মানসিক স্বাস্থ্যের সবকিছু ENGLISH

Home সংবাদ জাতীয় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগ

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগ

মনের খবর.কমের পাঠকদের জন্য থাকছে দেশের মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল কলেজের মনোরোগ বিভাগের বিস্তারিত তথ্য। প্রত্যেক প্রতিবেদনে থাকবে একটি করে টেবিল। টেবিলে বিভাগের লোকবল, সেবা ইত্যাদি সংবলিত প্রয়োজনীয় বিভিন্ন তথ্য থাকবে। ধারাবাহিক প্রতিবেদনের আজকের পর্বে থাকছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মানসিক রোগ বিভাগ।

মকবুল হোসেন। বয়স ৩০। স্ত্রী আর দুই সন্তান নিয়ে তাঁর ছোট্ট সংসার। কিন্তু সংসারে মনোযোগ দেয়ার চেয়ে হাসপাতালে দৌড়াতেই যেন বেশি ব্যস্ত তিনি। গত তিন বছর থেকেই রোগমুক্তির আশায় এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালের দ্বারস্থ হচ্ছেন। গলার কাঁটার মতো একটা ভয় গেঁথে গেছে তাঁর মনে। এটা মৃত্যুর ভয়। সর্বদা এই ভয় তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে তাঁকে। তিনি মনে করেন, তাঁর বুক প্রচণ্ড ধরফর করে, দম বন্ধ হয়ে যাওয়ার মতো অবস্থা হয়। সেজন্য তিনি নাপিতের দোকানে যান না, মসজিদে নামাজ পড়তে গিয়ে সামনের সাড়িতে দাঁড়ান না। মোটের উপর ঘরের বাহিরে যেতে চান না।
এমনই একজন রোগী রেফার্ড হয়ে সেবার জন্য এসেছিলেন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগে। আর তাঁকে দেখেছেন ওই বিভাগ প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক ডা. মামুন হোসাঈন।
বহির্বিভাগে রোগী দেখার সময় এ ধরনের অনেক মানসিক রোগী দেখে থাকেন তিনি।
কীভাবে মানসিক রোগীরা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগে সেবা পেতে পারেন তাসহ, বিভিন্ন প্রয়োজনীয় তথ্য নিচে তুলে ধরা হলো:

rajshahi+medical+college+hospital


পরিচিতি:

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রাজশাহী চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়) রাজশাহী শহরে অবস্থিত একটি সরকারি মেডিকেল কলেজ। প্রতিষ্ঠানটি ১৯৫৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। বতর্মানে ১৮ টি অনুষদের মাধ্যমে স্নাতক পর্যায়ে এমবিবিএস এবং বিডিএস এবং স্নাতকোত্তর পর্যায়ে এমএস, এমফিল, এমডি, এমপিএইচ এবং ডিপ্লোমা ডিগ্রি প্রদান করা হয়। এছাড়া সাকর্ভুক্ত দেশগুলোর ছাত্রছাত্রীদের জন্য কিছু আসন বরাদ্দ রয়েছে।

লোকবল
হাসপাতালটির মানসিক রোগ বিভাগে চাকুরিরত আছেন ২ জন। এদের দু’জনই বিভাগের শিক্ষক। একজন সহকারি একজন সহযোগী। কোন মেডিকেল অফিসার কিংবা নার্স নেই। বিভাগে সহকারী অধ্যাপকের পদ খালি রয়েছে। কিন্তু নিয়োগ করা হচ্ছে না।

বহির্বিভাগ

এ বিভাগে শুধু একটি সেবা চালু আছে আর তা হলো বহির্বিভাগ সেবা। বহির্বিভাগে ১০ টাকা টিকেট ফিতে রোগী দেখা হয়। শুক্রবার সরকারি ছুটি ছাড়া বাকি ছয়দিন সকাল ৮টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত চলে রোগী দেখার কার্যক্রম।

অন্তর্বিভাগ
অন্তর্বিভাগ সেবা চালু নেই। তবে এই অন্তর্বিভাগ সেবাটি চালু করার পরিকল্পনা আছে বলে জানান বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. মামুন হোসাঈন।

জরুরি সেবা
এ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এখনো কোনো জরুরি সেবাও চালু নেই।

সাইকোথেরাপি (কাউন্সেলিং)
মানসিক রোগীদের স্বাস্থ্য সেবা হিসেবে এখানে কাউন্সেলিং সেবা প্রদান করা হয়। বিভাগের শিক্ষকরা সরাসরি এ সেবা দিয়ে থাকেন। বিভিন্ন বিভাগ থেকে রেফার্ড রোগীদেরও শিক্ষকরা কাউন্সেলিং সেবা প্রদান করে থাকেন।

শিক্ষা কার্যক্রম
পাঁচ বৎসর মেয়াদী শিক্ষা কার্যক্রম সাফল্যজনকভাবে শেষ করে শিক্ষার্থীরা চিকিৎসাশাস্ত্রে এমবিবিএস স্নাতক ডিগ্রি প্রাপ্ত হয়। এ কলেজে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে বিভিন্ন কোর্স রয়েছে। কিন্তু এখানে অর্থাৎ মানসিক রোগ বিভাগে কোনো পোস্ট গ্রাজুয়েট ডিগ্রি চালু নাই।

এছাড়াও বিভাগটি মাঝে মাঝে বিভিন্ন সেমিনার, কনফারেন্স ও কর্মশালার আয়োজন করে থাকে। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মানুযায়ী, প্রতি মঙ্গলবার কলেজের বিভিন্ন বিভাগ একটি প্রেজেন্টেশনের আয়োজন করে থাকেন। যেখানে রোগ, রোগী সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় ডাক্তারদের সামনে ক্রমানুসারে উপস্থাপন করেন বিভাগের প্রধানরা। তেমনি এই মানসিক রোগ বিভাগ বছরে দুই তিন বার বিভিন্ন বিষয়ের উপর প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করে থাকেন। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় বা মেডিকেল থেকে আগত শিক্ষার্থীদেরও ট্রেনিং করানো হয়ে থাকে। এখানে গবেষণার কাজ সাধারণত ব্যক্তিগত উদ্যোগে হয়ে থাকে।

rmcs_1

জাহিদ হাসান
প্রতিবেদক, মনের খবর

এ সম্পর্কিত অন্য লেখার লিংক-

ঢামেকের মানসিক রোগ বিভাগ

স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের মানসিক রোগ বিভাগের সেবাতথ্য

শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেলে কীভাবে পাবেন মানসিক রোগের সেবা

 শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মানসিক রোগ বিভাগ

সিলেট মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মানসিক রোগ বিভাগের সেবাতথ্য

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগ

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মানসিক রোগ বিভাগ

জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ, বগুড়া-মনোরোগ বিভাগ

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের মানসিক রোগবিভাগের সেবাতথ্য

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ মানসিক রোগ বিভাগ

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মানসিক রোগ বিভাগ

 

1 COMMENT

  1. আমি কুষ্টিয়া থেকে মো: আল ইমরান,গত
    ৫/০৯/২০ তারিখে রাজশাহী মেডিকেল এ গিয়েছিলাম শারিরীক ও মনোরোগ বিষয়ে সেবা নিতে কিন্তু শারিরীক বিষয়ে ডাক্তার দেখালেও মনোরোগ বিষয়ে কোনো ডাক্তার দেখাতে পারি নি কেননা ২ রুমে একবারে সিরিয়াল দেয়া সম্ভব হয় নি তাই এখন সমস্যা বোধ করছি পূনরায় যাওয়াও সম্ভব নই তাই যদি পারেন আমাকে সাহায্য করুন রাজশাহী হাসপাতালের মনোরোগ বিষয়ে যিনি রোগি দেখেন ফোনের মাধ্যমে সেবা দিতে ০১৬০৯৫৭৯০০৮

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আমাদের সাথেই থাকুন

87,455FansLike
55FollowersFollow
62FollowersFollow
250SubscribersSubscribe

Most Popular

মানসিক চাপে ত্বকের ক্ষতি

মানসিক চাপের বহু ক্ষতিকর দিক রয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে ত্বকের ক্ষতি। এ ছাড়াও উচ্চমাত্রার মানসিক চাপের ফলে চুল পড়া, তৈলাক্ত মাথার ত্বক, অতিরিক্ত ঘাম...

পর্নোগ্রাফির আসক্তি যেভাবে প্রভাবিত করে ব্যক্তির চিন্তা

পর্নোগ্রাফির আসক্তি মানুষের জীবনে নানারকম নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। বদলে দেয় মানুষের চিন্তা ধারা। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যে শিশুদের নিয়ে কাজ করে এরকম একটি দাতব্য সংস্থা প্ল্যান ইউকে...

কাকে বিশ্বাস করবেন? বিশ্বাস-অবিশ্বাসের পেছনের মনস্তাত্ত্বিক যুক্তি

যখন মনের জোর ধীরে ধীরে কমতে থাকে, তখন উদ্বেগ এবং আশঙ্কা ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে। এতে করে মানুষ যেমন নিজের উপর বিশ্বাস ফারিয়ে ফেলে,...

মৃত্যুভয় কাজ করে এবং সারাক্ষণ কল্পনার ভেতর ডুবে থাকি

সমস্যা: আমি কুমিল্লা থেকে মোঃ বেলাল হোসেন বলছি। আমি যেকোনো কিছু কল্পনা করতে ভালোবাসি, কল্পনার ভেতরই ডুবে থাকি সারাক্ষণ। মাথায় নানা রকম চিন্তা আসে...

প্রিন্ট পিডিএফ পেতে - ক্লিক করুন