সহানুভূতি এবং ক্ষমাশীল মনোভাব ব্যক্তিত্ব বিকাশে সহায়ক

0
102
সহানুভূতি এবং ক্ষমাশীল মনোভাব ব্যক্তিত্ব বিকাশে সহায়ক
সহানুভূতিশীলতা এবং ক্ষমাশীলতা শব্দ দুটি খুবই সাধারণ শোনালেও এমন দুটি গুণ যা প্রাণীর চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের সব থেকে বিশেষ গুণগুলোর মাঝে অন্যতম। এই গুণগুলো অন্যদের প্রতি, একই সাথে নিজের প্রতি ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি প্রকাশের সব থেকে উত্তম উপায়।

আপনার সব ভাল ব্যবহারের মাঝে, অন্যের প্রতি বন্ধুসুলভ দৃষ্টিভঙ্গির মাঝে, ধৈর্য, সৎ সাহস এবং ভালবাসার মাঝে আপনার স্বদিচ্ছা নিহিত থাকে। একজন সহানুভূতিশীল মনের অধিকারী ব্যক্তির মনে সবার জন্যই সমান দয়া এবং সদ্ভাব থাকে। সহানুভূতি নেতিবাচক মানসিকতা যেমন বৈরিতা, হিংসা, ক্রোধ, হিংস্রতা ইত্যাদি স্বভাবের বিপরীত মনোভাব। নিজের মাঝে সহানুভূতির মনোভাব লালন করতে পারলে সব ধরণের নেতিবাচক প্রভাব থেকে যেমন নিজেকে দূরে রাখা যায় তেমনি সবার ভালবাসার পাত্র ও হয়ে ওঠা যায়। তাই শৈশব থেকেই এসব গুণাবলী অর্জনের এবং চর্চা করার চেষ্টা করতে হয়।

অন্যের প্রতি ক্ষমাশীল হলে অনেক বিবাদ এড়িয়ে চলা যায়। এতে আপনার প্রতি অন্যদের বিশ্বাস তৈরি হয় এবং অন্যদের কাছ থেকে ভালবাসাও পাওয়া যায়। সব সময় নিজের মনকে নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। কখনোই নিজেকে নিজের মনের নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবেনা। সবার মাঝে থেকে সবার থেকে আলাদা হতে হলে অবশ্যই নিজেকে বিশেষ ব্যক্তিত্বের অধিকারী হতে হবে। আর বিশেষ ব্যক্তিত্বের অধিকারী হতে হলে সহানুভূতিশীলতা এবং ক্ষমাশীল হওয়ার মত ইতিবাচক গুনের অধিকারী হতে হবে।

এমন অনেক পরিস্থিতি আসে যখন অন্যদের ব্যবহার, বিভিন্ন কাজ, কথাবার্তা আপনার মনকে বিচলিত করে। তখন নিজের আবেগ নিজের নিয়ন্ত্রণে থাকতে চায়না। এই সময় মানুষ ধৈর্যহীন হয়ে পড়ে এবং ক্রোধের বশবর্তী হয়ে মানুষ নিজের মনুষ্যত্ব এবং ব্যক্তিত্ব ভুলে যায়। আবার অনেকে হিংসা এবং অহংকারের বশবর্তী হয়ে অন্যকে অপমান করে, তাদের ছোট করে দেখে। অন্যের দুঃখে নিজে প্রশান্তি পায়। এই সকল পরিস্থিতি নিজেকে প্রমাণের, নিজের ব্যক্তিত্ব বিকাশের সব থেকে উৎকৃষ্ট সময়। অন্যের করা অপরাধ, দুর্ব্যবহার যেন আপনার  মনকে বিচলিত করতে না পারে এবং আপনি আপনার ব্যক্তিত্বকে অক্ষুণ্ণ রাখতে পারেন তার সব থেকে ভাল উপায় হল ক্ষমাশীল মনোভাব।

আবার অন্যদিকে আপনি যদি নিজের মাঝে সহানুভূতিশীল মানসিকতার বিকাশ ঘটাতে পারেন তাহলে এটি আপনাকে হিংসা, ক্রোধ, অহংকারের মত নেতিবাচক চারিত্রিক গুণাবলী থেকেও মুক্ত রাখবে। এভাবে আপনি হয়ে উঠবেন সবার মাঝে অন্যরকম একজন।  উৎকৃষ্ট ব্যক্তিত্বের অধিকারী একজন।
 

সূত্র: সাইকোলজি টুডে https://www.psychologytoday.com/us/blog/your-wise-brain/202001/be-kind
অনুবাদ করেছেন: প্রত্যাশা বিশ্বাস প্রজ্ঞা 

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here