বলিউড তারকা অক্ষয় কুমারের ফিটনেসের গোপন রহস্য

0
68
অক্ষয় কুমার

বলিউড তারকা অক্ষয় কুমার শুধু অভিনয়ই নয়, ফিটনেসের দিক থেকেও দারুণ জনপ্রিয় তাঁর ভক্তদের কাছে। ৫৪ বছর বয়সে এসেও কীভাবে ধরে রেখেছেন তাঁর এই শরীরের গঠন— এ নিয়ে তরুণদের আগ্রহের শেষ নেই। জানা গেছে অক্ষয় কুমারের ফিটনেসের গোপন রহস্য।

৩০ বছর ধরে অক্ষয় রাত আটটায় ঘুমান, ভোর চারটায় ঘুম থেকে ওঠেন। সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যেই রাতের খাবার খান। এরপর ভারী কিছু খান না। সকালে উঠেই ব্যায়াম করেন। পার্কার, ওয়েট লিফটিং, কিক বক্সিং, ইয়োগা ও সাঁতার কাটা—এগুলো অক্ষয় নিয়ম মেনে প্রতিদিন করেন। সবচেয়ে কম সময়ে সিনেমার শুটিং শেষ করার ব্যাপারেও নামডাক আছে তাঁর। এ জন্য বছরে তিনি চারটি সিনেমায় অভিনয় করতে পারেন। আর বিজ্ঞাপন, বিভিন্ন শো, এনডোর্সমেন্ট—এগুলো তো আছেই।

এই বলিউড তারকার ফিটনেসের গোপন রহস্যের অন্যতম দিক হলো তাঁর খাবার। প্রতিদিন কী খান অক্ষয়, যা তাঁকে রেখেছে তরুণ। আর সেই টোটকা জানতে ভক্তদের চেষ্টার কমতি নেই। কিছুদিন আগেই অক্ষয়ের শেফ প্রকাশ্যে আনলেন বছরের পর বছর কোন খাবারগুলো তাঁর ডায়েটে রেখেছেন অক্ষয়। একনজরে দেখে নেওয়া যাক সেই খাবারগুলো কী।

অক্ষয় পুরোপুরি ভেগান নন। মাঝেমধ্যে মাছ, মাংসও খান। তবে ডায়েট অনুসরণ করতেই বেশি পছন্দ করেন তিনি। পাশাপাশি ঘরে তৈরি খাবার খেতে ভালোবাসেন। শুটিংয়ে ডিব্বা নিয়ে যান। সেই ডিব্বা থেকে বের হয় ঘরে বানানো স্বাস্থ্যকর সব খাবার।

চিনি, ভাজাপোড়া, পেঁয়াজ, রসুন ও বেশি ঝালযুক্ত খাবার খান না তিনি। তেল খুবই কম খান। তাঁর খাদ্যতালিকায় থাকে শাকসবজি, বাদাম, বিভিন্ন বীজ ও শক্তিশালী সব ভেষজ উপাদান। সিনেমার প্রচারণায় যতবার কপিল শর্মা শোতে গিয়েছেন, পায়ের ওপর পা তুলে দিয়ে দিব্যি একটার পর একটা কলা খেয়েছেন। নিয়ম করে দেশি, মৌসুমি ফল খান অক্ষয় কুমার।

সকালের ব্যায়ামের পর নাস্তায় চিড়া খান। তবে বাড়তি শক্তির জন্য এতে থাকে বেরি ও অ্যাভোকাডো এ ছাড়াও চিড়ার সঙ্গে খান বাদাম। মাঝেমধ্যে কলা আর আমও থাকে।

অনেক কম ভক্তই জানেন অক্ষয় দুপুরের খাবারে ভেগান ডায়েট অনুসরণ করেন। মেইন কোর্সের জন্য তিনি পছন্দ করেন পামকিন থাই টফু কারি। দুপুরে তিনি সব সময়েই ভাত খান। আর এর সঙ্গে রাখেন সতে সবজি। যদিও তিনি পাঞ্জাবি। তবে স্বাস্থ্যকর জীবনকে প্রাধান্য দিয়ে রাজমা, ছোলা বাটোরার মতো জনপ্রিয় মশলাদার পাঞ্জাবি খাবারকে তিনি বাদ দিয়েছেন খাবারের তালিকা থেকে।

মিষ্টি খাবারে খুব বেশি আসক্ত নন অক্ষয়। কিন্তু মাঝে মাঝে ডায়েটে পরিবর্তন আনতে ডেজার্ট খেতে পছন্দ করেন। সে ক্ষেত্রে বাদাম ও ব্লু বেরি দেওয়া বিস্কুট রাখেন ডায়েটে। এতে পাওয়া যায় পুষ্টি। কিন্তু থাকে না কোনো ধরনের ফ্যাট।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে 

“মনের খবর” ম্যাগাজিন পেতে কল করুন ০১৮ ৬৫ ৪৬ ৬৫ ৯৪
শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।
       
 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here