মানসিক স্বাস্থ্যের সবকিছু ENGLISH

Home জীবনাচরণ সম্পর্ক সতেজ রাখুন

সম্পর্ক সতেজ রাখুন

যান্ত্রিক পৃথিবীতে মানবিক সম্পর্কগুলো ধরে রাখা দিন দিন কঠিন হয়ে যাচ্ছে। ইদানীং সম্পর্কগুলো যেমন সহজে গড়ে ওঠে, তেমন খুব সহজে ভেঙেও যায়। অনেক সময় অনেক ছোট ছোট বিষয়ই একটু অসতর্কতার কারণে বড় হয়ে ওঠে এবং যার পরিণতিতে একটি সন্দর সম্পর্ক অনাকাঙ্খিতভাবে ভেঙে যায়। তাই যত্ন নিন আপনার সম্পর্কের। সম্পর্ককে ভালো রাখার জন্য দরকার কিছু অভ্যাস। আর সেই অভ্যাস রপ্ত করতে হয় দু’জনকেই। দু’জনে মিলে সম্পর্ককে সতেজ রাখার চেষ্টা করলে কখনোই পুরনো হবে না সেই সম্পর্ক। আসুন জেনে নেয়া যাক সম্পর্ককে চিরকাল সতেজ রাখার কিছু উপায় :
১. সম্পর্কটা দাঁড়িপাল্লার মতো, যার দুটো দিক সমান ভার নিলেই ভারসাম্য বজায় থাকে। জীবনের পথে ভালোবাসার মানুষটির হাত শক্ত করে ধরে রাখুন সবসময়। সমস্যা যতই প্রবল হোক, তাকে বোঝান যে আপনি সব সময় পাশেই আছেন। কথা বলার সময় চোখের দিকে তাকিয়ে কথা বলার চেষ্টা করুন।
২. সঙ্গীর প্রত্যেকটি কাজকে মূল্যায়ন করার চেষ্টা করুন। আপনার সঙ্গীটি আপনার জন্য অনেক কিছুই তো করছে। আপনি কি তার প্রশংসা করছেন? নাকি এগুলোকে তার দায়িত্ব হিসেবে ধরে নিয়ে একটিবারের জন্য ধন্যবাদও দিচ্ছেন না? প্রশংসা না পেলে কোনো সম্পর্কে মন থেকে কিছু করার আগ্রহ থাকে না। যে
কোনো ভালো কাজের জন্য একে অপরকে বাহাবা দিন, উৎসাহ দিন একে অপরকে। সঙ্গীর সৌন্দর্য, রান্না কিংবা আপনার প্রতি তার ভালোবাসা ও যত্নের প্রশংসা করুন। আপনার জীবনটাকে আরো সন্দর করে তোলার জন্য তাকে ধন্যবাদ দিন।
৩. সম্পর্ক গড়ে ওঠে পারস্পরিক সম্মান ও শ্রদ্ধার ভিত্তিতে। পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ পারে একটি সন্দর সম্পর্ক সফলতার সঙ্গে টিকিয়ে রাখতে। প্রত্যেকেরই নিজস্ব জগৎ আছে এবং গোপনীয়তাও রয়েছে। সঙ্গীর অনমতি নিয়েই তার ব্যক্তিগত জিনিসগুলো ধরুন। এতে একে অপরের প্রতি সম্মান বাড়বে এবং শ্রদ্ধাবোধ বজায় থাকবে।
৪. সম্মান ও শ্রদ্ধা ছাড়াও পারস্পরিক বিশ্বাসের মাধ্যমে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সম্পর্ক হবে পরিপূর্ণভাবে খোলামেলা, বিশ্বাসযোগ্য ও সহযোগিতামূলক। পরস্পরের মধ্যে বিশ্বাসের অভাব থাকলে সুসম্পর্ক নষ্ট হবে।
৫. সম্পর্কের ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে অন্যদের চেয়ে সঙ্গীকে বেশি গুরুত্ব দেয়া। সঙ্গীর সব কথা মন দিয়ে শুনন। তবে এ ক্ষেত্রে কেউ যদি নিজেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন, তাহলে সম্পর্ক যে বাজে দিকে গড়াবে, তাতে কোনো সন্দেহ নেই।
৬. প্রতিটি জিনিসই ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখার চেষ্টা করুন। সবকিছুতেই ভুল ধরলে অযথা সম্পর্কে টানাপড়েন শুরু হবে। যদি সম্পর্ক ভালো রাখতে চান তবে কোনো কিছু মনমতো না হলে ক্ষেপে না গিয়ে তার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ করুন, জানার চেষ্টা করুন কাজটি কেন করা হয়নি।
৭. নিজেরা একান্তে সময় কাটানোর চেষ্টা করুন। একে অপরের সঙ্গে সময় কাটানো এবং একে অপরের কথা মন দিয়ে শোনাটা খুব গুরুত্বপর্ণ। কাজ, প্রযুক্তি, আত্মীয়-স্বজন সবকিছুর বাইরে নিজেরা কিছুটা সময় কাটান। এটা সম্পর্ককে মজবুত করতে সাহায্য করবে।
৮. সঙ্গীকে হঠাৎ করেই উপহার দিয়ে চমকে দিন। উপহার দেয়ার জন্য উপলক্ষ্যের প্রয়োজন হয় না। যে কোনো কারণেই উপহার দেয়া যায়। সবসময় যে দামি উপহারই দিতে হবে এমন নয়। সঙ্গীর ছোট্ট কোনো পছন্দকে মনে রেখে দেয়া সাধারণ কোনো উপহারও অনেক ভালোলাগা এনে দিতে পারে। বদলে দিতে পারে সম্পর্ক।
৯. চেষ্টা করুন দ’জনের সমস্যা দ’জনের মধ্যেই রাখতে আর দ’জনে মিলেই তার সমাধান করতে। এতে সম্পর্কের গোপনীয়তা বজায় থাকে। বেশিরভাগ
ক্ষেত্রেই কেবল তৃতীয় কোনো ব্যক্তির কারণেই একটা সম্পর্কে দু’জনের মধ্যে ভুল বোঝাবঝির সৃষ্টি হয় এবং কখনো কখনো ভেঙে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আমাদের সাথেই থাকুন

87,455FansLike
55FollowersFollow
62FollowersFollow
250SubscribersSubscribe

Most Popular

শিশুর হজমের সমস্যা থেকে হতে পারে মানসিক রোগ

শিশু বড় হয়ে মানসিকভাবে কতটা সুস্থ থাকবে, সেই বিষয়ে প্রথম থেকেই মা বাবার সচেতন থাকা উচিত। ছোট থেকে যে শিশু হজমের সমস্যায় ভোগে, তাদের...

সর্বদা অন্যদেরকে সন্তুষ্ট করার প্রচেষ্টা মোটেও বুদ্ধিদীপ্ত কোন কাজ নয়

অপছন্দ বা অনিচ্ছা সত্ত্বেও বিভিন্ন সময় আপনি অন্যদের ইচ্ছাকেই গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। সব সময় এভাবে নিজেকে অগ্রাহ্য করা উচিৎ নয়। সব সময় কোন কাজ করতে...

করোনাকালে প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষা ও মানসিক স্বাস্থ্যে প্রভাব নিয়ে মনের খবর নভেম্বর সংখ্যা প্রকাশিত

দেশের অন্যতম বহুল পঠিত মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মাসিক ম্যাগাজিন মনের খবর এর নভেম্বর সংখ্যা। অন্যান্য সংখ্যার মত এবারের সংখ্যাটিও একটি বিশেষ বিষয়ের উপর প্রাধান্য...

অবিবাহিতদের মানসিক স্বাস্থ্য বনাম বিবাহিতদের মানসিক স্বাস্থ্য

আমাদের সমাজে অবিবাহিত বা বৈবাহিক সম্পর্ক এড়িয়ে চলা মানুষদের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। অনেকেই মনে করেন বৈবাহিক সম্পর্ক এড়িয়ে চললেই সবাইকে নিয়ে সুখী...

প্রিন্ট পিডিএফ পেতে - ক্লিক করুন