আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে যেভাবে নিজেকে আকর্ষণীয় করে তুলবেন

0
47

আপনি হয়তো অফিসে কাজ করছেন কিংবা ক্লাসের কোন প্রেজেন্টেশন আছে। জানাশোনা ভালো থাকার পরেও আত্মবিশ্বাসের অভাবে ঘাবড়ে রয়েছেন। কিংবা ইন্টারভিউ দিতে যাবেন অথচ কিভাবে নিজেকে উপস্থাপন করবেন বা আদোতেও পারবেন কী না তা নিয়ে চিন্তিত। তাহলে আর কিছু নয় বরং অভাব রয়েছে আপনার আত্মবিশ্বাসের।
অনেক সময় দেখা যায়, নিজের সাধ্য অনুযায়ী অনেক কিছু করার পরেও আশানুরূপ ফল পাওয়া যায়না। এটি আর কিছু না, এটা হলো আপনার আত্মবিশ্বাসের অভাব। যথাযথ আত্মবিশ্বাসের কারণে অনেক লড়াই অর্ধেক জিতে যাওয়া যায়। আত্মবিশ্বাস আর এক চিলতে হাসিই এনে দিতে পারে নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে জয়। তেমনি আত্মবিশ্বাস গড়ে তুলার কিছু টিপস আজ আপনাদের জন্য।
পূর্বপ্রস্তুতি ঠিকমতো নিন: ইন্টারভিউ, প্রেজেন্টেশন কিংবা অফিসের কোনো কাজ যথাযথ সময়ে করুন এবং রিসার্চ করুন। নিজের জ্ঞানের পরিধি বাড়িয়ে রাখুন উক্ত বিষয়। জ্ঞান যদি পরিমিত থাকে, তবে নিজের প্রতি বিশ্বাস আপনা-আপনি চলে আসে। এই বিশ্বাসকে কাজে লাগিয়েই গড়ে তুলুন আত্মবিশ্বাস। প্রোম্যাটিক্স তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক পরিচালক জনাব অর্পিত জেইন এক বিবৃতিতে বলেন, ‘প্রতিবারই নতুন ক্লায়েন্টের সঙ্গে দেখা করার পূর্বে আমি বাসায় প্রাকটিস করে যাই। এতে আমার আত্মবিশ্বাস আরও বাড়িয়ে তোলে।’
পেশাদারিত্ব বজায় রাখুন: গিরনার বিশ্ব গবেষণার পরিচালক সচিন জেইন বলেন, ‘আমি সবসময় আমার সহকর্মী এবং ছাত্রছাত্রীদের বলি কর্মক্ষেত্রে সময়ানুবর্তী এবং পোশাকে পেশাদারিত্ব বজায় রাখতে। এটি স্বতঃস্ফূর্তভাবে আপনার মাঝে আত্মবিশ্বাস এনে দিবে।
সপ্তাহিক ছুটি ছাড়া ক্যাজুয়াল পোশাক না পরাই উত্তম। সময় মেনে চলে কর্মক্ষেত্রে ফর্মাল পোশাক পরে যাতায়াত করুন। ইন্টারভিউ এর ক্ষেত্রেও এটি খুব প্রভাব ফেলে। আপনার পোশাক, সময়ানুবর্তিতাই তখন মূখ্য হয়ে দাঁড়ায়।
স্বকীয়তা বজায় রাখুন: নিজেকে কখনো অন্যের সাথে তুলনা না করে বরং নিজের সর্বোত্তমটুকু দিয়ে নিজের প্রতি ভরসা রাখুন। হয়তো আপনি পৃথিবীর সেরা বাবা কিংবা বস অথবা কর্মী নাও হতে পারেন। তবে এইটুকু নিশ্চিত রাখবেন, আপনি আপনার সেরাটুকু দিয়েই কাজ করছেন। যা বাড়িয়ে তুলবে আপনার আত্মবিশ্বাস।
মাথা উঁচু, মুখে হাসি: প্রতিটা মানুষের মুখের হাসি, লাখ টাকা দামী। এই জিনিসটি কখনো হারাবেন না। মাথা উঁচু রেখে, হাসি মুখে সব সময় কথা বলবেন। যা আপনাকে অন্যের কাছে আরও বেশি আকর্ষণীয় করে তুলবে।
শরীরিক ভঙ্গি: আপনার চলাফেরা, বসার ভঙ্গিমাও আপনার সম্পর্কে অনেক কিছু বলে দেয়৷ এসবের ভাষায় প্রকাশ পায় আপনার ব্যক্তিত্ব। তাই সব সময় চিবুক সোজা রেখে, মাথা তুলে চলাফেরা করুন। মেরুদণ্ড সোজা রেখে বসুন। যা ভীড়ের মাঝেও বাড়িয়ে তুলবে আপনার আত্মবিশ্বাস।
নতুন কিছু শিখুন: আপনি যা ভালোবাসেন তাই শিখুন। গান, নাচ, থিয়েটার কিংবা নতুন কোনো ভাষা! এসব গুণ আরও দশজন থেকে আলাদা করে, তাদের মাঝে আপনাকে করে তুলবে আকর্ষণীয় এবং এতে বেড়ে যাবে আপনার আত্মবিশ্বাস।  মোটকথা নিজের প্রতি বিশ্বাস বাড়িয়ে, নিজের কর্মক্ষেত্রে মনোযোগী হয়ে, নিজেকে সাবলিল উপস্থাপন করুন সবসময়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here