মানসিক স্বাস্থ্যের সবকিছু ENGLISH

Home মানসিক স্বাস্থ্য শিশু কিশোর শিশুকে বকা না দিয়ে শাসন করার কৌশল

শিশুকে বকা না দিয়ে শাসন করার কৌশল

যুগের সঙ্গে সঙ্গে বদলেছে শাসনের ধরণ। সন্তানকে সুশিক্ষা দিতে কোনো রকম বকা, আঘাত বা উচ্চস্বরে না ধমকিয়ে শিক্ষা দেওয়ার উপায় সম্পর্কে জানানো হল জীবনবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে।
সন্তান ঘরের পরিবেশ এলোমেলো রাখলে মাথায় বাজ পড়ার মতো অবস্থা হয়। এমন সময় রাগারাগি না করে সন্তানকে নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য কয়েকটি কৌশল অনুসরণ করা উচিত।
পরিস্থিতি থেকে বিচ্ছিন্ন রাখা: সন্তানের কর্মকাণ্ডে অনেক সময় নিজেকে নিয়ন্ত্রণে রাখা কঠিন হয়ে যায়। এমন পরিস্থিতিতে চিৎকার না করে নিজেকে শান্ত রাখুন এবং পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে দিন। মনে রাখবেন, আপনি মুখে চুপচাপ থাকলেও আপনার কাজ কর্মে যেন আপনার অনুভূতি প্রকাশ পায়।
এটা বোঝা উচিত যে, চিৎকার করে কেবল ক্ষণিকের জন্য পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা যায়। তাই সার্বিকভাবে সমাধান চাইলে মাথা ঠাণ্ডা করে কথা বলুন।
সন্তানকে বাছাই করার সুযোগ দিন: আপনার সন্তান যদি সকালের নাস্তায় বিস্কুট খেতে চায় তাহলে তাকে মজাদার বিকল্প হিসেবে রুটি ও বাটার, আলু পরটা ইত্যাদির মধ্য থেকে বাছাই করার সুযোগ দিন। তাছাড়া , সন্তানকে এটাও বোঝাতে পারেন যে তাদের সকালে স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে হবে এবং দিনের অন্য যে কোনো সময় তারা বিস্কুট খেতে পারবে।
নিয়ম তৈরি করা: ঘরের ভেতর সুনির্দিষ্ট নিয়ম চালু করা যেতে পারে। আর সেটা লিখে দেয়ালে সাঁটিয়ে দিলে আরও ভালো হয়। যেমন- রাতে ১০টার পর টিভি দেখা যাবে না। আর এই ধরনের নিয়ম সঠিকভাবে মানার জন্য ‘ধন্যবাদ’ দিয়ে আদর করলে সন্তানের ওপর ইতিবাচক প্রভাব পড়বে।
বার বার একই কথা না বলা: ‘এটা করবে না’, ‘এখন হোমওয়ার্ক কর’- এই ধরনের কথা বারবার বললে সন্তানের কাছে তেমন একটা দাম থাকবে না। বরং কথা না শুনলে ২৪ ঘণ্টার জন্য টিভি দেখা বন্ধ বা গ্যাজেট ব্যবহার করা যাবে না এই ধরনের বিষয় করলে সন্তান একসময় কথা শুনলে আর না শুনলে কী হতে পারে সেটার বিষয়ে ধারণা পাবে। ফলে ধীরে হলেও তার মধ্যে পরিবর্তন আসবে।
চিৎকার করছেন কেনো সেটা আগে ভাবুন: সন্তান কথা না শুনলে নিজে কেনো চিল্লাচ্ছেন সেটা আগে ভাবুন। যদি মনে হয় রাগ থেকে চিৎকার করে বকছেন সন্তানকে তাহলে চুপ করে গিয়ে নিজে আগে শান্ত হন। কারণ বেশিরভাগ সময় চিৎকার বা উচ্চস্বরে কথা বললে সন্তান কথা শুনতে চায় না।
এছাড়া রাগের মাথায় অভিভাবকরা অনেক সময় বিভিন্ন শাস্তির কথা বলে বসে। পরে পরিস্থিতি শান্ত হলে সেগুলো আর পালন করা হয় না। ফলে সন্তান সেগুলোকে আমলে নেয় না। তাই রাগের মাথায় কিছু না করে, বরং ঠাণ্ডা মাথায় সন্তানকে শাসন করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আমাদের সাথেই থাকুন

87,455FansLike
55FollowersFollow
62FollowersFollow
250SubscribersSubscribe

Most Popular

করোনাকালে প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষা ও মানসিক স্বাস্থ্যে প্রভাব নিয়ে মনের খবর নভেম্বর সংখ্যা প্রকাশিত

দেশের অন্যতম বহুল পঠিত মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মাসিক ম্যাগাজিন মনের খবর এর নভেম্বর সংখ্যা। অন্যান্য সংখ্যার মত এবারের সংখ্যাটিও একটি বিশেষ বিষয়ের উপর প্রাধান্য...

অবিবাহিতদের মানসিক স্বাস্থ্য বনাম বিবাহিতদের মানসিক স্বাস্থ্য

আমাদের সমাজে অবিবাহিত বা বৈবাহিক সম্পর্ক এড়িয়ে চলা মানুষদের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। অনেকেই মনে করেন বৈবাহিক সম্পর্ক এড়িয়ে চললেই সবাইকে নিয়ে সুখী...

পরিবেশ দূষণ মনের ওপর যেসব প্রভাব ফেলে

আমাদের চারপাশের ভৌত অবস্থা, জলবায়ু, জৈবিক এবং অন্যান্য প্রাকৃতিক শক্তির সামষ্টিক রূপটিই হচ্ছে পরিবেশ। কোন ব্যবস্থা বা জীবের অস্তিত্ব বা বিকাশের জন্য তার উপর...

বায়ু দূষণ করোনাভাইরাসে মৃত্যু ঝুঁকি বাড়ায়

বিশ্বে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে যত মানুষ মৃত্যুবরণ করেছেন তার ১৫ শতাংশের পেছনে ভূমিকা রেখেছে লম্বা সময় বায়ু দূষণের প্রভাব, এমন দাবি করছেন গবেষকরা। বায়ু দূষণ...

প্রিন্ট পিডিএফ পেতে - ক্লিক করুন