মানসিক স্বাস্থ্যের সবকিছু ENGLISH

Home জীবনাচরণ মানসিক উত্তেজনা এবং আবেগ নিয়ন্ত্রণের কিছু সহজ কৌশল

মানসিক উত্তেজনা এবং আবেগ নিয়ন্ত্রণের কিছু সহজ কৌশল

অধিকাংশ সময়ই দেখা যায় আমাদের আবেগ  নিয়ন্ত্রণে থাকেনা, বরং আমরাই আবেগ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হই।

অতিরিক্ত আবেগ বা অনিয়ন্ত্রিত আবেগ  আমাদের শারীরিক ও মানসিক ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই শারীরিক ও মানসিক ভাবে সুস্থ থাকতে মানসিক উত্তেজনা এবং অতিরিক্ত আবেগ নিয়ন্ত্রণে রাখা অত্যন্ত প্রয়োজন।
যখন আমাদের আবেগ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় যে কোন কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করা প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়ে। এতে পরিস্থিতিও আমাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় এবং প্রতি পদে পদে আমাদেরকে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। কোন বিষয়ে উত্তেজনা বা অতিরিক্ত আবেগ নিয়ন্ত্রণের কিছু সহজ কৌশল রয়েছে। যা অনুসরণ করলে এই সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব হবে। আসুন দেখা যাক আবেগ নিয়ন্ত্রণে এর সেই কৌশলগুলো কি কি:
১) উল্টো গণনা করাঃ মনস্তত্ত্বিকদের কাছে এটি মানসিক উত্তেজনা প্রশমনের একটি বেশ জনপ্রিয় কৌশল। এতে কোন প্রকার বিশেষ কিছু করার প্রয়োজন পড়েনা। আপনাকে যা করতে হবে তা হল, যখন দেখবেন কোন বিষয়ে আপনি আপনার মানসিক সন্তুলান হারাচ্ছেন বা আবেগ ও উত্তেজনা নিয়ন্ত্রণ করতে পারছেন না, তখন চোখ বন্ধ করে বড় করে একটা শ্বাস নিন, তারপর ১০ বা ১৫ যে কোন সংখ্যা থেকে উলটো করে গুণতে শুরুর করুন। এটি আপনার মানসিক উত্তেজনা প্রশমন করে আপনাকে মানসিক স্থিতিশীলতা প্রদান করবে এবং আপনার অনিয়ন্ত্রিত চিন্তাভাবনা নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করবে।
২) মানসিক চাপ সৃষ্টি হয় এমন পারিপার্শ্বিক অবস্থা এড়িয়ে চলুনঃ উত্তেজিত হওয়ার মত পারিপার্শ্বিক অবস্থা এড়িয়ে চলার মানে কোন বাস্তব পরিস্থিতি বা দৈনন্দিন জীবন থেকে মুখ ফিরিয়ে নেওয়া নয় বরং উত্তেজিত হতে পারেন বা আপনার মানসিক চাপ বৃদ্ধি করতে পারে এমন পারিপার্শ্বিক অবস্থার পরিবর্তন করা। যেমন, আপনার চারপাশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা, চারদিকে মন ভাল হয়ে যায় এবং অনুপ্রেরণা প্রদান করে এমন ছবি, লেখা ইত্যাদি সাজিয়ে রাখা, অর্থাৎ এমন পরিবেশ তৈরি করা যা আপনার মানসিক উত্তেজনা প্রশমনে আপনাকে সহায়তা করবে।
৩) দৈনন্দিন কাজের সমন্বয় সাধনঃ প্রতি দিনের কাজ সমূহ যদি একটি নির্ধারিত ক্রমানুসারে বা রুটিন অনুযায়ী করা যায় তাহলে কাজের অতিরিক্ত চাপ কখনোই আমাদের বিভ্রান্তির মাঝে ফেলতে পারবেনা। এতে যেমন আমাদের মানসিক চাপ কমবে তেমনি অতিরিক্ত কাজের চাপে বিভিন্ন বিষয়ে হওয়া মানসিক উত্তেজনাও প্রশমিত হবে।
৪) কিছু অপ্রত্যাশিত বিষয় বা অবস্থা মেনে নিনঃ এমন নয় যে আপনি সব সময় সব কিছু পারবেন বা সব সময় সব কিছু আপনার নিয়ন্ত্রণে থাকবে। তাই সহজভাবে নিজের অপারগতা গুলো স্বীকার করতে শিখুন। আপনার আওতার বাইরে থাকা বিষয়গুলোর প্রতি মনোযোগ না দিয়ে আপনি কি কি পারছেন বা পারবেন সেগুলো নিয়ে চিন্তা ভাবনা করুন। এতে অনিশ্চয়তা আপনাকে স্পর্শ করতে পারবেনা এবং এসব ভেবে আপনার মানসিক উত্তেজনাও বৃদ্ধি পাবেনা।
নিজের জীবনের চালক আপনি নিজেই। আপনি যেভাবে চাইবেন, আপনার জীবনও ঠিক সেভাবেই চলবে। তাই অযথা দুশ্চিন্তা করে সুন্দর সময় গুলো নষ্ট করবেন না। অযাচিত মানসিক আবেগ পরিহার করে সুস্থ ও সুন্দরভাবে জীবন অতিবাহিত করুন।
সূত্র: https://www.psychologytoday.com/us/blog/the-savvy-psychologist/202005/8-strategies-manage-overwhelming-feelings
অনুবাদ করেছেন: প্রত্যাশা বিশ্বাস প্রজ্ঞা
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে চিকিৎসকের সরাসরি পরামর্শ পেতে দেখুন: মনের খবর ব্লগ
করোনায় মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক টেলিসেবা পেতে দেখুন: সার্বক্ষণিক যোগাযোগ
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
করোনায় সচেতনতা বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও বার্তা দেখুন: সুস্থ থাকুন সর্তক থাকুন


 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আমাদের সাথেই থাকুন

87,455FansLike
55FollowersFollow
62FollowersFollow
250SubscribersSubscribe

Most Popular

আশাবাদী মনোভাব দীর্ঘায়ু প্রদান করে

আশাবাদী মনোভাব মানুষকে বাঁচার অনুপ্রেরণা যোগায়। অনেক কঠিন পরিস্থিতিতেও মনের জোর বজায় রাখে। বিপদে ধৈর্য প্রদান করে। সম্প্রতি গবেষকগণ এই দাবি করেছেন যে একজন আশাবাদী...

কারো সাথে ঠিকমতো কথা বলতে পারি না

সমস্যা: আমার বয়স ২৭ বছর। আমি ফ্রিল্যান্সিং কাজের সাথে যুক্ত আছি। আমি খুবই কনজারভেটিভ ফ্যামিলিতে বড় হয়েছি। বর্তমানে আমার কিছু সমস্যা হচ্ছে। কারো সাথে...

করোনা মহামারি ও নয়া স্বাভাবিকতা নিয়ে মনের খবর অক্টোবর সংখ্যা প্রকাশিত

দেশের অন্যতম বহুল পঠিত মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মাসিক ম্যাগাজিন মনের খবর এর অক্টোবর সংখ্যা। অন্যান্য সংখ্যার মত এবারের সংখ্যাটিও একটি বিশেষ বিষয়ের উপর প্রাধান্য...

ধর্ম এবং মানসিক স্বাস্থ্যের যোগসূত্র

অনেকেই মনে করেন ধর্মীয় বিধি বিধান এবং মানসিক স্বাস্থ্যের মাঝে একটি গভীর সম্পর্ক রয়েছে এবং বিশেষ করে যারা ধর্মীয় জীবন যাপন করেন তারা উন্নত...

প্রিন্ট পিডিএফ পেতে - ক্লিক করুন