পাবনা মানসিক হাসপাতাল: বর্হিবিভাগে নারী আর অন্তবিভাগে পুরুষ রোগীর সংখ্যা বেশি

0
181

র্দীঘ ৬১ বছর ধরে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছে দেশের প্রথম ও সর্ববৃহৎ মানসিক রোগের চিকিৎসালয়-পাবনা মানসিক হাসপাতাল। অন্তবিভাগের ৫০০ শয্যার পাশাপাশি বর্হিবিভাগ থেকে প্রতিদিন সেবা নিচ্ছেন অসংখ্য রোগী। তবে পরিসংখ্যান অনুযায়ী বর্হিবিভাগ থেকে চিকিৎসা নেওয়ার ক্ষেত্রে নারীর রোগী সংখ্যা বেশি। যা অন্তবিভাগের একেবারেই বিপরীত। কারণ, অন্তবিভাগে পুরুষ রোগীর সংখ্যাই বেশি বলে জানান পাবনা মানসিক হাসপাতাল এর সহকারী রেজিষ্টার মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ওয়ালিউল হাসনাত সজীব।
তিনি জানান, ২০০৯ সাল থেকে নভেম্বর ২০১৮ পর্য়ন্ত এই হাসপাতালের বর্হিবিভাগ থেকে মোট ৩৫৫২৯৫ জন চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করেন। যেখানে পুরুষ রোগীর সংখ্যা ১৬২১১(৪৬%) আর নারী রোগীর সংখ্যা ১৯৩৬৩৭(৫৪%)।
ডা. হাসনাত সজীব তার পরিসংখ্যানে জানান, ২০০৮ সালে ২১১ জন রোগীর উপর পরিচালিত গবেষণার ফলাফলে দেখা যায়-

  • পুরুষ রোগী ৪৯.৭৬%. মহিলা রোগী ৫০.২৪%
  • ১১-৪০ বছর বয়সের রোগীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি
  • ৬০.৬৬% রোগীদের মাসিক আয় ছিল ৫০০০ টাকার কম
  • গ্রাম থেকে আগত রোগীদের সংখ্যা ৯০.৯৯%
  • সিজোফ্রোনিয়া: ২৮.৯২%, এনক্সাইটি ডিজঅর্ডার: ২৩.৭০%

২০০৯ সাল থেকে নভেম্বর ২০১৮ পর্য়ন্ত এই হাসপাতালের অন্তবিভাগের রোগীর পরিসংখ্যান সম্পর্কে ডা. সজীব জানান-এই সময়ে ১৪৭৪৫ জন রোগী ভর্তি হন। যার মধ্যে পুরুষ রোগীর সংখ্যা ১১৪৯২(৭৮%) আর নারী রোগীর সংখ্যা ৩২৫২(২২%)। এসময়ে ভর্তিকৃত রোগীদের মধ্য থেকে ১৪৫৩৪ জন রোগীই ছাড়পত্র নিয়ে চলে গেছেন। অর্থাৎ তারা সুস্থ জীবনে ফিরে গেছেন। যা এই হাসপাতালের সবচেয়ে বড় অর্জন।
পাবনা মানসিক হাসপাতালে অন্তবিভাগে গড়ে প্রায় ৪৫০ জন রোগী ভর্তি থাকে। বেড অকুপেন্সি ৮৫%।
অন্তবিভাগে ৫০০ শয্যার মধ্যে ৪০০ টি সরকারি রাজস্ব এবং ১০০ টি প্রকল্পের আওতাধীন। যার মধ্যে ৩৫০ টি ভাড়া বিছানা (পুরুষ: ২৭৫, নারী: ৭৫) আর বিনা ভাড়ার বিছানা ১৫০ টি (পুরুষ: ৭৫, নারী: ৫০, মাদকাসক্ত: ২৫)।
এই হাসপাতালের সকল বিভাগের ‍চিকিৎসা সেবা আরো বেশি সম্প্রসারণের পরিকল্পনা চলছে বলে জানান হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. তন্ময় প্রকাশ বিশ্বাস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here