অস্বাভাবিক আচরণ ২য় পর্ব: অস্বাভাবিক আচরণের কারণ কি?

1
159

মানসিক রোগীদের সঙ্গে কাজ করতে গিয়ে প্রায়শ শুনতে হয়, “আমার আচরণে কোনো অসুবিধা নাই, যারা আমাকে ভর্তি করেছে তাদের অসুবিধা।“ স্বাভাবিকভাবেও আমরা অনেকে অনেক সময় ভাবি আমার এই কাজটা করা কি অস্বাভাবিক হল? মনোরোগবিদ্যা ও মনোবিজ্ঞানে অস্বাভাবিক আচরণের কারণ খোঁজার চেষ্টা করা হয়েছে।

Medical perspective:
আমাদের শরীরে যে স্বাভাবিক সমন্বয় আছে, তার বিঘ্ন ঘটলে আচরণের অস্বাভাবিকতা ঘটতে পারে। যেমনঃ আমাদের মস্তিষ্কে ডোপামিনের পরিমাণ বেড়ে গেলে বড় ধরনের মানসিক রোগ দেখা যায় ও আচরণের চরম অস্বাভাবিকতা দেখা দেয়।

Psychoanalytic perspective:
অনেকে আবার মনে করেন অস্বাভাবিক আচরণের জন্য আমাদের ব্যক্তিগত জীবনে প্রাপ্ত আঘাত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তাদের মতে ছোটবেলায় আমরা যদি কোনো আঘাত পেয়ে থাকি, তাহলে সেটা আমাদের অবচেতন মনে স্থান করে নেয় এবং আমাদের আচরণ তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

Behavioral perspective:
অনেকে মনে করেন অস্বাভাবিক আচরণ আমাদের চারপাশের প্রতিক্রিয়ার ওপর নির্ভর করে। এটা Behavioral লারনিং থিওরি মেনে চলে। কোনো কাজ বার বার প্রশংসিত হতে থাকলে সেটা বার বার করা হয় ও অভ্যাসে পরিনত হয়, সেটা হোক স্বাভাবিক হোক অস্বাভাবিক। এভাবেই অস্বাভাবিক আচরণ গঠিত হতে পারে। বিপরীতভাবে আবার কোনো কাজকে যদি নিরুৎসাহিত করা হয় যথাযতভাবে তাহলে ওই আচরণ কমে যায়।

Cognitive perspective:
অনেকের মতে আচরণ নির্ভর করে একদম ব্যক্তিটির নিজস্বতার ওপর। যেমনঃ তার বুদ্ধি, পূর্ববর্তী অভিজ্ঞতা, ওই সময়ের পরিবেশ ইত্যাদি সার্বিক বিষয়ের ওপর। একই প্রশ্নের একই উত্তর এক এক জন ছাত্র এক এক ভাবে লিখে।

Humanistic perspective:
অনেকে মনে করেন  আচরণ নির্ভর মানুষের মানবিক গুণাবলির উচ্চতম পর্যায়ে আসীন হওয়ার জন্য। আচরণ বিজ্ঞানী আব্রাহাম মাসলো এই নীতির প্রবর্তক। তার মতে মানুষ সেলফ আকচুয়ালাইযেসান পর্যায়ে আসীন হওয়ার চেষ্টায় প্রতিদিনের আচার আচরণ সমন্বয় করে।

Sociocultural perspective:
একদল সমাজ বিজ্ঞনী মনে করেন মানুষের আচরণ তার বসবাসরত সমাজ দ্বারা অনেকাংশে নিয়ন্ত্রিত হয়। আমরা হয়ত চোখ বন্ধ করে একটু চিন্তা করলেই এর বহু প্রমাণ দৃশ্যমান পাব।

অনেকে অনেকভাবে আচরণ ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করেছেন। একটা জিনিস আমি মনে ভাসিয়ে তুলতে চাই যে, আমরা মানুষ হিসাবে আমাদের সবকিছু নিয়েই আমাদের মনের চিন্তা চেতনা, আচরণ, ব্যবহার, কাজকর্ম প্রতিফলিত হয়। সামগ্রিকভাবে যদি আমরা দেখার চেষ্টা করি তাহলে হয়ত একটু ভালোভাবে দেখা যাবে।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here