মানসিক স্বাস্থ্যের সবকিছু ENGLISH

Home জীবনাচরণ ব্রেকআপের কষ্ট কমাতে যা করবেন

ব্রেকআপের কষ্ট কমাতে যা করবেন

হোক দীর্ঘদিনের কিংবা অল্প কয়েকদিনের প্রেম, তা ভেঙে গেলে মেনে নেয়াটা বেশ কষ্টদায়ক। তিলতিল করে গড়ে তোলা স্বপ্ন যখন ভেঙে যায়, সবকিছুই ধূসর মনে হয়। প্রিয়জনের বিচ্ছেদে পছন্দের খাবারটিও লাগে বিস্বাদ। অনেকে আবার এতটাই ভেঙে পড়ে যে নিজের জীবননাশেরও সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন, যা মোটেও ঠিক নয়। প্রেম, ভালোবাসা, বিচ্ছেদ – এগুলো জীবনেরই অংশ। ব্যাপারটা এত সহজ না হলেও সঠিক চিন্তা ও বাস্তবমুখী পদক্ষেপ বিচ্ছেদের বেদনা কিছুটা কমাতে সাহায্য পারে। সেরকমই কিছু টিপস নিচে দেয়া হলো –
বাস্তবতাকে মেনে নিন:
গভীর প্রশ্বাস নিন, কল্পনার রাজ্য ছেড়ে বাস্তবতায় ফিরে আসুন। মনকে বোঝান যে আপনার সম্পর্কটি ভেঙে গেছে এবং সেখানে ফিরে যাওয়ার আর কোনো উপায় নেই। উপায় থাকলেও সেখানে ফিরে যাওয়াটা আপনার জন্য কল্যাণকর নয়। বাস্তবতার সঙ্গে আপনার আবেগকেও মেনে নিন, যা আপনাকে ব্রেক-আপের কষ্ট নিরাময়ে, বেঁচে থাকতে ও মনকে সতেজ করতে সাহায্য করবে। ধৈর্য্যহারা হলে চলবে না, কেউই একদিনে সবকিছু মেনে নিতে পারে না। সুতরাং নিজেকে সময় দিন। প্রস্তুতি নিন খারাপ দিনগুলো অতিবাহিত করার, অপেক্ষা করুন ভালো কিছুর। এক সময় দেখবেন খারাপ সময়টাকে পেছনে ফেলে আপনি হয়ে উঠেছেন মানসিকভাবে শক্তিশালী।
আগের সম্পর্ক নিয়ে বেশি ভাববেন না:
সম্পর্কে কী কী ভুল ছিল তা নিয়ে ভাবনা চিন্তা অবশ্যই ভালো- এর থেকে শেখা যায়। ভষিষ্যতে যাতে এ ধরনের ভুল না হয় সে বিষয়ে সতর্ক হওয়া যায়। তবে কোনো বিষয়ে অতিরিক্ত ভাবনা কখনোই ভালো নয়। সুতরাং ইতিবাচক থাকুন, জীবনটাকে উপভোগ করুন।
লিখুন:
যেকোনো বিষয় নিয়ে লেখালেখি শুরু করুন। এটি দুঃখ বা কষ্ট নিরাময়কারী এবং আবেগমুক্তিকারী বা রেচক হিসেবে কাজ করবে। খাতা-কলম নিয়ে বসে পড়ুন এবং মনে যা আসছে লিখে ফেলুন।
বন্ধু ও পরিবারের সাথে সময় কাটান:
কাছের বন্ধু-বান্ধব ও পরিবারের সদস্যদের কাছে সমর্থন ও সাহায্য চাইতে দ্বিতীয়বার ভাববেন না। তাদের সঙ্গে ডিনারে যেতে পারেন, আপনার মনের কথাগুলো খুলে বলতে পারেন, অথবা পরামর্শ নিতে পারেন। সময় কাটান তাদের সঙ্গে যারা আপনার মনকে করে তুলবে প্রফুল্ল, জন্ম দেবে নতুন ভালোবাসার। মনে রাখতে হবে, প্রেমের সম্পর্ক ছাড়াও আপনাকে যত্নে আগলে রাখতে ও আপনার জীবনকে আনন্দময় করে তুলতে আরো অনেক সম্পর্ক রয়েছে।
আপনার প্রাক্তন-কে পুরোপুরি বাতিল করে দিন:
ব্রেকআপের পর সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রাখা কখনোই ভালো আইডিয়া হতে পারে না। মনোঃকষ্ট কমাতে এমন মানুষের সঙ্গে সময় কাটান, যে আপনার মন ভালো করতে পারে। নিশ্চয়ই এই তালিকায় সবার উপরে আপনার প্রেমিক বা প্রেমিকাই থাকবে। কিন্তু যার সঙ্গে আপনার ব্রেকআপ হয়ে গেছে, তার সঙ্গে কথা বলা, সময় কাটানো কখনোই ভালো কিছু বয়ে আনবে না। আপনি আপনার সাবেক সঙ্গীর সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রাখতেই পারেন, কিন্তু সেটা ব্রেক-আপের কষ্ট পুরোপুরি কাটিয়ে ওঠার পর হলেই সর্বসাকুল্যে ভালো।
অনুবাদ করেছেন: আছিয়া নিশি
সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া
https://timesofindia.indiatimes.com/life-style/relationships/missing-your-ex-partner/photostory/66262059.cms

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আমাদের সাথেই থাকুন

87,455FansLike
55FollowersFollow
62FollowersFollow
250SubscribersSubscribe

প্রিন্ট পিডিএফ পেতে - ক্লিক করুন

Most Popular

মাদকাসক্ত ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হওয়ার অধিকতর ঝুঁকিতে

কোভিড-১৯ মহামারী এখন সমস্ত পৃথিবীব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। যে কেউ এই রোগে আক্রান্ত হতে পারে। তবে গবেষণা বলছে, মাদকাসক্ত ব্যক্তিদের মাঝে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি...

মানসিক স্বাস্থ্য সেবা গ্রহণে সচেতনতা সৃষ্টিতে করণীয়

মানসিক ভাবে সুস্থ থাকতে কিছু কিছু ক্ষেত্রে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ জরুরী হয়ে পড়ে। কিন্তু সমাজে বিদ্যমান বিভিন্ন কুসংস্কার এবং অসচেতনতা আমাদের এই সেবা গ্রহণের...

দুরন্ত নাকি মানসিক সমস্যায় ভুগছে আপনার সন্তান

শিশুদের প্রতিনিয়ত রাগান্বিত বা আক্রমণাত্মক আচরণ সহ্য করা বাবা-মা অথবা শিক্ষক কারও জন্যই স্বাভাবিক বা সুখকর অভিজ্ঞতা নয়। তাদের এই আবেগের বহি:প্রকাশ যদি বাড়ির...

নিজের যত্নে জরুরি বিষয়াবলী

নিজের নিয়ন্ত্রণ, উদ্যোগ ও ইচ্ছা প্রসূত হয়ে শরীরের যত্ন নেয়াকে সেলফ কেয়ার বা নিজের যত্ন নেয়া বলে। মানসিক স্বাস্থ্যের যত্ন নিতে হলে আগে নিজের...