আত্মহত্যা প্রতিরোধে যা করণীয়

0
64
আত্মহত্যা

বর্তমানে বাংলাদেশের একটি ভয়াবহ সমস্যা আত্মহত্যা। অনেকেই সচেতনতা বা সঠিক পরামর্শের অভাবে আত্মহত্যা করেন। ব্যক্তিগত হতাশা বা অপমান থেকে তারা এমন সিদ্ধান্ত নেন। তাই আত্মহত্যা প্রতিরোধে আত্মমর্যাদাই আসলে মুখ্য। আসুন জেনে নেই কিভাবে আত্মহত্যা প্রতিরোধ করা যেতে পারে-

পরিবারিক ও সামাজিক বন্ধন: পরিবারিক ও সামাজিক বন্ধন সমাজ ও পরিবারের প্রতি দায়িত্ববোধ তৈরি করে, যা মানুষকে আত্মহত্যা থেকে দূরে রাখে।

ধর্মীয় অনুশাসন: সব ধর্মই আত্মহত্যাকে নিরুৎসাহিত করে। তাই ধর্মীয় অনুশাসনের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ আত্মহত্যার মনোভাব থেকে দূরে রাখে।

সন্তানের প্রতি ভালোবাসা: নিজের সন্তানদের প্রতি প্রবল ভালোবাসা ও দায়িত্ববোধ থাকলে তা বেঁচে থাকার অনুপ্রেরণা জোগায়।

নেতিবাচক মনোভাব: আত্মহত্যার নেতিবাচক দিকগুলো সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা এবং দৃঢ় বিশ্বাস মানুষকে আত্মহত্যা থেকে দূরে রাখে।

প্রিয়জনের সান্নিধ্য: প্রিয়জনের সান্নিধ্য মানুষকে একাকিত্ববোধ থেকে দূরে সরিয়ে রাখে, যা আত্মহত্যার ঝুঁকি হ্রাস করে।

মানসিক দৃঢ়তা: সমস্যা মোকাবেলা করে ঘুরে দাঁড়ানোর মানসিক দৃঢ়তা মানুষকে আত্মহত্যার ভাবনা থেকে দূরে রাখে।

সরঞ্জাম সহজে না পাওয়া: আত্মহত্যার সরঞ্জাম দুষ্প্রাপ্য হলে আত্মহত্যার ঝুঁকি কমে যায়।

মানসিক ও শারীরিক সুস্বাস্থ্য: মানসিক ও শারীরিক সুস্বাস্থ্য আত্মহত্যার ঝুঁকি অনেকটাই কমিয়ে দেয়।

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে 

“মনের খবর” ম্যাগাজিন পেতে কল করুন ০১৮ ৬৫ ৪৬ ৬৫ ৯৪

 

 

শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।
       
 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here