কোভিড-১৯ মহামারীর দুঃসময়ে বেকারত্বের সমস্যা মোকাবিলার মানসিক কৌশল

0
48
কোভিড-১৯ মহামারীর দুঃসময়ে বেকারত্বের সমস্যা মোকাবিলায় সহায়ক মানসিক কৌশল
কোভিড-১৯ মহামারীর দুঃসময়ে বেকারত্বের সমস্যা মোকাবিলায় সহায়ক মানসিক কৌশল

কোভিড-১৯ মহামারীর জন্য বিশ্বব্যাপী হাজার হাজার মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। প্রতি দিনের জীবিকা হারিয়ে এবং দিন দিন বাড়তে থাকা মহামারীর এই প্রকোপে দিশেহারা হয়ে অনেকেই মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছে এবং অর্থনৈতিক দিক থেকেও সীমাহীন দুর্ভোগের সম্মুখীন হয়েছে। এ সময়ে কিভাবে মানসিক জোর এবং আত্মবিশ্বাস বজায় রেখে এই দুর্যোগ মোকাবিলা করা যায় সেটি নিয়ে আলোচনা করা যাক।

কোভিড-১৯ মোকাবেলায় বিশ্বব্যাপী প্রায় প্রতিটি দেশেই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে লকডাউন পালন করা হচ্ছে। স্বাভাবিক কাজকর্ম,চলাচল সব কিছুর উপর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এ সময়ে সব থেকে বেশী বিপদে পড়েছেন খেঁটে খাওয়া মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত শ্রেণীর মানুষেরা। দিন মজুর মানুষের সাথে সাথে হোটেল ব্যবসা, পর্যটন, রেস্টুর‍্যন্ট ইত্যাদি কাজের সাথে জড়িত মানুষেরা আজ প্রায় সম্পূর্ণ কর্মহীন। কাজ হারিয়ে অনেকেই আজ অত্যন্ত শোচনীয় অবস্থায় দিনানিপাত করছে। নিজের ও পরিবারের ভরণপোষণ হয়ে উঠেছে প্রায় অসম্ভব। এমন সময়ে মনের জোর বজায় রেখে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া এবং পরিবর্তিত অবস্থার সাথে খাপ নিয়ে নেওয়াই সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সব থেকে বড় পদক্ষেপ হতে পারে মানসিক সুস্বাস্থ্য বজায় রাখা এবং পরিবর্তিত অবস্থা মোকাবেলা করার সঠিক পরিকল্পনা করা।

মানসিক জোর বজায় রাখতে কিছু কিছু বিষয় সব সময় মনে রাখা প্রয়োজন। এর মধ্যে প্রথম হল, সব সময় মনে রাখবেন এই অসহায় অবস্থা শুধু আপনার একার নয়। বরং সমগ্র বিশ্ব আজ করোনা আতঙ্কে ভুগছে এবং লাখ লাখ মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। সবার সাথে একাত্মতা আপনার মনের উপর চাপ কমাতে সহায়তা করবে। এই পরিস্থিতির জন্য আপনি দায়ী নন। তাই ভেঙ্গে পড়া কোন কিছুর সমাধান হতে পারেনা। মনের জোর অক্ষুণ্ণ রেখে এই মহামারী মোকাবেলা করতে হবে।

এছাড়াও, যারা কর্মহীন হয়ে পড়েছে সামনে থেকে সম্ভব না হলেও ভার্চুয়ালি তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। এই সময়ে তারা কি করছে এবং কিভাবে এই সমস্যা মোকাবেলা করা যায় এসব নিয়ে সবাই মিলে কথা বলতে পারেন। এতে সাহস বাড়বে। সবাই মিলে একসাথে একটি দলগত সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। কিভাবে এই সমস্যা মোকাবেলা করবেন এবং কিভাবে সবাই মিলে হতাশা মুক্ত থাকবেন সেসব নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করুন। প্রথম দিকে কিছুটা অস্বস্তি এবং অসুবিধে হতে পারে। কিন্তু যত বেশী মানুষের সাথে আলোচনা করা যাবে, কাজের সুযোগ বা খোঁজ পাওয়া ততোটাই সহজ হবে। সব সময় মনে রাখবেন, আপনি একা নন।
কর্মহীন অবস্থায় অনিদ্রা, দুশ্চিন্তা এগুলো খুবই স্বাভাবিক। আর মহামারী এই সমস্যা প্রায় দ্বিগুণ করে দিয়েছে। অনিদ্রা এবং দুশ্চিন্তা সুস্থ মানসিকতার বিকাশে বাঁধা দেয়। মানুষ সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হয় এবং জীবনযাপন দুরূহ প্রতীয়মান হয়। এ কারণে নিজেকে সুস্থ রাখতে সব সময় ইতিবাচক চিন্তা করতে চেষ্টা করুন। রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর চেষ্টা করুন এবং পরিমিত আহার করুন। নিয়মিত ইতিবাচক আচার আচরণের চর্চা করলে মানসিক শান্তি বজায় রাখা সম্ভব হবে এবং মানসিক স্থিরতাই বিপদ মুক্তির রাস্তা প্রশস্ত করবে।

এভাবে কর্মহীন হয়েও যদি প্রতি দিনের একটি রুটিন করে ফেলা যায় এবং আত্মবিশ্বাস বজায় রেখে মহামারীর এই অবর্ণনীয় খারাপ পরিস্থিতি মোকাবেলার প্রচেষ্টা করা হয় তাহলে ভাল দিন অবশ্যই দূরে নেই। পরিবর্তিত পরিস্থিতি আপনার মানসিক জোর এবং আত্মবিশ্বাস যেন কোন ভাবেই ভাঙতে না পারে সেদিকে নজর দিন। শারীরিক সুস্থতার পাশাপাশি মানসিক সুস্থতার দিকেও নজর দিন। তাহলেই আত্মবিশ্বাস বজার থাকবে এবং নতুন করে বাঁচার অনুপ্রেরণা পাবেন।

মনের খবর মাসিক ম্যাগাজিন ক্রয়ের বিশেষ অফার

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here