মানসিক স্বাস্থ্যের সবকিছু ENGLISH

Home কোভিড-১৯ এর সময়ে মানসিক স্বাস্থ্যই মূল সম্পদ

কোভিড-১৯ এর সময়ে মানসিক স্বাস্থ্যই মূল সম্পদ

এখন আমাদের কাছে সামাজিক দূরত্ব, আইসোলেশন, কোয়ারেন্টাইন এই শব্দ গুলো বেশ পরিচিত হয়ে উঠেছে। আর এই শব্দগুলোর সাথে যে অনুভূতি জড়িয়ে আছে তা হল দুশ্চিন্তা, ভয়, বিষণ্ণতা সহ বিভিন্ন ধরণের মানসিক চাপ, উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা। কিভাবে এসব মানসিক সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায় সেই কৌশল গুলো নিয়ে আলোচনা করা যাক।
আমরা যে যে অবস্থানে আছি, যে যে জীবিকা নির্বাহ করছি, আমাদের সবার জীবনই কোভিড-১৯ দ্বারা প্রভাবিত হয়েছে। ছোট চাকরী বা স্বল্প জীবিকায় জীবন নির্বাহ করা মানুষেরা রয়েছেন সব থেকে বেশী বিপদে। তারা তাদের কর্ম, উপার্জন, অর্থনৈতিক অবস্থা সব কিছু নিয়ে অত্যন্ত অনিশ্চিত জীবন যাপন করছেন। দুশ্চিন্তা এবং উদ্বিগ্নতায় তাদের প্রতিটি দিন কাটছে। প্রতি দিন সারা বিশ্ব ব্যাপী করোনা ভাইরাসে নতুন নতুন আক্রান্ত আর মৃত্যুর দীর্ঘ সারি দেখে দেখে আমরা সবাই ক্লান্ত এবং হতাশ। কোনভাবেই যেন টেনে ধরা যাচ্ছেনা করোনার লাগাম। এসব সংবাদ আমরা যত শুনছি ততো আমাদের মাঝে বিষণ্ণতা এবং উদ্বিগ্নতা বাড়ছে।
একই ভাবে বাড়তি মানসিক চাপ আমাদের এসব খবর বেশী শোনার প্রতি আকৃষ্ট করছে। তাই একটু সতর্ক হয়ে দৈনন্দিন কাজ না করলে আমাদের মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণ অসম্ভব হয়ে পড়বে। তাই এই আইসোলেশনের সময়টায় আমাদেরকে ছোট ছোট কিছু কৌশল অবলম্বন করতে হবে যেন আমাদের দুশ্চিন্তার মাত্রা কমে এবং কোভিড-১৯ এর আতঙ্ক থেকে আমরা মুক্তি পেতে পারি।

  • যে কোন সংবাদ যাচাই বাছাই করে তারপর বিশ্বাস করুন। এই চরম বিশৃঙ্খল সময়ে আস্থাভাজন সূত্র ছাড়া কোন সূত্রের সংবাদ বা গুজব চোখ বুজে বিশ্বাস করবেন না। গুজব মানসিক চাপ, উৎকণ্ঠা এবং দুশ্চিন্তার প্রধান কারণ। সঠিক সংবাদ যেমন আপনাকে কোভিড-১৯ সম্পর্কে সঠিক তথ্য দেবে তেমনি আপনি সেসব কাজে লাগিয়ে নিজের ও পরিবারের সুরক্ষার যথাযথ ব্যবস্থা নিতে পারবেন। ঠিক ততোটুকুই জানুন এবং শুনুন যা আপনার মানসিক চাপ বাড়াবে না এবং আপনার পরিবারের সুরক্ষার জন্য যথেষ্ট।
  • সব সময় করোনা সংবাদ না শুনে অন্যান্য আনন্দদায়ক অনুষ্ঠান যেমন মুভি, টিভি সিরিজ, ডকুমেন্ট্রি, কমেডি শো ইত্যাদি উপভোগ করুন। এতে মন প্রফুল্ল থাকবে। সব ধরণের মানসিক চাপও কমবে।
  • মনে করে দেখুন তো, এমন কি কি কাজ আছে যেগুলো এত দিন কর্ম জীবনের চাপে করে উঠতে পারেননি। সেসব কাজ করুন। ঘরের কোন কাজ, নিজের যত্ন নেওয়া, সখের কোন কাজ বা এমন অন্য কাজ গুলো করুন। এসব কাজেও মানসিক চাপ কমবে।
  • যেহেতু এখন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঘরে থাকতে হচ্ছে তাই ভিডিও কল, টেলিফোন ও অন্যান্য প্রযুক্তির সহায়তায় সবার সাথে যুক্ত থাকতে পারেন।
  • স্বাস্থ্যকর খাদ্য গ্রহণ করুন। এ সময়ে শরীর সুস্থ রাখা আবশ্যক। কারণ সুস্থ শরীরেই সুস্থ মনের বসবাস। সময় মত সুষম খাদ্য গ্রহণ করুন। এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে এবং করোনা ঝুঁকিও কমবে। মনে রাখবেন, মানসিক চাপ কমাতে সুস্থ থাকার বিকল্প নেই।
  • নিয়মিত শরীর চর্চা করুন। এটা অত্যন্ত জরুরী। নিয়মিত শরীর চর্চায় শরীর ও মনের ইতিবাচক পরিবর্তন পরিলক্ষিত হয়। যেহেতু এখন নিজ গৃহে অফুরন্ত সময়ের মালিক আপনি, নতুন নতুন শরীর চর্চার প্রয়াস করতে পারেন। এতে মন করোনা ভীতি মুক্ত থাকবে।

মনে রাখবেন, আপনার মন ঠিক আপনার পাকস্থলীর মত। আপনি যদি ভাল এবং স্বাস্থ্যকর খাদ্য গ্রহণ করেন, আপনি সুস্থ এবং হাসি খুশি থাকতে পারবেন। আর যদি আপনি অস্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ করেন তাহলে অবশ্যই অসুস্থ হয়ে পড়বেন। একইভাবে, আপনি যত বেশী দুঃসংবাদ, এবং নেতিবাচক খবর শুনবেন, সেসব নিয়ে ভাববেন, আপনার মন দুর্ভাবনা, দুশ্চিন্তা এবং আশঙ্কায় পরিপূর্ণ হবে। তাই শরীর ও মন সুস্থ রাখতে ইতিবাচক শুনুন, ইতিবাচক ভাবুন। কোভিড-১৯ আপনাকে কোনভাবেই মানসিকভাবে অসুস্থ করতে পারবেনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আমাদের সাথেই থাকুন

87,455FansLike
55FollowersFollow
62FollowersFollow
250SubscribersSubscribe

Most Popular

আশাবাদী মনোভাব দীর্ঘায়ু প্রদান করে

আশাবাদী মনোভাব মানুষকে বাঁচার অনুপ্রেরণা যোগায়। অনেক কঠিন পরিস্থিতিতেও মনের জোর বজায় রাখে। বিপদে ধৈর্য প্রদান করে। সম্প্রতি গবেষকগণ এই দাবি করেছেন যে একজন আশাবাদী...

কারো সাথে ঠিকমতো কথা বলতে পারি না

সমস্যা: আমার বয়স ২৭ বছর। আমি ফ্রিল্যান্সিং কাজের সাথে যুক্ত আছি। আমি খুবই কনজারভেটিভ ফ্যামিলিতে বড় হয়েছি। বর্তমানে আমার কিছু সমস্যা হচ্ছে। কারো সাথে...

করোনা মহামারি ও নয়া স্বাভাবিকতা নিয়ে মনের খবর অক্টোবর সংখ্যা প্রকাশিত

দেশের অন্যতম বহুল পঠিত মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মাসিক ম্যাগাজিন মনের খবর এর অক্টোবর সংখ্যা। অন্যান্য সংখ্যার মত এবারের সংখ্যাটিও একটি বিশেষ বিষয়ের উপর প্রাধান্য...

ধর্ম এবং মানসিক স্বাস্থ্যের যোগসূত্র

অনেকেই মনে করেন ধর্মীয় বিধি বিধান এবং মানসিক স্বাস্থ্যের মাঝে একটি গভীর সম্পর্ক রয়েছে এবং বিশেষ করে যারা ধর্মীয় জীবন যাপন করেন তারা উন্নত...

প্রিন্ট পিডিএফ পেতে - ক্লিক করুন