মানসিক স্বাস্থ্যের সবকিছু

Home সংবাদ আন্তর্জাতিক বন্ধুর মন সুস্থ রাখতে ৫ পরামর্শ

বন্ধুর মন সুস্থ রাখতে ৫ পরামর্শ

বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্পণ করে স্বভাবতই একজন শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন দিক লক্ষ্য রাখতে হয়। নতুন পরিবেশের সঙ্গে নিজেকে খাপ খাওয়া থেকে শুরু করে তার ব্যক্তিগত জীবনে বিভিন্ন প্রতিকূলতার সম্মুখীন হতে হয়। এসব সামলাতে না পেরে অনেকেই প্রচণ্ড মানসিক চাপ, হতাশা ও উদ্বিগ্নতায় ভোগেন। আর সেই জায়গায় সে নিজেকে অসহায় ও একাকী মনে করেন।

একজন শিক্ষার্থীকে এই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি দিতে সবার আগে এগিয়ে আসতে পারেন তার  সহপাঠী, বন্ধু।  সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল ইউনিয়ন অব স্টুডেন্টস (এনইউএস) একটি গবেষণা করে।

5 tips to keep in mind healthy Friend-25-02-15

এ গবেষণায় দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের যেসব শিক্ষার্থী মানসিক রোগে ভোগেন তাদের ৫৮ ভাগই তাদের মানসিক অবস্থার কথা বন্ধুদের কাছে শেয়ার করেন। আর ৪৫ ভাগ শিক্ষার্থী পরিবারের কাছে, ১৫ ভাগ বিশেষজ্ঞ ও চিকিৎসকের কাছে এবং ১০ ভাগ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছে শেয়ার করেন ও কাউন্সেলিং সেবা নেন।
গবেষণায় বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি ৫ জনের একজন হতাশা ও মানসিক চাপে ভোগেন। স্নাতক শেষ করার সময় এ সংখ্যা আরও বেড়ে যায়।

দুশ্চিন্তা, হতাশা আর উদ্বিগ্নে ভোগা সহপাঠী বা বন্ধুকে আপনি নিয়ে আসতে পারেন স্বাভাবিক জীবনে, নিয়ে আসতে পারেন সুন্দরের পথে। আর এ জন্য বন্ধুর মনকে সুস্থ রাখতে আপনাকে মনে রাখতে হবে এনইউএস-এর গবেষণায় উল্লেখ করা ৫টি পরামর্শ।
পরামর্শগুলো নিচে দেয়া হলো-

• কথা বলুন, জানুন বন্ধুর মনের খবর
মনের কথা জানা যায়, কথা বলেই। তাই আপনাকেই শুরু করতে হবে কথা বলা। জানতে হবে বন্ধুর মনের কষ্টগুলো, লুকিয়ে থাকা ব্যথা গুলো। কেন হতাশায় ভুগছেন আপনার বন্ধু, সেটিও বোঝার জন্য আপনাকে কিছু সময় ব্যয় করতে হবে। নিরিবিলি পরিবেশে বন্ধুকে নিয়ে কিছুটা সময় কাটাতে হবে। তাকে বলতে দিতে হবে, তার মনের কথাগুলো।
• সমর্থন দেয়া
যে কাজটি আপনার বন্ধুকে মানসিক প্রশান্তি দেবে, যাতে তার ভালো লাগবে-সেটির প্রতি সমর্থন দেয়া। এটা হতে পারে-কোথায় ঘুরতে যাওয়ার ক্ষেত্রে তার সঙ্গ দেয়া বা এক সঙ্গে বসে ‍ম্যুভি দেখা।
• অভিজ্ঞতা বিনিময়
আপনার বন্ধুর মতো অন্য কাউকে আপনি দেখেছেন, বা জানেন। ওই ব্যক্তি এখন স্বাভাবিকভাবে জীবনযাত্রা চালিয়ে যাচ্ছে, কীভাবে তিনি স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এলেন-বা আপনি নিজেই কোনো এক সময় হতাশা, বিষণ্ণতায় ভুগেছেন। এসব প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতা বন্ধুর সঙ্গে শেয়ার করতে হবে। কীভাবে সমস্যা থেকে উত্তরণ হতে পারে সে বিষয়েও পরামর্শ দিতে পারেন। প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞের দারস্থ হওয়ার পরামর্শ দিতে পারেন।
• বন্ধুর প্রতিকূল সময়ে নমনীয় হওয়া
আজ আপনার বন্ধুকে দেখে মনে হচ্ছে বিষণ্ণ। তাহলে তার সাথে আপনাকে নমনীয় আচরণ করতে হবে। মন খারাপ থাকায় সে হয়ত খারাপ আচরণ করতে পারে, অল্পতেই রেগে যেতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে নিজেকে ধৈর্যশীল রেখে ঠাণ্ডা মাথায় তাঁকে পরামর্শ দিতে হবে।
• নিজেকে মডেল বানাতে হবে

বন্ধুকে পরামর্শ দেয়ার আগে নিজের আচার-আচরণ, অভ্যাস, কাজকর্ম সম্পর্কে সচেতন হতে হবে। নিজের রুটিন, অভ্যাস দেখে বন্ধু অনুপ্রাণিত হলে তাকে বুঝানো সহজ হবে। আপনাকে দেখে যেন তার আত্মবিশ্বাস বাড়ে-সেভাবে আপনাকে চলতে হবে। এতে পরবর্তীতে কোনো সমস্যা হলে সে নিজেই অনেকটা মোকাবেলা করতে পারবে।

শিক্ষাজীবনের পাশাপাশি ব্যক্তিগত জীবনে বিভিন্ন প্রতিকূলতা থেকে উত্তরণের অন্যতম উপায় হলো শেয়ার করা। আর সেজন্য একজন ব্ন্ধু অনেক বেশি সহায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারে।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান
ভাবানুবাদ: ফারুক হোসেন
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আমাদের সাথেই থাকুন

87,455FansLike
55FollowersFollow
62FollowersFollow
250SubscribersSubscribe

Most Popular

দ্বন্দ্বপূর্ণ আচরণ এবং আমাদের চিন্তার জগত

“বিশ্ববিদ্যালয় শেষ করে চাকুরীতে ঢোকার পরপরই সিমির (ছদ্মনাম) বিয়ে হয়ে যায়। ২বছরের একটি সন্তান আছে তাঁর। অন্তঃস্বত্বা হবার পরই চাকুরীটা ছেড়ে দেয়। ইদানিং সে...

মহামারীতে সম্পর্কে টানাপড়েন এড়াতে করণীয়

কোভিড-১৯এর এই দুঃসময়ে গুলোকে বেশ জটিল মনে হতে পারে। তবে কিছু বিষয় খেয়াল রাখতে পারলে মনের অমিল এবং সম্পর্কের এই জটিলতা গুলোকে বেশ সহজে...

সেক্সুয়াল মিথ ও যৌন স্বাস্থ্য: ২য় পর্ব

পর্নোগ্রাফীতে যে সহজতা থাকে, যে উত্তেজনার মাত্রা থাকে বাস্তব জীবনে তা থাকে না। কারণ অভিনয়ে বাড়াবাড়ি রকমের কিছু না থাকলে মানুষের মনে তা ধরে...

মহামারী কালে মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণে পারিবারিক বন্ধনের ভূমিকা

আমাদের কাছের মানুষ গুলোর সাথে আমাদের সম্পর্ক যত গভীর, বিপদ মোকাবেলায় আমাদের মানসিক শক্তি থাকবে ততোটাই বেশী। যে কোন বিপদ মোকাবেলায় পরিবার ও কাছের মানুষদের...

প্রিন্ট পিডিএফ পেতে - ক্লিক করুন