তরুণদের প্রতি পাঁচজনে একজন মানসিক রোগে ভুগছে

0
14

প্রতি ৫ জন তরুণের মধ্যে একজন মানসিক রোগে ভুগছে যা পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার ২০ শতাংশ বলে জানিয়েছেন মনরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আজিজুল ইসলাম। বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস ২০১৮ উপলক্ষে ১৫ অক্টোবর(সোমবার) ঢাকা সেনানিবাসে বাংলাদেশ আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজ আয়োজিত বৈজ্ঞানিক সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে তিনি একথা বলেন।
এবারের মানসিক স্বাস্থ্য দিবসের মূল প্রতিপাদ্য ‘পরিবর্তনশীল বিশ্বে তরুণদের মানসিক স্বাস্থ্য’ বিষয়ের উপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে  তিনি পরির্বতনশীল বিশ্বে মানসিক স্বাস্থ্যের গুরুত্ব ও তরুণদের মনের উপর মনের উপর বৈশ্বিক পরিবর্তনের যে প্রভাব পড়ছে সে বিষয়ে আলোকপাত করেন। তিনি আধুনিক বিশ্বে তরুণদের মাঝে মাদকাসক্তি, ইন্টারনেট আসক্তি, বিষন্নতা, উদ্বেগ, সাইবার ক্রাইম, ইত্যাদি ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানান।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কোয়ার্টাির মাস্টার জেনারেল লেফটেন্যান্ট জেনারেল মো. সামসুল হক, পিএসসি। মেজর জেনারেল মুন্সী মোহা: মুজিবুর রহমান, মহাপরিচালক, সামরিক চিকিৎসা পরিদপ্তর এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মেজর জেনারেল মো. ফসিউর রহমান, এনডিসি, কমান্ড্যান্ট,এএফএমসি; মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান, কনসালটেন্ট সার্জন জেনারেল; প্রফেসর মো. গোলাম রাব্বানী, চেয়ারম্যান, নিউরো-ডেভলপমেন্টাল ডিসএবিলিটি প্রটেকশন ট্রাষ্ট এবং প্রফেসর মো. ওয়াজিউল আলম চৌধুরী, সভাপতি, বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব সাইকিয়াট্রিস্টস। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাইদুর রহমান, ডেপুটি কমান্ড্যান্ট, এএফএমসি।
মেজর জেনারেল মো. ফসিউর রহমান ছাত্রছাত্রীদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যবস্থা গ্রহণ ও এবিষয়ে অভিভাবকদের সচেতনতা বৃদ্ধির উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তরুনরা যেন মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে চিকিৎসা নিতে আগ্রহী হয় সে বিষয়ে দৃষ্টিপাত করেন মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান।
প্রফেসর মো. গোলাম রাব্বানী প্রতিকূল পরিস্থিতিতে তরুণদের খাপ খাওয়ানো ও তাদেরকে মানবিক সহায়তা প্রদান করতে বলেন। তরুণদের মধ্যে র্আথ সামাজিক বৈষম্যের কথা তুলে ধরে মাদকাসক্তি কমাতে সচেতনতা কার্যক্রম হাতে নিতে বলেন প্রফেসর মো. ওয়াজিউল আলম চৌধুরী।
সভাপতির বক্তব্যে মেজর জেনারেল মুন্সী মোহা: মুজিবুর রহমান একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি তরুণদের নৈতিক শিক্ষাদানের কথা বলেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে কোয়ার্টাির মাস্টার জেনারেল লেফটেন্যান্ট জেনারেল মো. সামসুল হক, পিএসসি বলেন, আমাদের সমাজে মানসিক রোগ বিষয়ে অনেক ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে। এসব কুসংস্কার দূর করতে মানসিক স্বাস্থ্য শিক্ষার বিকল্প নেই। এধরণের আয়োজনের জন্য সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে ভবিষ্যতেও সেনাবাহিনী এরকম আয়োজনের সাথে থাকবে বলে জানান তিনি।
আলোচনা সভার পূর্বে প্রধান অতিথি  অন্যান্য অতিথিবৃন্দ বেলুন  উড়িয়ে বর্ণাঢ্য র‌্যালীর উদ্বোধন করেন।
অনুষ্ঠানটি আয়োজনে সার্বিক সহায়তা করে মনরোগ বিদ্যা বিভাগ, ঢাকা সিএমএইচ। বৈজ্ঞানিক পার্টনার হিসেবে সহযোগিতা করে এসিআই লিমিটেড।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here