সবকিছু অপেক্ষাকৃত দ্রুত ভুলে যাচ্ছি

0
236
ফেইল করার ভয়ে পরীক্ষা দেওয়া বন্ধ করে দিই

আমাদের প্রতিদিনের জীবনে ঘটে নানা ঘটনা,দুর্ঘটনা। যা প্রভাব ফেলে আমাদের মনে। সেসবের সমাধান নিয়ে মনের খবর এর বিশেষ আয়োজন ‘প্রতিদিনের চিঠি’ বিভাগ। এই বিভাগে প্রতিদিনই আসছে নানা প্রশ্ন। আমাদের আজকের প্রশ্ন পাঠিয়েছেন -শামীম হাসান (ছদ্মনাম)-

আসসালামু আলাইকুম। আমার বয়স ২২, উচ্চতা ৫ ফুট ৬ইঞ্চি। ঢাকায় অনার্স ৩য় বর্ষে অধ্যয়নরত। আমি সবকিছু অপেক্ষাকৃত দ্রুত ভুলে যাচ্ছি। খুব পরিচিতদের নামও কয়েকদিন দেখা না হলেই ভুলে যাচ্ছি, পরিচিত কাউকে দেখলে হঠাৎ করে মনে পড়ে না, জানাশোনা কারো নাম নিয়ে ও কনফিউশনে ভুগি (যেমন : রিদয় না কি রিয়াদ)।ভাল করে পরিচিত হওয়ার ১ সপ্তাহ পর যদি অন্য কোথাও দেখি কনফিউশনে পড়ে যাই (চেহারা কিছুটা মনে পড়ে কিন্তু কোথায় দেখেছি, জুনিয়র নাকি সিনিয়র মনে করতে পারিনা)। একসাথে চার পাঁচজনের সাথে পরিচিত হলে কারো নামই মনে থাকেনা।বারবার পরিচিত হয়েও ১৫-২০ দিন পরে আবার ভুলে যাই। একটু দুর থেকে কাউকে দেখলে সে যত দ্রুত আমাকে চিনতে পারে আমি তত দ্রুত চিনতে পারি না।আমার মনোযোগে সমস্যা হচ্ছে, এক বিষয়ে বেশিক্ষণ মনোযোগ থাকে না। সমস্যাটি এক-দেড় বছর ধরে হচ্ছে।আগে স্বাভাবিক মনে হত কিন্তু ইদানিং খুব প্রকট আকারে বেড়েছে।পড়ালেখার ব্যাপারেও একই সমস্যা।৩ বছর আগে একটা রোড এক্সিডেন্টে অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলাম, মাথায় কিছুটা আঘাত পেয়েছিলাম,  কোনো স্ট্রেসও অনুভূত হয় না।ইদানিংকালে মারাত্নক আকারে ভুলে যাচ্ছি সবকিছু।

কি করতে পারি? খুব সমস্যায় ভুগছি। সমাধান জানাবেন আর ডাক্তার দেখাতে হলে কোন ধরনের চিকিৎসা নেব? সাইকোথেরাপি, সাইকিয়াট্রি নাকি নিউরোলোজি? জানাবেন প্লিজ।

আপনার সমস্যাটি মনোযোগ দিয়ে পড়লাম। হুম, অবশ্যই এসব আপনার জন্য বিব্রতকর। আপনি মাথায় আঘাত পাওয়ার জন্য যেখানে ডাক্তার দেখিয়েছেন তাদের সাথে কি আপনার যোগাযোগ আছে? নাকি এখন আর দেখা করেন না? যদি যোগাযোগ থাকে তবে তাদের সাথেই সরাসরি কথা বলে আপনার বর্তমান সমস্যার সমাধান চাইতেপারেন। তারা প্রয়োজন মতো আপনাকে যেখানে রেফার করলে ভালো হবে নিশ্চয়ই সেখানেপাঠাবেন।

অথবা আপনার সমস্ত কাজগ বা পরীক্ষার রিপোর্টসহ নতুন করে একজন নিউরোলজিস্ট বা মনোরোগ বিশেষজ্ঞের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। ব্রেইনের কিছু কিছু জায়াগা আছে যেখানে আঘাত লাগলে সাময়িকভাবে এমন কিছু সমস্যা হতে পারে। ভুল হওয়া বা মনে না থাকার মতো হতে পারে। মনোযোগও কমতে পারে। কিন্তু আপনার সমস্যাটি অনেক দিনে হয়ে গেছে, তাই এ বিষয়ে চিকিৎসা নেয়ার যে চিন্তা আপনি করেছেন সেটি অবশ্যই ঠিক আছে। আপনি আপাতত টেবলেট নিওরোল্যাপ ৮০০মি গ্রা, রাতে একটা করে এবং টেবলেট, নেক্সিটাল ৫ মিগ্রা, সকালে একটা করে খেতে পারেন। সেই সাথে সরাসরি চিকিৎসকের পরামর্শ নিতেপারেন। আপনার সমস্যা দূর হোকে সেই কামনা করছি।

ইতি,
প্রফেসর ডা. সালাহ্উদ্দিন কাউসার বিপ্লব

চেয়ারম্যান ও অধ্যাপক – মনোরোগবিদ্যা বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।
সেকশন মেম্বার – মাস মিডিয়া এন্ড মেন্টাল হেলথ সেকশন অব ‘ওয়ার্ল্ড সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশন’।
কোঅর্ডিনেটর – সাইকিয়াট্রিক সেক্স ক্লিনিক (পিএসসি), মনোরোগবিদ্যা বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।
সাবেক মেন্টাল স্কিল কনসাল্টেন্ট – বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্রিকেট টিম।
সম্পাদক – মনের খবর। চেম্বার তথ্য – ক্লিক করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here