মানসিক স্বাস্থ্যের সবকিছু ENGLISH

Home সংবাদ আন্তর্জাতিক মানসিক চাপ সেরে উঠছেন ইংলিশ ক্রিকেটার জোনাথন ট্রট

মানসিক চাপ সেরে উঠছেন ইংলিশ ক্রিকেটার জোনাথন ট্রট

ক্রিকেট বিশ্বকাপ জ্বরে কাঁপছে পুরো বিশ্ব। কোটি মানুষের চোখ এখন টেলিভিশনের পর্দায়। শুভাকাঙ্ক্ষীদের পাশাপাশি খেলোয়ারদের চিন্তা-চেতনা, আবেগ, প্রেম-ভালোবাসা আর পেশাদারিত্ব থাকে ক্রিকেটকে ঘিরে। যেকোন খেলোয়ার সবসময় একটি স্বপ্ন লালন করে বুকে যে, সে দেশের জার্সি গায়ে জড়িয়ে বিশ্বকাপ খেলবেন। এনে দিবেন কাঙ্ক্ষিত শিরোপা। কিন্তু অনেক সময় প্রচণ্ড মানসিক চাপ তাঁকে ছিটকে ফেলে দেয় ক্রিকেট জগৎ থেকে।

যেমনটি ঘটেছে ইংল্যান্ডের ক্রিকেট খেলোয়ার জোনাথন ট্রটের বেলায়। পূর্ণ ফর্মে থাকলেও প্রচণ্ড মানসিক চাপের কারণে তিনি চলতি বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেন নি। সেই দুঃখের কথাই বলছিলেন তিনি, ‘আমি যেহেতু মানসিক দিক থেকে একশত ভাগ ফিট না সেহেতু আমি খেললেও আগের মতো ভালো করতে পারবো না।’

Trot_28.03.2015

২০১৩ সালের নভেম্বর মাসে অস্ট্রেলিয়ায় ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে খেলতে অস্ট্রেলিয়ায় সফরে গিয়েছিলেন ট্রট। কিন্তু মানসিক চাপ, হতাশা ও উদ্বিগ্নতার কারণে এক ম্যাচ খেলার পর দেশে ফিরে যান ৩৩ বছর বয়সী এ ব্যাটসম্যান। এরপর দীর্ঘ সময় পার করছেন মাঠের বাইরে। তারপর থেকেই মানসিক চাপ থেকে মুক্তি পেতে চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।

ব্যাট হাতে মাঠে নেমে রান তোলা যার সময়ের ব্যাপার সেই ট্রট দেড় বছরের মতো সময় অবসর কাটাচ্ছেন মানসিক রোগের কারণে। ২০১০ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে ব্যাটিং করে ২২৬ রান সংগ্রহ করেছিলেন তিনি যা টেস্ট ম্যাচে তার সর্বোচ্চ রান। এরপরের বছর আইসিসির ক্রিকেট অব দ্য ইয়ার নির্বাচিত হয়েছিলেন ট্রট।

বিবিসি’র সংবাদে বলা হয়েছে, আগামী এপ্রিল-মে মাসের মধ্যে আবারও ব্যাট হাতে দেখা যাবে ট্রটকে। এপ্রিলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সঙ্গে নির্ধারিত টেস্ট সিরিজে খেলতে পারেন ডান হাতি এ ব্যাটসম্যান।

শুধু ট্রট নন, মানসিক রোগে ভুগছেন তার আরও দুই সহযোদ্ধা-মারকোজ ট্রেসকোথিক ও মাইক ইয়ারডি।

প্রফেশনাল ক্রিকেটারস এসোসিয়েশন (পিসিএ)-এর এক গবেষণায় দেখা যায়, ৫ শতাংশ ক্রিকেটার মানসিক রোগ থেকে মুক্তির জন্য সাহায্য নিয়েছেন। ৫শ’ জন ক্রিকেটারের ওপর তারা গবেষণা চালিয়ে এ সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।

ক্রিকেটারের মানসিক চাপের কারণ হিসেবে পিসিএ’র প্রধান নির্বাহী জেসন রেডক্লিভ বলেন, ‘আমরা সবাই অনেক আগ্রহ-উদ্দীপনা নিয়ে খেলতে আসি। কিন্তু খেলায় ভিন্ন উইকেট, ভিন্ন পরিবেশ এবং বিভিন্ন দলের বিপক্ষে খেলতে গিয়ে প্রায়শই নিয়ন্ত্রণ থাকে না। আর পারফরমেন্স খারাপ হলেই দেখা দেয় হতাশা।’

তবে মনস্তাত্ত্বিকদের মতে, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ আর নির্দেশনা মেনে মানসিক চাপ নিয়েও খেলাধুলা চালিয়ে যেতে পারেন ক্রিকেটাররা। আর এ উৎসাহ থেকেই হয়ত আবারো মাঠে নামবেন ট্রট। ক্রিকেট প্রেমিকদের প্রত্যাশা নিশ্চয়ই এটাই।

ফারুক হোসেন
নিউজরুম এডিটর, মনের খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আমাদের সাথেই থাকুন

87,455FansLike
55FollowersFollow
62FollowersFollow
250SubscribersSubscribe

Most Popular

আশাবাদী মনোভাব দীর্ঘায়ু প্রদান করে

আশাবাদী মনোভাব মানুষকে বাঁচার অনুপ্রেরণা যোগায়। অনেক কঠিন পরিস্থিতিতেও মনের জোর বজায় রাখে। বিপদে ধৈর্য প্রদান করে। সম্প্রতি গবেষকগণ এই দাবি করেছেন যে একজন আশাবাদী...

কারো সাথে ঠিকমতো কথা বলতে পারি না

সমস্যা: আমার বয়স ২৭ বছর। আমি ফ্রিল্যান্সিং কাজের সাথে যুক্ত আছি। আমি খুবই কনজারভেটিভ ফ্যামিলিতে বড় হয়েছি। বর্তমানে আমার কিছু সমস্যা হচ্ছে। কারো সাথে...

করোনা মহামারি ও নয়া স্বাভাবিকতা নিয়ে মনের খবর অক্টোবর সংখ্যা প্রকাশিত

দেশের অন্যতম বহুল পঠিত মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মাসিক ম্যাগাজিন মনের খবর এর অক্টোবর সংখ্যা। অন্যান্য সংখ্যার মত এবারের সংখ্যাটিও একটি বিশেষ বিষয়ের উপর প্রাধান্য...

ধর্ম এবং মানসিক স্বাস্থ্যের যোগসূত্র

অনেকেই মনে করেন ধর্মীয় বিধি বিধান এবং মানসিক স্বাস্থ্যের মাঝে একটি গভীর সম্পর্ক রয়েছে এবং বিশেষ করে যারা ধর্মীয় জীবন যাপন করেন তারা উন্নত...

প্রিন্ট পিডিএফ পেতে - ক্লিক করুন