অনেক চেষ্টা করি রাগ নিয়ন্ত্রণ করার কিন্তু পারি না

0
37

সমস্যা:
আমার নাম লিজা। বয়স ১৯ বছর। আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ২য় বর্ষের ছাত্রী। আমার সমস্যা হলো আমি অল্পতেই খুব রেগে যাই। যখন রেগে যাই তখন কোনো হিতাহিত জ্ঞান থাকে না। যা ইচ্ছা তাই করি, হাতের কাছে যা পাই সেটাই ছুঁড়ে মারি, মুখ দিয়ে যা আসে তাই বলি, জিনিষপত্র ভাংচুর করি। পরবর্তীতে রাগ কমে গেলে আমার খুব অনুশোচনা হয়। আমি মা-বাবার একমাত্র সন্তান, তারা আমার কোনো অভাব রাখেনি। আমার পারিবারিক, অর্থনৈতিক বা অন্য কোনো সমস্যা নেই। আমার এই অতিরিক্ত রাগের কারণে সবাই আমাকে ভুল বুঝে। আগে আমি এতটা রাগী ছিলাম না। অনেক চেষ্টা করি রাগ নিয়ন্ত্রণ করার কিন্তু পারি না। রাগ কমানোর জন্য আমার এখন কি করা উচিত? আমি কি মানসিক রোগের ডাক্তার দেখাবো নাকি কাউন্সেলিং করাবো? কিভাবে আমি রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে পারব জানালে উপকৃত হব।
 
পরামর্শ:
ধন্যবাদ আপনার প্রশ্নের জন্য। রাগ বিভিন্ন কারণে হতে পারে। অনেক সময় মানসিক চাপ ঠিকমতো ম্যানেজ করতে না পারলে রাগ হতে পারে। আবার মানসিক চাপ বা মানসিক কোনো রোগের কারণে, যেমন- উদ্বেগজনিত রোগ বা বিষণ্নতা থাকলেও মানুষ রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। প্রথমতঃ জানতে হবে আপনার মধ্যে কোনো ধরনের চাপ যেমন- পারিবারিক, পড়াশুনার চাপ বা ব্যক্তিগত কোনো চাপ আছে কিনা?
আপনার প্রতি পরামর্শ হলো, যখনই আপনি রেগে যাবেন যে জায়গাটাতে রেগে যাবেন বা যে বিষয়টিতে রেগে যাবেন দ্রুত সে জায়গা ত্যাগ করবেন বা সে বিষয়টি এড়িয়ে যাবেন। রেগে গেলে সাথে সাথে প্রতিক্রিয়া প্রকাশ থেকে বিরত থাকবেন।
আপনি এক ঘন্টা/আধা ঘন্টা সময় নিবেন এবং সে সময়টাতে মনোযোগ অন্যদিকে সরিয়ে নেয়ার চেষ্টা করবেন। এসময় আপনি গুনগুন করে গান গাইতে পারেন বা শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম করতে পারেন। অর্থাৎ ধীরে ধীরে লম্বা করে পেটে শ্বাস নিয়ে আস্তে আস্তে শ্বাস ছেড়ে দেয়া; এভাবে ১০/১২ বার করতে পারেন। দেখবেন শরীরটা ধীরে ধীরে শিথিল হয়ে আসছে এবং রাগটা কমে আসছে।
পরবর্তীতে আপনার রাগ কমে গেলে আপনি যে বিষয়ে বা যার প্রতি রেগে গিয়েছিলেন সেটা নিয়ে ঠান্ডা মাথায় আলোচনা করতে পারেন। খেয়াল রাখবেন, আপনার কথাগুলো বলার সময় কোনোভাবেই যেন অন্যের মনে আঘাত না লাগে এবং আপনার মূল বক্তব্য যেন ঠিক ভাবে পৌঁছায়।
এছাড়া আপনি নিয়মিত ব্যায়াম করতে পারেন। কারণ যেকোনো ব্যায়াম শরীর ও মন দুটোই ভালো রাখে। নিয়মিত ব্যায়ামের ফলে শরীর ও মন দুটিই রিলাক্সড থাকবে।
আপাততঃ আপনি একজন মনোরোগ বিশেষজ্ঞকে দেখাতে পারেন। তিনি বলতে পারবেন আপনার রাগের পেছনে অন্য কোনো কারণ রয়েছে কিনা। অনেক সময় অ্যাংজাইটির কারণে মানুষ রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে সাময়িকভাবে কিছু ঔষুধের মাধ্যমে তার অ্যাংজাইটি কমিয়ে আনা হয়। এতে রাগ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। এছাড়া আপনার কাউন্সেলিং-এর প্রয়োজন হলে মনোরোগ বিশেষজ্ঞই সেটা করবেন অথবা আপনি ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্টের কাছেও কাউন্সেলিং করতে পারেন।
পরামর্শ দিচ্ছেন,
ডা. মেখলা সরকার


দৃষ্টি আকর্ষণ- মনেরখবর.কম এর প্রশ্ন-উত্তর বিভাগে, মানসিক স্বাস্থ্য, যৌন স্বাস্থ্য, মাদকাসক্তি সহ মন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আপনার কোনো জানার থাকলে বা প্রশ্ন থাকলে বা বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দরকার হলে question@www.monerkhabor.com এই ইমেলের মাধ্যমে প্রশ্ন পাঠাতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here