কোনো কিছুতে মনোযোগ দিতে গেলে অস্থির হয়ে পড়ি

শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

সমস্যা:
স্যার আমার বয়স ২৫। আমি গত বছরের জুন মাসে ব্যাক পেইনের জন্য ফিজিক্যাল মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক মোজাফফর স্যারের পরামর্শ নিয়ে পেইন কিলার সেবন করছিলাম (টি আর ডি কন্টিন ১০০ এমজি, বেক্লো ১০ এমজি এই জাতীয় ওষুধ)। এক সপ্তাহ সেবন করার পরই আমি হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়ি। বুকে চাপ দিয়ে থাকা, বুক ধরফড়, মাথার মধ্যে চক্কর দিয়ে সারা শরীর অস্থির হয়ে যায়। হাত, পা, পেট অবশ হয়ে আসে। ওই সময়ই আবার ডাক্তারের কাছে গেলে বলে কোনো সমস্যা নাই ঠিকই আছে। পরে পিজিতে গ্যাস্ট্রোএন্ট্রালজিতে গেলে সফিউল্লাহ স্যার কিছু টেস্ট দেয়। রিপোর্টে কিছু আসে নাই, তাই তিনি আমাকে ছেড়ে দেন। কিন্তু আমার সমস্যা যায় নাই। তারপর অনেক ডাক্তার দেখিয়েছি কিন্তু পুরোপুরি সুস্থ হচ্ছি না। সবাই রিলাকজন জাতীয় ওষুধ দেয়। এখন আমার মুল সমস্যা হলো আমার মনোযোগের অভাব। কোনো কিছুতে মনোযোগ দিতে গেলে অস্থির হয়ে পড়ি। বুঝতে সমস্যা হয়। মাথাটা চেপে থাকে। মাঝে মাঝে প্রচুর গ্যাস হয়, আর হাত, পা, পেট ঠান্ডা হয়ে আসে। মাঝে মাঝে কোথায় যেন হারিয়ে যাই। এখন আমি পিজির সাইক্রিয়াটি চিকিৎসক ডাক্তার আতিক সাহেবের পরামর্শে চলছি। তিনি বলছেন আমার মুল সমস্যা এনজাইটি। সকালে নেক্সসিটাল ১০ এমজি ২টা করে সাথে বিলোফোর্ট সেবন করছি। তবুও পুরাপুরি সুস্থ হচ্ছি না। দয়া করে পরামর্শ দিলে খুবই ভাল লাগবে।

পরামর্শ:
আপনার বর্তমান চিকিৎসা ঠিকই আছে। সময় কিছুটা লাগলেও এ চিকিৎসাই আপনাকে চালিয়ে যেতে অনুরোধ করবো। আপনি সম্ভবত, ‘জেনারালাইজড এনজাইটি ডিজঅর্ডারে’ ভুগছেন। এটি একটি মানসিক রোগ। যে রোগের অনেক লক্ষনের ভেতর যে লক্ষনটি বা সমস্যাটি বেশী দেখা যায় সেটি হচ্ছে- মনের ভেতর সবসময় (বেশীরভাগ সময়) অস্থিরতা অনুভব করা। কোনো কারণ ছাড়াই মনে হয় কোথাও কিছু ঘটছে, কি যেন হচ্ছে। এই অস্থিরতার কারণেই অনেক সময় আশেপাশের বিষয়গুলোতে ঠিকমতো মনোযোগ দেয়া যায় না, মনোযোগ ধরে রাখা যায় না। সে বিষয়টি আপনার ক্ষেত্রে হচ্ছে বলে মনে হয়। সে কারণেই হঠাৎ হঠাৎ মনে হয়, কোথায় যেন হারিযে যান।

আপনি লিখেছেন, অনেক ডাক্তার দেখিয়েছেন এবং অনেক পরীক্ষা করিয়েছেন। কি কি পরীক্ষা করিয়েছেন আপনার প্রশ্নের মাধ্যমে সেটি বোঝা গেলো না। তবে, যদি আপনার ক্ষেত্রে থাইরয়েড ফাংশন টেস্ট (T3,T4, TSH) না করিয়ে থাকেন, তবে সেটি করিয়ে নিবেন। কারণ, অনেক সময় থাইরয়েড হরমোনের সমস্যার কারণেও এমন সমস্যা হতে পারে। যদি করিয়ে থাকেন, তবে ডাক্তার সাহেবের সাথে কথা বলে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে নিবেন।

আপনার ওষুধও ঠিক আছে। সাথে আর একটি ওষুধ, যোগ করতে পারেন- ইনডেভার ১০মিগ্রা:। সকালে ও রাতে একটা করে খেতে পারেন। আর একটা বিষয় বলে রাখা জরুরি, আপনার সমস্যাগুলি কি কোনো কারণে বা কোনো ঘটনার পর থেকে, কিংবা কোনো বিষয়ের সাথে সরাসরি জড়িত কিনা সেটিও জানা দরকার। যদি এসবের পেছনে কোনো ঘটনা বা সরাসরি কোনো কারণ থেকে থাকে, তবে ডাক্তারের সাথে আলাপ করে বিষয়গুলি সমাধানের চেষ্টা করবেন।

ধারনা করি, আপনি সঠিক চিকিৎসাই নিচ্ছেন। ভবিষ্যতে সুযোগ হলে, আপনি কেমন আছেন তা আমাদেরকে জানাবেন। আপনার দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।

পরামর্শ দিচ্ছেন,
ডা. সালাহ্উদ্দিন কাউসার বিপ্লব


দৃষ্টি আকর্ষণ- মনেরখবর.কম এর প্রশ্ন-উত্তর বিভাগে, মানসিক স্বাস্থ্য, যৌন স্বাস্থ্য, মাদকাসক্তি সহ মন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আপনার কোনো জানার থাকলে বা প্রশ্ন থাকলে বা বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দরকার হলে question@www.monerkhabor.com এই ইমেলের মাধ্যমে প্রশ্ন পাঠাতে পারেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here