর্শ সম্পর্ক হতে পারেনা।

একে অপরের উপর প্রভাব বিস্তারের প্রচেষ্টা না করা

সম্পর্কে দুজন মানুষ জুড়ে থাকলেও একে অপরের স্বাধীন সত্ত্বাকে হারিয়ে কখনোই সুন্দর সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারে না। এক্ষেত্রে যদি একে অপরের ইচ্ছা, মনোভাবকে গুরুত্ব না দিয়ে একে অপরের উপর নিজস্ব ইচ্ছা, মনোভাবকে চাপিয়ে দেওয়ার প্রয়াস করা হয় তাহলে সম্পর্কের মান নষ্ট হয় এবং পর্যাপ্ত স্বাধীনতা না থাকায় সম্পর্ক আদর্শ সম্পর্ক হয়ে উঠতে পারেনা।

উপরের এই গুণাবলী গুলো পর্যবেক্ষণ করলে সহজেই এটা অনুমান করা যায় যে কোন সম্পর্কটি বাস্তবিক অর্থেই সুস্থ, সুন্দর এবং আদর্শ।

https://www.psychologytoday.com/intl/blog/relationship-boot-camp/202106/5-signs-youre-in-good-relationship

অনুবাদ করেছেন প্রত্তয় বিশ্বাস

more

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here