বিয়ের প্রস্তাব নাকচ হচ্ছে? শুধরে নিন কিছু সাধারণ ভুল

0
66
বিয়ের প্রস্তাব নাকচ হচ্ছে? শুধরে নিন কিছু সাধারণ ভুল
শেয়ার করুন, সাথে থাকুন। সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে।

অনেকেই নিজের মনের কথাগুলো সঠিকভাবে সাজিয়ে গুছিয়ে বলে উঠতে পারেন না। ফলে মনের মানুষটির কাছে হয়তো বার বার বিয়ের প্রস্তাব দিয়েও ব্যর্থ মনোরথ হয়েই ফিরতে হয়। এরকম কিছু সমস্যা সমাধানে কি কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা যায় সেটি নিয়েই আজকের আলোচনা।

অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় আকস্মিক বৈবাহিক সম্পর্কের প্রস্তাবে নারীরা অপ্রস্তুত হয়ে পড়ে। আবার অনেকের সামনে অর্থাৎ পাবলিক প্লেসে যদি বিয়ের প্রস্তাব দেওয়া হয়, তাহলেও অনেক মানুষের অতি উৎসাহের কেন্দ্র বিন্দু হয়ে ওঠে। আর এসব ক্ষেত্রে অধিকাংশ নারী অস্বাচ্ছন্দ বোধ করতে পারে।

গবেষণায় এমন অনেক কারণই উঠে এসেছে, যা হয়তো আপনার সাথেই মিলে যাবে। হয়তো ঠিক এ কারণেই আপনার মনের কথাটি আপনার পছন্দের মানুষ বার বার প্রত্যাখ্যান করছে বা ঠিক যেভাবে আপনি চাইছেন সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি সেরকম হয়ে উঠছে না।

আসুন কিছু এমন ভুল ভ্রান্তির বিষয়ে জানা যাক, যেগুলোর কারণে হয়তো আপনি বিফল হচ্ছেন বার বার। আর এই সমস্যা সমাধানে কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা যায় সেটিও জানার প্রয়াস করা যাক। যেন আপনি পরবর্তী বার অবশ্যই সফল মনোরথ হতে পারেন।

বিয়ের প্রস্তাব জনসমক্ষে হলে

যখন একজন পুরুষ অনেকের সামনে বিয়ের প্রস্তাব দেয়, তখন তার বিবাহ প্রস্তাবটি প্রত্যাখ্যাত হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে। এ কারণে যদি আপনি আপনার মনের কথা একান্তে খুলে বলেন, তাহলে আপনার মনের মানুষটি শান্ত মস্তিষ্কে এবং পারিপার্শ্বিক কোন বিষয়ের ফলে উৎপন্ন মানসিক চাপ ছাড়া আপনার কথা শুনবে, অনুভব করবে এবং পরিশেষে হয়তো স্বীকার করে নেবে।

আকস্মিক বিয়ের প্রস্তাব দেওয়া হলে

যদি এমন হয় যে, দীর্ঘদিন পরিচিত হলেও কোন রকম আলাপ আলচনা বা সংকেত ছাড়াই আকস্মিক কাউকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়া হয়, তাহলে সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যাত হতে পারে। এ কারণে ঘনিষ্ঠ বা ঘনিষ্ঠ নয়, এমন যে কাউকে একেবারে আকস্মিক ভাবে বিয়ের প্রস্তাব প্রদান না করে, তাকে মানসিক ভাবে প্রস্তুতি নেওয়ার সুযোগ প্রদান করে তবেই বিয়ের প্রস্তাব প্রদান করুন।

খুব বেশি ঘনিষ্ঠ নয় এমন কাউকে বিয়ের প্রস্তাব প্রদান করা হলে

এমন কাউকে যদি বিয়ের প্রস্তাব প্রদান করা হয়, যিনি হয়তো প্রস্তাব প্রদানকারীর সাথে খুব ঘনিষ্ঠ নয় বা মানসিক বোঝাপড়া অতটা ভালো নয়, সেক্ষেত্রেও বিয়ের প্রস্তাবটি প্রত্যাখ্যাত হতে পারে। বৈবাহিক বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার জন্য দুজন মানুষের একে অপরকে ভালোভাবে জানা অত্যন্ত আবশ্যক।

তাই কাউকে বিবাহের প্রস্তাব দেওয়ার পূর্বে আপনার সম্বন্ধে তার মনে একটি স্পষ্ট ধারণা তৈরি করুন, তারপর প্রস্তাব প্রদান করুন। তাহলেই আপনার মনের আশাটি পূর্ণ হবে।

গবেষণায় দেখা গেছে, বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যাত হলে নারী পুরুষ উভয়ের মনেই ভীষণ পীড়া এবং বিষণ্ণতার সৃষ্টি হয়। উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো খেয়াল রাখলে প্রত্যাশা করা যায় উত্তম মানসিক বোঝাপড়া সৃষ্টি হওয়ার ফলে বিয়ের মত স্পর্শকাতর ও আবেগ ঘন বিষয়ে আপনি অবশ্যই সফলতা পাবেন।

তাই বিষণ্ণতা বা মানসিক পীড়ায় দিন যাপন না করে সঠিক ভাবে মনের কথাটি আপনার মনের মানুষকে খুলে বলুন এবং তার স্বীকৃতি লাভ করুন।

লিংক: https://www.psychologytoday.com/intl/blog/living-single/202107/6-characteristics-marriage-proposals-are-rejected

অনুবাদ করেছেন: প্রত্যাশা বিশ্বাস প্রজ্ঞা

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে

more

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here