মানসিক স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে হেলথকেয়ার নিবেদিত ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত

0
146
মানসিক স্বাস্থ্য
বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে মনের খবর টিভির সপ্তাহব্যাপী আয়োজনের প্রথম দিনে হেলথকেয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড নিবেদিত “সবার জন্য মানসিক স্বাস্থ্য” বিষয়ক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার (৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় মনের খবর টিভিতে সরাসরি সম্প্রচারিত ওয়েবিনারে স্পীকার হিসেবে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট এর রেজিষ্ট্রার ডা. তৈয়বুর রহমান রয়েল। ওয়েবিনারে মডারেটর হিসেবে ছিলেন সিলেটের জালালাবাদ রাগীব রাবেয়া মেডিক্যাল কলেজ এর মনোরোগবিদ্যা বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. সুষ্মিতা রায়।

ওয়েবিনারে প্যানেল অব এক্সপার্ট হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ এর মনোরোগবিদ্যা বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. মামুন হুসাইন, পাবনা মানসিক স্বাস্থ্য হাসপাতাল এর সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মাহফুজুল হক, জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য দিবস এর প্রাক্তন অধ্যাপক ডা. মোস্তাফিজুর রহমান এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় এর মনোরোগবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সালাহ্‌উদ্দিন কাউসার বিপ্লব।

মূল প্রবন্ধে ডা. তৈয়বুর রহমান রয়েল মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সহ মানসিক স্বাস্থ্য খাতে বিনোয়োগের গুরুত্ব তুলে ধরেন। তিনি জানান, বর্তমানে বিশ্বে ১০০ কোটি মানুষ কোনো না কোনো মানসিক রোগে আক্রান্ত। বিশ্বে প্রতিবছর ত্রিশ লক্ষ মানুষ মাদকাসক্তি জনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন এবং বিশ্বে প্রতি ৪০ সেকেন্ডে একজন মানুষ আত্মহত্যা করেন।

অ্যাংজাইটি ও ডিপ্রেশন জনিত কারণে প্রতিবছর ১ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতি হয় এবং ২০১০ সাল থেকে ২০৩০ সাল পর্যন্ত সময়ে মানসিক স্বাস্থ্য জনিত কারণে ১৬ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার আর্থিক ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া বছরে ১২ বিলিয়ন কর্মদিন নষ্ট হয় মানসিক স্বাস্থ্য জনিত কারণে। এবং একই কারণে একজন মানুষের জীবনের এক তৃতীয়াংশ কর্মঘন্টা নষ্ট হয় বলে জানান ডা. তৈয়বুর রহমান।

প্যানেল অব এক্সপার্ট হিসেবে আলোচনায় অধ্যাপক ডা. মামুন হুসাইন বলেন, মানসিক স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়ন ছাড়া অভীষ্ট উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জন সম্ভব না। মানসিক স্বাস্থ্য খাতে বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্য রাষ্ট্রের নীতি নির্ধারণী পর্যায় সহ কর্পোরেট কোম্পানীগুলিকে এগিয়ে আসার আহ্বানও জানান তিনি।

আমাদের দেশের মানুষ যেকোনে সমস্যাতেই আগে এমবিবিএস ডাক্তারের কাছে যান। তাই সকল চিকিৎসকের বেসিক কিছু মানসিক রোগ সর্ম্পকে ধারণা থাকা উচিত এজন্য এমবিবিএস কারিকুলামে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়টিকে গুরুত্বের সাথে সংযোজনের কথা বলেন অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মাহফুজুল হক।

করোনা মহামারীতে মানসিক স্বাস্থ্যের প্রয়োজনীয়তা স্পষ্টভাবে দেখা দিয়েছে। এসময়ে খুব কাছের মানুষের জানাজা দাফনের মত সময়ে উপস্থিত থাকতে না পারার মত বেদনাদায়ক ঘটনা মানুষের মানসিক স্বাস্থ্যের উপর প্রচন্ড প্রভাব ফেলেছে। তাই করোনা পরবর্তী সময়ে মানুষের মানসিক স্বাস্থ্যজনিত ক্ষতি সামলাতে এই খাতে সেবা বাড়ানোর জন্য সাইকিয়াট্রি নার্স, সাইকোসোশ্যাল ওয়ার্কার সহ সংশ্লিষ্ট লোকবল বাড়ানোর প্রতি জোর দেন অধ্যাপক ডা. মোস্তাফিজুর রহমান।

নিজের বক্তব্যে অধ্যাপক ডা. সালাহ্‌উদ্দিন কাউসার বিপ্লব মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক সচেতনতা ও এই খাতের উন্নয়নে মিডিয়ার ভূমিকা নিয়ে আলোকপাত করেন।

সম্পূর্ণ ওয়েবিনারটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

করোনায় স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here