মানুষ অলীক কিছুর অস্তিত্বে বিশ্বাস করে কেনো?

0
117
মানুষ অলীক কিছুর অস্তিত্বে বিশ্বাস করে কেনো?
ঠিক কি কি কারণে আমাদের মাঝে অলীক বস্তুর প্রতি বিশ্বাস সৃষ্টি হয় সাম্প্রতিক কিছু গবেষণায় সেই কারণগুলি উঠে এসেছে। আসুন জানা যাক।

গবেষণায় দেখা গেছে যে, সাধারণত অলীক কিছুর প্রতি বিশ্বাস মানুষের মস্তিষ্কের কিছু বিশেষ অংশের অকার্যকারিতার কারণেই সৃষ্টি হয়। আর এই মানসিক সমস্যায় বেশী ভোগেন যারা সম্প্রতি কোন বড় দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়েছেন বা অসুস্থতার হাত থেকে বেঁচে ফিরেছেন। গবেষণায় দেখা গেছে যে এ ধরণের অলীক বস্তুর প্রতি বিশ্বাস কিছুটা শারীরসংস্থান বিষয়ক হয়। অর্থাৎ, মানুষ সাধারণত শরীরের অবয়বকেই কল্পনা করে নেয় এবং বিশ্বাস করে যে সত্যিই তারা সেটি দেখছে এবং সেটির অস্তিত্ব রয়েছে।

সাধারণত মানুষ শৈশবে এ ধরণের অলীক বস্তুর প্রতি বিশ্বাস ছিল দৈনন্দিন অভিজ্ঞতা। এটা কারোর ই মনে থাকেনা কারণ এটা ছিল একদম জন্ম পরবর্তী সদ্যোজাত অবস্থার একটি অভিজ্ঞতা। সাধারণত তিন বা চার বছর বয়স হলে এ ধরণের মানসিক স্থিতি লোপ পায়। এ সময়ে আমাদের স্মরণ শক্তি ধীরে ধীরে দীর্ঘস্থায়ী হয় এবং আমাদের মধ্যে কল্পনা বা অলীক বস্তুর প্রতি বিশ্বাস লোপ পায়।

আবার, যারা সিনেসথেসিয়াতে আক্রান্ত তাদের মাঝেও এ ধরণের অভিজ্ঞতা বেশ সাধারণ। সিনেসথেসিয়া বলতে গেলে বেশ মজার একটি মানসিক দশা। এ ধরণের মানসিক সমস্যায় ভোগা ব্যক্তি প্রায়শই গানের সুরকে বিভিন্ন রঙ হিসেবে কল্পনা করতে পারেন যখন তারা কোন গানের সুর শুনতে পান। আবার অনেক সময় যে কোন ধরণের স্পর্শ যেন তাদের মাঝে স্বাদ গ্রহণের মতো মনে হয়। এ ধরণের ব্যক্তিদের মানসিক অবস্থা এমন হয় যে, যে কোন ধরণের সংবেদনশীল অনুভূতি যেমন,শ্রবণ, কল্পনা, আস্বাদন বা স্পর্শের অনুভূতি তাদের কাছে একটি কায়িক রুপ গ্রহণ করে।

তাছাড়া, আরও বেশ কিছু কারণে বা অবস্থায় একজন মানুষ অলীক বস্তুর কল্পনাকে বাস্তব হিসেবে মনে করতে শুরু করে। গবেষণায় দেখা গেছে যে, প্রায় ঊননব্বই শতাংশ রোগী যারা বড় ধরণের কোন দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন তাদের মাঝে অলীক বস্তুর কল্পনার মতো মানসিক স্থিতি তৈরি হয়। মস্তিষ্কের একটি নির্দিষ্ট অংশের কাজ না করার ফলে ব্যক্তি এ ধরণের মানসিক স্থিতির সম্মুখীন হয়। কোন ধরণের মাদক বা উত্তেজকের প্রয়োজন পড়েনা।

একজন মানুষ যখন বড় কোন মানসিক আঘাত পায় তখন তার মাঝে ভয়ের সেই অভিজ্ঞতা যেন বাস্তব রুপ ধরে তার দৈনন্দিন জীবনের সাথে মিলে যায়। কল্পনার জগত থেকে বাস্তব জগতের মধ্যে পার্থক্য করতে সে ব্যর্থ হয়। আর এমন অবস্থাতেই সেই ভয়াবহ স্মৃতির অলীক কল্পনা তার কাছে মাঝে মধ্যেই বাস্তব হয়ে ধরা দেয়।

এ ধরণের গবেষণাই বলে দেয় যে অলীক বস্তুর প্রতি কল্পনা একজন মানুষের মস্তিষ্কের একটি বিশেষ অবস্থা। মানসিক অস্থিতিশীল অবস্থাতেই মানুষ এ ধরণের মানসিক সমস্যায় ভোগেন। এ ধরণের সমস্যাকে গুরুত্ব দিয়ে এর প্রতিকার করা প্রয়োজন। নাহলে মানসিক অবস্থা ধীরে ধীরে নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে শুরু করে এবং ব্যক্তি মানসিক ও শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

সূত্র: https://www.psychologytoday.com/intl/blog/your-brain-food/202103/what-causes-hallucinations

অনুবাদ করেছেন: প্রত্যাশা বিশ্বাস প্রজ্ঞা

স্বজনহারাদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য পেতে দেখুন: কথা বলো কথা বলি
করোনা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য ও নির্দেশনা পেতে দেখুন: করোনা ইনফো
মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক মনের খবর এর ভিডিও দেখুন: সুস্থ থাকুন মনে প্রাণে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here